Projonmo Kantho logo
About Us | Contuct Us | Privacy Policy
ঢাকা, রবিবার, ২৭ মে ২০১৮ , সময়- ৭:৪৯ অপরাহ্ন
Total Visitor: Projonmo Kantho Media Ltd.
শিরোনাম
শনিবার অভিযানে ১১ জেলায় বন্দুকযুদ্ধে অন্তত ১১ জন নিহিত  বার কাউন্সিল নির্বাচন : আ.লীগ সমর্থকদের নিরঙ্কুশ বিজয়  চলতি বছরের হজ ফ্লাইট বৃহস্পতিবার থেকে শুরু ডেসটিনি ২০০০ লিমিটেড অবলুপ্তির বিষয়ে আদেশ সোমবার টেকনাফে যুবলীগের সাবেক সভাপতি একরাম কমিশনার ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলা ভাগ হলেও রবীন্দ্র-নজরুল অবিভক্ত : শেখ হাসিনা একান্ত বৈঠকে : তিস্তা নয়, মমতা উদ্যোগ বঙ্গবন্ধু'র নামে একটি মিউজিয়াম তৈরি ফাইনালে মুখোমুখি হবে হায়দরাবাদ ও চেন্নাই, আগামীকাল রোববার আগামী ৩ মাসের মধ্যে অনলাইন পত্রিকার রেজিষ্ট্রেশন : তথ্য প্রতিমন্ত্রী

শৈলকূপায় মাদক ব্যবসায়ীর কান্ড 

মাদক বিক্রয়ে বাঁধা দেওয়ায় মহিলাকে পিটিয়ে জখম


ষ্টাফ রিপোর্টার, ঝিনাইদহ

আপডেট সময়: ৬ ডিসেম্বর ২০১৭ ৯:৪৯ এএম:
মাদক বিক্রয়ে বাঁধা দেওয়ায় মহিলাকে পিটিয়ে জখম

ঝিনাইদহ জেলার শৈলকূপা উপজেলার ভাটই বাজারের উত্তর পাড়ায় ঘটনাটা ঘটছে। এ অঞ্চলের অনেকেই মাদক ব্যবসার কারনে এই স্থানটাকে এইড পাড়া বলে থাকে। জানা গেছে, এই পাড়ায় দীর্ঘদিন ধরে রাজু নামে এক মাদক ব্যবসায়ী মাদক সেবন ও ব্যবসা করে আসছিল। কিন্তু প্রায় বছর খানেক আগে মাদক সেবনের কারনে অসুখে রাজু মারা যায়। রাজু মারা গেলেও বন্ধ হয় না মাদকের এই ব্যবসা। তাঁর পুরাতন মাদক ব্যবসার হাল ধরে তাঁর স্ত্রী রহিমা। রহিমার এই ব্যবসার সার্বিক সহযোগিতা করে তাঁর বড় মেয়ে কাজলের স্বামী বারই পাড়া গ্রামের আবেদ আলীর ছেলে সিন্দবাদ (২৭) ও ছেলে রাজন। এই ঘটনাটি দীর্ঘদিন ধরে মেনে নিতে পারেনি পাশের বাড়ির মালা নামের এক মহিলা। সে প্রায়ই বিভিন্ন ভাবে রহিমার এই ব্যবসায় বাঁধা দিয়ে আসছিল। 

এই বাঁধা দেওয়ার কারনে এক পর্যায়ে প্রচন্ড ক্ষিপ্ত হয়ে গত শনিবার অনুমান সকালে রহিমা তাঁর জামাই সিন্দবাদ এবং ছেলে রাজন এই ৩ জন মিলে হঠাৎ মালার উপর আক্রমণ চালিয়ে তাকে আহত করে। তারপর মালাকে শৈলকূপা হাসপাতালে ভর্তি করা হলে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে বাড়িতে ফেরত পাঠায়। সে এখন নিজ বাড়িতে অবস্থান করছে। আহত মালা জানান, এ বিষয়ে শৈলকূপা থানায় এস,আই আতিয়ার রহমানের নিকট একটি অভিযোগ দায়ের করলে অজ্ঞাত কারনে আতিয়ার নিরবতা পালন করে যাচ্ছে। এঘটনায় শৈলকূপা থানার এস,আই আতিয়ার রহমান অভিযোগের কথা স্বীকার করে জানান, ঘটনাটা তদন্ত করে উপযুক্ত ব্যবস্থ্যা নেওয়া হবে। 


আপনার মন্তব্য লিখুন...

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ন বেআইনি
Top