Projonmo Kantho logo
About Us | Contuct Us | Privacy Policy
ঢাকা, শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০১৮ , সময়- ৪:৩৪ অপরাহ্ন
Total Visitor: Projonmo Kantho Media Ltd.
শিরোনাম
প্রশ্ন ফাঁস : সারাদেশে ৫২ মামলা, গ্রেপ্তার ১৫৩ জন  অনুশীলনে ফিরেছেন সাকিব আল হাসান | প্রজন্মকন্ঠ নৌকা জনগণের মার্কা : প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশকে  উন্নয়নশীল দেশ হিসেবে ঘোষণা  আসছে | প্রজন্মকন্ঠ সমাবেশের অনুমতি পায় নি বিএনপি | প্রজন্মকন্ঠ আবারো ১০ টাকা কেজি দরে চাল বিক্রি করবে সরকার  | প্রজন্মকন্ঠ বেগম জিয়ার জামিন আবেদনের শুনানি রোববার | প্রজন্মকন্ঠ দুর্নীতি সূচকে এগিয়েছে বাংলাদেশ | প্রজন্মকন্ঠ সাকিব-অপুর বিচ্ছেদ চুড়ান্ত | প্রজন্মকন্ঠ স্বাস্থ্যসেবা আজ মানুষের দোরগোড়া : শেখ হাসিনা

পূর্বাচলে হবে ১৪২ তলা ভবন


অনলাইন ডেষ্ক

আপডেট সময়: ৬ ফেব্রুয়ারী ২০১৮ ২:৩৮ পিএম:
পূর্বাচলে হবে ১৪২ তলা ভবন

রাজধানীর পূর্বাচলে নির্মিত হবে ১৪২ তলা ‘আইকনিক টাওয়ার’। বাংলাদেশ ও জাপানের প্রতিষ্ঠান পাওয়ারপ্যাক-কাজিমা কনসোর্টিয়ামের তত্ত্বাবধানে নির্মিত হবে বিশ্বমানের সুবিধাসম্পন্ন এ ভবন। পাবলিক প্রাইভেট পার্টনারশিপে গড়ে উঠবে দেশের সর্ববৃহৎ স্বপ্নের এ টাওয়ার।

রাজউক সূত্রে জানা যায়, ১৪২ তলাসম্পন্ন আইকনিক টাওয়ার নির্মাণের জন্য ১০০ একর জায়গা নির্ধারণ করা হয়েছে। বেসরকারিভাবে নির্মিত এই ভবনে থাকবে বিশ্বমানের বাসস্থানসহ প্রশাসনিক ও বাণিজ্যিক কাজে ব্যবহারের জায়গা। পূর্বাচল নিউ টাউন প্রজেক্টের ১৯ নম্বর সেক্টরে প্রস্তাবিত সেন্ট্রাল বিজনেস ডিসট্রিক্টের আওতায় গড়ে উঠবে এই ভবন।

জানা যায়, গত বছর ১৭ জুলাই এ ভবন নির্মাণে জমি ক্রয়ের দরপত্র আহ্বান করে রাজউক। এরপর ৭ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠিত হয় নিলাম। নিলামে অংশগ্রহণ করে দেশের অন্যতম বৃহৎ নির্মাতা প্রতিষ্ঠান শিকদার গ্রুপের আওতাধীন পাওয়ারপ্যাক হোল্ডিংস লিমিটেড, জাপানের স্বনামধন্য নির্মাতা প্রতিষ্ঠান কাজিমা করপোরেশন এবং যুক্তরাষ্ট্রের নির্মাতা প্রতিষ্ঠান স্ট্র্যাটেজিক গ্লোবাল ম্যানেজমেন্ট ইনকরপোরেট। নিলামে পাওয়ারপ্যাক হোল্ডিংস ও কাজিমা করপোরেশনের সমন্বয়ে গঠিত পাওয়ারপ্যাক কাজিমা কনসোর্টিয়াম জমির সর্বোচ্চ মূল্য আহ্বান করে। এখন কনসোর্টিয়ামের প্রাযুক্তিক সক্ষমতা মূল্যায়ন পর্যায় চলমান রয়েছে।

কাজিমা কনস্ট্রাকশন ও শিকদার গ্রুপ সূত্রে জানা যায়, জাপানের দ্বিতীয় বৃহত্তম এবং বিশ্বের ১৯তম বৃহৎ নির্মাতা প্রতিষ্ঠান হিসেবে ১০০ বছর ধরে সুনামের সঙ্গে কাজ করে যাচ্ছে কাজিমা কনস্ট্রাকশন। এদিকে ১৯৪৯ সালে প্রতিষ্ঠিত শিকদার গ্রুপ ৬৮ বছর ধরে সুনামের সঙ্গে বহুতল ভবন নির্মাণের সঙ্গে জড়িত। গত শতাব্দীর সত্তর ও আশির দশকে এই প্রতিষ্ঠানের নির্মাণকাজের স্বকীয়তা ও নৈপুণ্যে একাধিকবার বিশ্বব্যাংকের কাছে মিলেছে পরিচিতি। বর্তমানে পিপিপির আওতায় অসংখ্য কাজে সংযুক্ত রয়েছে শিকদার গ্রুপ।

প্রকল্পে আহ্বান করা দরপত্রে দেখা যায়, নির্মাতা প্রতিষ্ঠানের কমপক্ষে ৩ দশমিক ৫ মিলিয়ন বর্গফুট ‘নির্মাণ এলাকা’ এবং কমপক্ষে ২০০ ফুট উচ্চতাসম্পন্ন ভবন নির্মাণের অভিজ্ঞতা থাকতে হবে। যেখানে কাজিমা কনস্ট্রাকশন ২০৫ মিটার উচ্চতাসম্পন্ন গ্রান্ড টোকিও নর্থ ও সাউথ টাওয়ার নির্মাণ করেছে। এর নির্মাণ এলাকার ব্যাপ্তি ছিল ৩ দশমিক ৭ মিলিয়ন বর্গফুট। এ ছাড়া নিলামে নির্মাতা প্রতিষ্ঠানের সম্পদের পরিমাণ কমপক্ষে ১৫০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার এবং ফান্ড সংগ্রহের সক্ষমতা ৫০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার থাকতে হবে বলে উল্লেখ করা যায়। সে অনুযায়ী দেখা যায়, পাওয়ারপ্যাক-কাজিমা কনসোর্টিয়ামের সম্পদ রয়েছে ১৭ দশমিক ১৩ বিলিয়ন মার্কিন ডলার। ফান্ড সংগ্রহের সক্ষমতা পাওয়ারপ্যাকের রয়েছে ২২৯ মিলিয়ন মার্কিন ডলার এবং কাজিমা করপোরেশনের রয়েছে ২ দশমিক ৭ বিলিয়ন মার্কিন ডলারেরও বেশি। রাজধানীর পূর্বাচলে প্রস্তাবিত আইকনিক টাওয়ার শুধু দেশ নয়, দক্ষিণ এশিয়ার জন্য গর্বের। তাই সুষ্ঠুভাবে এ প্রকল্পের বাস্তবায়ন প্রত্যাশা নগরবাসীর।


আপনার মন্তব্য লিখুন...

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ন বেআইনি
Top