Projonmo Kantho logo
About Us | Contuct Us | Privacy Policy
ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৪ জানুয়ারী ২০১৯ , সময়- ২:৪০ পূর্বাহ্ন
Total Visitor: Projonmo Kantho Media Ltd.
শিরোনাম
প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী হলেন ফেরদৌস ও শাহ ফরহাদ নেতাজি'কে কেন রাষ্ট্রনায়কের মর্যাদা দেওয়া হল না, ক্ষুব্ধ মমতা সাংবাদিকদের একটা করে ফ্ল্যাট দেবে সরকার আ'লীগের নিরঙ্কুশ বিজয়ের পর জনগণ শান্তিতে : কাদের ফেব্রুয়ারি মাসে বিশ্ব ইজতেমা করার সিদ্ধান্ত ডাকসু নির্বাচন, আগামী ১১ মার্চ বিশ্ব চিন্তাবিদের তালিকায় এবার শেখ হাসিনা  যুবলীগ ও আ'লীগের দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ, গুলিবিদ্ধ ১০ গণতন্ত্র ও উন্নয়ন একসঙ্গে চলবে : প্রধানমন্ত্রী দুদকের পরিচালক সাময়িক বরখাস্ত

ছাতকে পুলিশের গ্রেফতার বাণিজ্যের প্রতিবাদে শহরে বিক্ষোভ


ছাতক (সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধি

আপডেট সময়: ৩১ অক্টোবর ২০১৭ ৯:৫৯ এএম:
ছাতকে পুলিশের গ্রেফতার বাণিজ্যের প্রতিবাদে শহরে বিক্ষোভ

ছাতকে সাদা পোষাকে পুলিশ ইসমাইল হোসেন (৩২) নামের এক ব্যক্তিকে আটক করে নগদ টাকাসহ মালামাল রেখে থানা থেকে ছেড়ে দেয়ার ঘটনায় পুলিশের অপসারনের দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সভা করেছে এলাকাবাসি, মিথ্যা অভিযোগে আটকের পর পুলিশ তাকে শারীরিকভাবে ব্যাপক নির্যাতন করেছে বলে ও বক্তারা অভিযোগ করেন।

জানা যায়, উপজেলার নোয়ারাই ইউপির বাঁশটিলা গ্রামের মৃত আব্দুল রশিদের পুত্র ইসমাইল হোসেনকে গত রোববার ২৯অক্টাবর রাতে এএসআই আব্দুল হালিমের নেতৃত্বে গ্রাম থেকে তাকে আটক করা হয়। ৩টি হত্যা মামলার জড়িত থাকার অভিযোগে পুলিশ তাকে গ্রেফতার করলেও থানায় এনে তার বিরুদ্ধে কোন অভিযোগ না থাকায় জনৈক বাবুল মিয়ার জিম্মায় তাকে ছেড়ে দেয়া হয় সোমবার ৩০অক্টাবর ছাতক তাকে হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়।

এদিকে ইসমাইলকে অন্যায়ভাবে গ্রেফতার ও নির্যাতনের ঘটনায় বাঁশটিলাসহ এলাকাবাসির উদ্যোগে শহরে এক বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সভা অনুষ্টিত হয়, এএসআই হালিমের অপসারনের দাবিতে মাওলানা এমাদ উদ্দিনের সভাপতিত্বে ও আখতার হোসেনের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সভায় বক্তব্য রাখেন, সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান ও আ’লীগ নেতা আফজাল আবেদীন আবুল, দিলোয়ার হোসেন, বাবুল মিয়া, নূরুল হক, সমছু মিয়া, সুরুজ মিয়া, আব্দুন নূর, নূরুল ইসলাম, আকবর আলী প্রমূখ। সভায় সাদা পোষাকে গিয়ে প্রতিনিয়ত বিভিন্ন লোকজনকে পুলিশ গ্রেফতার করে হয়রানী ও তাদেরকে নির্যাতনের ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান বক্তারা।

থানার অফিসার ইনচার্জ আতিকুর রহমান গ্রেফতারে কথা স্বীকার করলেও নির্যাতনের ঘটনা তিনি অস্বীকার করেন। ওয়ারেন্ট অফিসার সৈয়দ আব্দুল মান্নানের সাথে যোগাযোগ করা হলে তার নামে কোন ওয়ারেন্ট নেই বলে জানান তিনি।


আপনার মন্তব্য লিখুন...

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ন বেআইনি
Top