Projonmo Kantho logo
About Us | Contuct Us | Privacy Policy
ঢাকা, রবিবার, ২১ অক্টোবর ২০১৮ , সময়- ১১:০৫ অপরাহ্ন
Total Visitor: Projonmo Kantho Media Ltd.
শিরোনাম
জিম্বাবুয়ের বিরুদ্ধে ২৮ রানে জয় পেলো বাংলাদেশ  সাম্প্রতিক সৌদি আরব সফর : প্রধানমন্ত্রীর সংবাদ সম্মেলন, আগামীকাল গাজীপুরের বঙ্গবন্ধু হাইটেক সিটির জন্য চালু হচ্ছে ঢাকা-কালিয়াকৈর ট্রেন সার্ভিস শিগগিরই ছোট হচ্ছে মন্ত্রিসভা আপনার কথায় অস্ট্রেলিয়ায় থাকা আমার মেয়েও লজ্জিত : মঈনুলকে ফোনে মির্জা ফখরুল  আমরা আর দুর্নীতিতে বিশ্ব চ্যাম্পিয়ান হতে চাইনা, সমৃদ্ধ উন্নত বাংলাদেশ চাই : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী  সিলেটে সমাবেশ করার অনুমতি পেয়েছে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট  ইমরুলের সেঞ্চুরিতে ৮ উইকেট হারিয়ে টাইগারদের সংগ্রহ ২৭১ রান শুরু হয়েছে দশম জাতীয় সংসদের ২৩তম অধিবেশন তরুণ প্রজন্মের জন্য প্রযুক্তিনির্ভর দেশ গড়ার ঘোষণা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট শঙ্কার মুখে, সাকিবদের সতর্কবার্তা


অনলাইন ডেষ্ক

আপডেট সময়: ১০ জানুয়ারী ২০১৮ ৫:৫৯ পিএম:
আন্তর্জাতিক ক্রিকেট শঙ্কার মুখে, সাকিবদের সতর্কবার্তা

বাংলাদেশের প্রথম ক্রিকেটার হিসেবে মেরিলিবোন ক্রিকেট ক্লাবের (এমসিসি) বার্ষিক সভায় নিমন্ত্রণ পেয়েছিলেন সাকিব আল হাসান। সিডনিতে মঙ্গলবার এবং বুধবার সেই সভায় যোগ দিয়ে এমসিসি কমিটিকে বাংলাদেশ ক্রিকেটের অশনিসংকেতের কথাই শুনিয়েছেন সাকিব। আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে পাওয়া আয়ে ইংল্যান্ডের জনি বেয়ারস্টো আর সাকিবের বিপরীতমুখী অবস্থান তুলে ধরে এমসিসি এই বলে সতর্ক করেছে, আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ক্রিকেটারদের যে বেতনের বৈষম্য, তা কমানো না গেলে দেশের হয়ে খেলার আগ্রহ হারাবে ক্রিকেটাররা। স্পট ফিক্সিংয়ের মতো দুর্নীতিও কমানো যাবে না।

এই কমিটিতে সাবেকদের মধ্যে রিকি পন্টিং, ব্রেন্ডন ম্যাককালাম, কুমার সাঙ্গাকারারাও আছেন। সাকিব সেখানে বলেছেন, বাংলাদেশের অসংখ্য তরুণ ক্রিকেটার টেস্ট ক্রিকেটকে আর তাঁদের লক্ষ্য হিসেবে দেখেন না। টেস্টের তুলনায় টি-টোয়েন্টি থেকে বেশি আয়ের সুযোগ থাকাই এর কারণ।

জাতীয় দল ছেড়ে ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেটের প্রতি ঝুঁকে পড়ার আগ্রহ বাড়ছে ক্রিকেটারদের মধ্যে। এমসিসি কমিটির সদস্য এবং অস্ট্রেলিয়ার সাবেক অধিনায়ক পন্টিং এ ব্যাপারে বলেন, ইংলিশ কিংবা অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটারদের আপনি জাতীয় দল ছেড়ে আইপিএল খেলতে দেখবেন না। এর কারণ তারা (বোর্ড) খেলোয়াড়দের সন্তোষজনক পারিতোষিক দিয়ে থাকে। তাই বছরের বেশির ভাগ সময় ধরে টেস্টে সেরা খেলোয়াড় পেতে ইংল্যান্ড কিংবা অস্ট্রেলিয়ার কাছাকাছি চুক্তি নিশ্চিত করা উচিত। এতে তাঁদের দেশের প্রতিনিধিত্ব করার আগ্রহে ভাটা পড়বে না।

সাকিবের কথার সূত্র ধরে পন্টিংয়ের ভাষ্য, ‘সাকিব উদাহরণ হিসেবে বাংলাদেশের ক্রিকেটে অনেক দিন ধরে চলে আসা কিছু সমস্যা আর ঘটনার কথা বলেছে। সে এও বলেছে, টাকা (সারা বিশ্বে ক্রিকেট থেকে যে পরিমাণ আয় হয়, এর অংশ) কোথায় যায় সেটা আইসিসিকে নিয়ন্ত্রণ করতে হবে। সে জানে বিশাল অঙ্কের টাকা হয়তো সঠিক জায়গাতেই যাচ্ছে, কিন্তু খেলোয়াড়দের কাছে যেভাবে যাওয়া উচিত, সেভাবে নয়।’

এই ধারা চলতে থাকলে বাংলাদেশের মতো টেস্ট ক্রিকেটে দীর্ঘ ঐতিহ্য বা অবকাঠামো নেই, এমন দেশগুলোতে বড় দৈর্ঘ্যের ক্রিকেট আরও অগুরুত্বপূর্ণ হয়ে পড়বে। কেবল গৌরবের কথা বলে আর তরুণ ক্রিকেটারদের টেস্ট ক্রিকেটে টানা যাবে না। অন্তত এখনকার বাস্তবতায়। ২০ ওভারের ক্রিকেট তরুণদের কাছে আরও বেশি গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠলে, শুধু টেস্ট নয়, আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের গুরুত্ব অনেক দেশের খেলোয়াড়দের কাছে কমে যাবে বলে শঙ্কার সুর উঠেছে এমসিসির সভায়। ওয়েস্ট ইন্ডিজের মতো দেশের ক্রিকেটাররা এর ভালো উদাহরণ।

সাকিবের আহ্বানের প্রতি তাই সায় দিয়েছেন পন্টিং, ‘আমরা দেখতে চাই, টাকা যেখানে যাওয়া উচিত, সেই খেলোয়াড়দের পর্যন্ত পৌঁছে দেওয়ার ব্যাপারে আরও সম্পৃক্ত হবে আইসিসি। এটাও বুঝতে হবে, ঘরোয়া টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টগুলো খেলোয়াড়দের দেশের প্রতিনিধিত্ব না করার ব্যাপারটি আরও সহজ করে দিচ্ছে, সেটা আরও ভালো বেতন ভাতা দেওয়ার মধ্য দিয়ে। আইপিএল এ ক্ষেত্রে সম্ভবত সবচেয়ে বড় ভূমিকা রেখে অন্যান্য দেশের ঘরোয়া টুর্নামেন্টকেও প্রভাবিত করছে। এ ধরনের টুর্নামেন্ট খেলার জন্য আপনি কিন্তু খেলোয়াড়দের দোষ দিতে পারবেন না।’

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে দেশভেদে খেলোয়াড়দের বেতন ভাতার এন্তার পার্থক্য রয়েছে। অস্ট্রেলিয়ার অধিনায়ক স্টিভেন স্মিথ গত বছর আয় করেছেন প্রায় ১৫ লাখ ডলার। অথচ এই একই সময়ে জিম্বাবুয়ের অধিনায়ক গ্রায়েম ক্রেমারের আয় ৮৬ হাজার ডলার। সাকিব অবশ্য ক্রেমারের চেয়ে বেশি আয় করেছেন। গত বছর ১ লাখ ৪০ হাজার ডলার আয় করেছেন দেশসেরা এ ক্রিকেটার। টেস্ট খেলুড়ে ১০টি দেশের মধ্যে আয়ে সাকিব কিন্তু শুধু ক্রেমারের চেয়েই এগিয়ে।


আপনার মন্তব্য লিখুন...

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ন বেআইনি
Top