Projonmo Kantho logo
About Us | Contuct Us | Privacy Policy
ঢাকা, বুধবার, ২৪ জানুয়ারী ২০১৮ , সময়- ১১:২৯ পূর্বাহ্ন
Total Visitor:
শিরোনাম
তিন মাস নয়, ছয় মাসের জন্য স্থগিত ডিএনসিসি নির্বাচন তালেবানের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে পাকিস্তানের প্রতি যু্ক্তরাষ্ট্রের আহ্বান ঢাবির অবরুদ্ধ উপাচার্যকে উদ্ধার করল ছাত্রলীগ ট্রাম্পের সিদ্ধান্ত ফিলিস্তিনিদের জন্য হুমকি স্বরূপ শীর্ষস্থান ধরে রাখলো স্বাগতিক বাংলাদেশ বাংলাদেশে নিবন্ধিত রোহিঙ্গার সংখ্যা ১০ লাখ ৩০ হাজার বেগম জিয়ার বিরুদ্ধে মামলা প্রসঙ্গে পাল্টাপাল্টি অভিযোগ  ৬০০০ রানের মাইলস্টোন ছুঁলেন তামিম ইকবাল কে হচ্ছেন দেশের ২১তম রাষ্ট্রপতি ?  বাংলাদেশি নারীকে শ্লীলতাহানির অভিযোগে সেই বিএসএফ সদস্য আটক

সুপ্রিম কোর্টের অ্যাডভোকেট হওয়ার যোগ্যতা


অনলাইন ডেস্ক

আপডেট সময়: ১৪ জানুয়ারী ২০১৮ ১০:৪৭ এএম:
সুপ্রিম কোর্টের অ্যাডভোকেট হওয়ার যোগ্যতা

1. বার কাউনসিল পরীক্ষার মাধ্যমে যে কোন বার এসোসিয়েশনে অ্যাডভোকেট (সাধারণ অ্যাডভোকেটের তালিকাভুক্তিকরণ) হিসাবে তালিকাভুক্তহতে হবে।
2. নিম্নোক্ত যে কোন একটি যোগ্যতা থাকতে হবে :-

বাংলাদেশের কোন নিম্ন আদালতে কমপক্ষে ২ বছর প্র্যাকটিস করতে হবে; অথবা,
B. আইন বিষয়ে স্নাতক ডিগ্রীএবং অ্যাডভোকেট হিসাবে বিদেশের কোন আদালতে সরকারের অফিসিয়াল গেজেটে নির্দেশিত পন্থায় প্র্যাকটিস করেছেন; অথবা,
C. যুক্তরাজ্যের বারে ব্যারিস্টার হিসাবে Call পেয়েছেন অথবা কোন স্বীকৃত বিশ্ববিদ্যালয় থেকেLL.M এ 2nd class (50%mark) পেয়েছেন এবং সুপ্রীম কোর্টের একজন সিনিয়র আইনজীবীর চেম্বারে কমপক্ষে ২ বছর কাছ করেছেন; অথবা,
D. বিচার বিভাগীয় অফিসার হিসাবে অন্ততঃ দশ বছর কাজ করেছেন। এরূপ অফিসারকে লিখিত পরীক্ষায় অংশগ্রণেরআবশ্যকতা নেই।
দ্বিতীয় পর্যায়ের শর্তাবলীঃ

কোন অ্যাডভোকেট যিনি উপরিউক্ত শর্তাবলী পূরন করেছেন তাকে নির্দেশিত পন্থায় হাইকোর্ট বিভাগে আইন চর্চা করার অনুমতি চেয়ে আবেদন জানাতে হবে। আবেদন পত্র বার কাউনসিলে জমা দিতে হবে এবং উক্ত আবেদনপত্রে নিম্নোক্ত সংযুক্তিথাকবেঃ
A. সংশ্লিষ্ট বার এসোসিয়েশন হতে একটি সনদ এই মর্মে যে, উক্ত অ্যাডভোকেট তার বার এসোসিয়েশনের নিয়মিতসদস্য এবং আইন চর্চাকরেছেন ২ বছর , অথবা , যুক্তারাজ্যের বারেতাকে ব্যারিস্টার হিসাবে Call করেছে এই মর্মে একটি সনদ, অথবা কোন স্বীকৃত বিশ্ববিদ্যালয় হতে LL.M এ উচ্চতর দ্বিতীয় বিভাগ অর্জন করেছে; এবং
B. কোর্টের একজন সিনিয়র অ্যাডভোকেটের চেম্বারে কমপক্ষে দুই বছর কাজ করেছেন; এবং
C. দেওয়ানী বা ফৌজদারী বা উভয় মামলা যা নিয়ে উক্ত অ্যাডভোকেট সংশ্লিষ্ট আদালতে উপস্থিত হয়েছে এরূপ ২৫টি মামলার তালিকা; এবং
D. হাইকোর্টের অনুমোদন ফি ৫,০০০ টাকা প্রদানের রশিদ কিংবা ব্যাংক ড্রাফট; এবং
E. উক্ত অ্যাডভোকেটের ১ কপি পাসপোর্ট সাইজের ছবি।
2. প্রত্যেক আবেদনকারীকে Bangladesh Legal Paractitioners and Bar Council Rules, 1972 (65(2)) অনুযায়ী লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষায় অংশগ্রহণপূর্বক পাশ করতে হবে।


আপনার মন্তব্য লিখুন...

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ন বেআইনি
Top