Projonmo Kantho logo
About Us | Contuct Us | Privacy Policy
ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৪ মে ২০১৮ , সময়- ৪:১১ অপরাহ্ন
Total Visitor: Projonmo Kantho Media Ltd.
শিরোনাম
বাজেটে রোহিঙ্গাদের জন্য দুই হাজার কোটি টাকা বরাদ্দ রাখা হচ্ছে বাতিল হতে পারে ট্রাম্প - কিম জন ঊনের সঙ্গে শীর্ষ বৈঠক রোহিঙ্গাদের সর্বাত্মক সহযোগিতা করছে বাংলাদেশ গাজীপুর সিটি করপোরেশন : মেয়রপ্রার্থীদের ঘরোয়া নির্বাচনী প্রচারণা অব্যাহত অশ্রুসজল ইউনিসেফের শুভেচ্ছাদূত প্রিয়াঙ্কা, ‘খোদা হাফেজ’ বলে ছাড়লেন রোহিঙ্গা শিবির  মোদি-হাসিনা-মমতার মিলন মেলা ঘিরে বিশ্বভারতীতে সাজ সাজ রব গরীব ও মেধাবী শিক্ষার্থীদের মাঝে সঠিকভাবে ছাত্র বৃত্তি বিতরণের নির্দেশ বিচারপতি এবং কূটনীতিকদের সম্মানে প্রধানমন্ত্রীর ইফতার তালিকাভুক্ত শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী ১৪১ জন, ঢাকায় রয়েছেন ৪৪ জন অনেক মাদক সম্রাট সংসদেই আছে, আইন করে ফাঁসি দিন : মুহম্মদ এরশাদ 

ডিসেম্বরের মধ্যে দেশে শতভাগ বিদ্যুৎ: প্রতিমন্ত্রীর ঘোষণা


অনলাইন ডেস্ক

আপডেট সময়: ২৬ জানুয়ারী ২০১৮ ৮:৪০ পিএম:
ডিসেম্বরের মধ্যে দেশে শতভাগ বিদ্যুৎ: প্রতিমন্ত্রীর ঘোষণা

২০১৮ সালের ডিসেম্বরের মধ্যে সারাদেশে শতভাগ বিদ্যুতায়ন এবং তিন বছরের মধ্যে নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহ করা হবে। এমনটাই জানিয়েছেন বাংলাদেশের বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজসম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বিপু। গতকাল (বৃহস্পতিবার) জাতীয় সংসদ অধিবেশনে প্রশ্নোত্তর পর্বে সদস্যদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ তথ্য জানান।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসার পর এ পর্যন্ত ৮ হাজার ৮১৯ মেগাওয়াট ক্ষমতার ৮৮টি বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মাণ করা হয়েছে। এছাড়া ভারত থেকে আমদানি করা ৬৬০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ জাতীয় গ্রিডে যুক্ত হয়েছে। সরকারের দুই মেয়াদে বিদ্যুতের উৎপাদন ক্ষমতা ৩ গুণেরও বেশি বৃদ্ধি পেয়ে ১৬ হাজার ৪৬ মেগাওয়াটে দাঁড়িয়েছে। উৎপাদন সক্ষমতার বিপরীতে বর্তমানে দেশে বিদ্যুতের চাহিদা ৮ হাজার থেকে সাড়ে ৮ হাজার মেগাওয়াট। কিন্তু সঞ্চালন ও বিতরণ ব্যবস্থার দুর্বলতার কারণে মানুষ ঠিকমতো বিদ্যুৎ পাচ্ছে না বলেও স্বীকার করেন তিনি।

এ প্রসঙ্গে জ্বালানি বিশেষজ্ঞ ড. শামসুল আলম বলেন, সরকারের বিদ্যুৎখাত উন্নয়ন পরিকল্পনার যেসব দলিল আছে, তার সঙ্গে বর্তমান ব্যবস্থা সামঞ্জস্যপূর্ণ নয়। বিদ্যুতের মহাপরিকল্পনা, পঞ্চবার্ষিকী পরিকল্পনা মাফিক এ খাত উন্নয়ন হয়নি। উৎপাদন সক্ষমতা সত্বেও বিতরণ ব্যবস্থার দুর্বলতার জন্য সরবরাহ করা যাচ্ছে না, সরকারের এমন দাবিও যথার্থ নয়। চাহিদার সঙ্গে বিদ্যুতের উৎপাদন সক্ষমতা অর্জিত হয়নি। চাহিদা অনুযায়ী যেটুকু উৎপাদন সক্ষমতা তৈরি হয়েছে, সে অনুযায়ী জ্বালানি সরবরাহ নিশ্চিত করা যায়নি। 

ফলে ২০০৮ সালে যে সক্ষমতা ছিল, তা থেকে সার্বিক অবস্থার খুব একটা উন্নতি হয়নি। ডিজেল, ফার্নেস অয়েল কিংবা এলএনজি; তেলভিত্তিক বিদ্যুৎ উৎপাদন করে সাশ্রয়ী মূল্যে শতভাগ বিদ্যুৎ সরবরাহ নিশ্চিত করা সম্ভব নয় বলেই মনে করেন তিনি।

সংসদে প্রতিমন্ত্রী আরও জানান, বর্তমান সরকার ৫ বছরে ৪৩ হাজার কিলোমিটার বিদ্যুৎ লাইন নির্মাণ করে ৪৪ লাখ নতুন গ্রাহককে বিদ্যুৎ সুবিধা দিয়েছে। এখন দেশের ৮৫ শতাংশ মানুষ বিদ্যুৎ সুবিধা পান। সঞ্চালন ও বিতরণ ব্যবস্থা উন্নয়নের কাজ চলছে। ডিসেম্বরের মধ্যে শতভাগ এলাকাকে বিদ্যুতের আওতায় আনা সম্ভব হবে। চলতি বছর আরও ৩ হাজার এবং আগামী বছর আরও ৫ হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ জাতীয় গ্রিডে যুক্ত হবে বলেও জানান নসরুল হামিদ বিপু।


আপনার মন্তব্য লিখুন...

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ন বেআইনি
Top