Projonmo Kantho logo
About Us | Contuct Us | Privacy Policy
ঢাকা, শনিবার, ২০ অক্টোবর ২০১৮ , সময়- ৫:০৫ অপরাহ্ন
Total Visitor: Projonmo Kantho Media Ltd.
শিরোনাম
সাজাপ্রাপ্ত আসামীদের নিয়ে ডা. কামালের সরকারবিরোধী ঐক্য ব্যর্থ হবে : বাণিজ্যমন্ত্রী সিরিয়ায় মার্কিন বিমান হামলায় শিশুসহ ৩২ জন বেসামরিক ব্যক্তি নিহত আগামী নির্বাচনের রোডম্যাপ ঘোষণা আসছে, জাতীয় পার্টির মহাসমাবেশ আজ আওয়ামী লীগের জনপ্রিয়তা আকাশচুম্বি, জনগণ হৃদয় দিয়ে ভালোবাসে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী | প্রজন্মকণ্ঠ মানুষের ভিড়ের ওপর দিয়ে চলে গেল ট্রেন, ৫০ জন নিহত | প্রজন্মকণ্ঠ তরুণী ও কম বয়সী রোহিঙ্গা মেয়েরা পাচারের শিকার হচ্ছে : জাতিসংঘ যারা বহিষ্কারের ঘোষণা দিয়েছেন তারা বিকল্পধারার কেউ নন : মাহী বি চৌধুরী  আমরা বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের স্বাধীনতা এখনও পুরোপুরি অর্জন করতে পারিনি : রাষ্ট্রপ্রতি সর্বত্র মানুষের মঙ্গলের সুযোগ করে দিতে শেখ হাসিনার সরকার কাজ করছে : অর্থমন্ত্রী  সংস্কৃতি অঙ্গনে কালো ছায়া নেমে এলো | প্রজন্মকণ্ঠ

হাফিজুর রহমান খান

বিদেশে বৈধভাবে বিনিয়োগের সুযোগ দিলে অর্থপাচার কমবে


অনলাইন ডেস্ক

আপডেট সময়: ১৯ ডিসেম্বর ২০১৭ ৪:৫২ পিএম:
বিদেশে বৈধভাবে বিনিয়োগের সুযোগ দিলে অর্থপাচার কমবে

বিদেশে বৈধভাবে বিনিয়োগের সুযোগ উন্মক্ত করে দিলে অর্থপাচার কমবে বলেও মনে করেন ইন্টারন্যাশনাল বিজনেজ ফোরাম অব বাংলাদেশের সভাপতি হাফিজুর রহমান খান।

তিনি আরও বলেন, আইনের ফাঁকফোকর গলে দেশ থেকে অর্থ পাচার হচ্ছে বিদেশে। বিদেশ থেকে ঋণ নেয়ার সুযোগের অপব্যবহার করেও অর্থপাচার করা হচ্ছে।

বিশেষজ্ঞরা বলেন, যার প্রতিফল দেখা যাচ্ছে পানামা ও প্যারাডাইস পেপার্সের মত দলিলে।

কাজেই অর্থপাচার বন্ধে, আইনের ফাঁকফোকর বন্ধ করার পরামর্শ দিয়েছেন তারা। আর বিদেশে বৈধভাবে বিনিয়োগের সুযোগ উন্মক্ত করে দিলে অর্থপাচার কমবে বলেও মনে করছেন ইন্টারন্যাশনাল বিজনেজ ফোরাম অব বাংলাদেশের সভাপতি হাফিজুর রহমান খান।

আন্ডার বা ওভার ইনভয়েসিং, কোম্পানির অফশোর শাখা খুলে অর্থ স্থানান্তর এবং বিদেশ থেকে ঋণ নিয়ে তা ফেরত দেয়ার নাম করে দেশ থেকে বিপুল পরিমাণ অর্থ পাচার করা হচ্ছে।

বিভিন্ন হিসেবে দেখা গেছে, ২০১৪ থেকে ২০১৪ সালের মধ্যেই গেছে সাড়ে ৬ হাজার কোটি ডলারের বেশি। সাম্প্রতিক সময়ে যে অর্থপাচারের প্রবণতা আরো বেড়েছে তার প্রমাণ পাওয়া যায় পানামা এবং প্যারাডাইস পেপার্সে বাংলাদেশিদের নামের তালিকা দেখে।

বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন, বাংলাদেশিদের বিদেশে বিনিয়োগের সুযোগ এখনো উন্মুক্ত করে দেয়া হয়নি। তাই বলে, তাদের বিদেশে বিনিয়োগ থেমে নেই। অর্থপাচার প্রতিরোধে দেশের আইনে বড় রকমের দুর্বলতা আছে এবং দুর্বলতা আছে পলিসিতেও।

হাফিজুর রহমান খান মনে করেন, এটি উন্মুক্ত করে দিলে অর্থপাচারের প্রবণতা কমবে, পাশাপাশি বৈধ পথে দেশে বৈদেশিক মুদ্রার প্রবাহও বাড়বে। সার্বিকভাবে অর্থপাচার প্রতিরোধে সরকারের আইন ও নীতি সংস্কারের পরামর্শ দিয়েছেন তারা।


আপনার মন্তব্য লিখুন...

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ন বেআইনি
Top