Projonmo Kantho logo
About Us | Contuct Us | Privacy Policy
ঢাকা, শুক্রবার, ১৪ ডিসেম্বর ২০১৮ , সময়- ৪:৫১ পূর্বাহ্ন
Total Visitor: Projonmo Kantho Media Ltd.
শিরোনাম
বাংলাদেশে ইংরেজি বর্ষবরণে হামলার ছক বানচাল : পরিকল্পনা ফাঁস  নির্বাচনের মাঠে জামাত, ৪৭ জনের প্রার্থীপদে আপত্তি আমেরিকার  টেলিভিশন বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে আ.লীগের নির্বাচনী প্রচার : এইচটি ইমাম নৌকার পক্ষে ভোট দেওয়ার ওয়াদা চাইলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা স্ট্রাইকিং ফোর্স হিসেবে মাঠে নামবে সেনাবাহিনী  ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলায় গণসংযোগে মির্জা ফখরুল  বিতর্কিত সাবেক রাষ্ট্রপতি এরশাদ ও তাঁর রাজনীতি  প্রমাণিত হলো বিএনপি সন্ত্রাসী দল : কাদের  বিবাহবার্ষিকীতে দোয়া চাইলেন ক্রিকেট সুপারস্টার সাকিব টুঙ্গিপাড়া থেকে নির্বাচনী প্রচারণা শুরু করলেন সভানেত্রী শেখ হাসিনা 

আজ আসামে অবৈধ বসবাসকারী তালিকা প্রকাশ হচ্ছে


অনলাইন ডেস্ক

আপডেট সময়: ৩১ ডিসেম্বর ২০১৭ ২:৫২ পিএম:
আজ আসামে অবৈধ বসবাসকারী তালিকা প্রকাশ হচ্ছে

ন্যাশনাল রেজিস্ট্রার অব সিটিজেনশিপ (এনআরসি) এর রিপোর্ট নিয়ে ভারতের আসাম রাজ্যে তীব্র উত্তেজনার বিরাজ করছে। এই রিপোর্ট অনুসারে অবৈধ বসবাসকারী ৩০ লাখ মানুষের তালিকা প্রকাশ হচ্ছে আজ। ফলে সংঘর্ষের পরিস্থিতি হতে পারে বলে আশঙ্কা তৈরি হয়েছে।

‘আউটলুক’ প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, নিরাপত্তা মজবুত করতে সেনাবাহিনীকে ‘স্ট্যান্ড বাই’ করা হয়েছে। বিশেষ দায়িত্ব দিয়ে অন্তত ৪৫ হাজার নিরাপত্তারক্ষীকে মোতায়েন করা হয়েছে।

এনআরসি রিপোর্ট অনুসারে, ৩০ লাখের বেশি অবৈধ বসবাসকারীদের বেশিরভাগ বাংলাদেশ (পূর্বতন পূর্ব পাকিস্তান) থেকে এসেছিলেন। পুরুষানুক্রমে তারা আসামে বসবাস করছেন। বিতাড়িত হয়ে এই ৩০ লাখ মানুষ কোথায় আশ্রয় নেবেন তার উল্লেখ নেই ‘এনআরসি’ রিপোর্টে। ফলে বিতর্কের মুখে আসাম সরকার।

১৯৫১ সালে এনআরসি রিপোর্ট প্রথমবার প্রকাশ করা হয়। এই রিপোর্ট অনুসারে পরবর্তী সময়ে দেশের নির্বাচন প্রক্রিয়ায় নাম নথিভুক্ত করা হয়েছিল। দেশভাগের পর তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তান (পরে বাংলাদেশ) থেকে আসামে বহু মানুষ চলে এসেছিলেন। এনআরসি রিপোর্ট এমনই অন্তত ৩০ লাখ মানুষকে অবৈধ বসবাসকারী হিসেবে চিহ্নিত হয়েছেন। যাদের অনেকেই সংখ্যালঘু মুসলিম।

জানা যাচ্ছে, ‘অবৈধ বসবাসকারী’  চিহ্নিতদের বাংলাদেশে পাঠানো হতে পারে।  অন্যদিকে বাংলাদেশের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল জানিয়েছেন, আসাম থেকে বিতাড়িতদের গ্রহণ করার বিষয়ে ভারত সরকারের সঙ্গে কোনও আলোচনা হয়নি।

মুখ্যমন্ত্রী সর্বানন্দ সোনোওয়াল বলেছেন, এনআরসি রিপোর্টকে কার্যকরী করতে কোনও কসুর করবে না আসাম রাজ্য সরকার।

রাজ্য পুলিশের ডিজি মুকুল সহায় বলেছেন, শান্তি বজায় রাখতে পুলিশ কড়া ভূমিকা নেবে।

আসামের কট্টরপন্থী সংগঠনের দাবি, রিপোর্ট অনুসারে অবৈধ রাজ্যবাসীদের অবিলম্বে বিতাড়ন করতে হবে। ‘অসমিয়া’ ছাড়া আর কোনও কিছু বিবেচ্য করা হবে না। অল আসাম স্টুডেন্ট ইউনিয়ন (আসু) জানিয়েছে, কোনওরকম নরম মনোভাব দেখানো হলেই তীব্র আন্দোলন শুরু হবে।


আপনার মন্তব্য লিখুন...

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ন বেআইনি
Top