Projonmo Kantho logo
About Us | Contuct Us | Privacy Policy
ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৪ মে ২০১৮ , সময়- ৪:০৬ অপরাহ্ন
Total Visitor: Projonmo Kantho Media Ltd.
শিরোনাম
বাজেটে রোহিঙ্গাদের জন্য দুই হাজার কোটি টাকা বরাদ্দ রাখা হচ্ছে বাতিল হতে পারে ট্রাম্প - কিম জন ঊনের সঙ্গে শীর্ষ বৈঠক রোহিঙ্গাদের সর্বাত্মক সহযোগিতা করছে বাংলাদেশ গাজীপুর সিটি করপোরেশন : মেয়রপ্রার্থীদের ঘরোয়া নির্বাচনী প্রচারণা অব্যাহত অশ্রুসজল ইউনিসেফের শুভেচ্ছাদূত প্রিয়াঙ্কা, ‘খোদা হাফেজ’ বলে ছাড়লেন রোহিঙ্গা শিবির  মোদি-হাসিনা-মমতার মিলন মেলা ঘিরে বিশ্বভারতীতে সাজ সাজ রব গরীব ও মেধাবী শিক্ষার্থীদের মাঝে সঠিকভাবে ছাত্র বৃত্তি বিতরণের নির্দেশ বিচারপতি এবং কূটনীতিকদের সম্মানে প্রধানমন্ত্রীর ইফতার তালিকাভুক্ত শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী ১৪১ জন, ঢাকায় রয়েছেন ৪৪ জন অনেক মাদক সম্রাট সংসদেই আছে, আইন করে ফাঁসি দিন : মুহম্মদ এরশাদ 

খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে সারাদেশে তিনদিনের টানা কর্মসূচি


অনলাইন ডেষ্ক

আপডেট সময়: ১০ ফেব্রুয়ারী ২০১৮ ৬:১১ পিএম:
খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে সারাদেশে তিনদিনের টানা কর্মসূচি

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে প্রতিহিংসামূলক বিচারের রায়ের প্রতিবাদে ও তার মুক্তির দাবিতে ঢাকাসহ সারাদেশে সোমবার থেকে বুধবার তিনদিনের টানা নতুন কর্মসূচি ঘোষণা করেছে বিএনপি।

শনিবার বিকালে বিএনপি নয়াপল্টন কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে দলের সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী এই কর্মসূচি ঘোষণা করেন।

কর্মসূচির মধ্যে আছে, সোমবার মানববন্ধন, মঙ্গলবার অবস্থান এবং বুধবার সকাল ৯টা থেকে ৫টা পর্যন্ত ৮ ঘন্টার অনশন।

অবস্থান কর্মসূচি হবে এক ঘন্টা। জেলাসমূহ তারা সুবিধামত সময়ে তা ঠিক করবে এবং ঢাকার অবস্থান স্থান পরে জানানো হবে বলে জানান রিজভী।

বৃহস্পতিবার খালেদা জিয়াকে কারাগারে নেবার পর শুক্রবার ও শনিবার দুইদিন সারাদেশে বিক্ষোভ কর্মসূচি পালনের পর বিএনপির পক্ষ থেকে এই নতুন কর্মসূচি ঘোষণা করা হলো।

রিজভী বলেন, দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া ও তার পরিবারের ওপর ক্রমাগত স্টিমরোলার চলেছে। রাষ্ট্রযন্ত্রের যাতাকল এই পরিবারের উপরে চাপিয়ে দেয়া হয়েছে। তার জ্যেষ্ঠ পুত্রকে আক্রান্ত করা হয়েছে, নির্যাতন করা হয়েছে। দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান আজকে আহত অবস্থায় লন্ডনে।

ছোট ছেলের লাশ দেশনেত্রীকে কোলে নিয়ে বসে থাকতে হয়েছে নিরব নিথরে। বেদনায় তার বুক খান খান হয়ে গেছে। তারপরও জনগনের অধিকার ফিরে পাবার আন্দোলন থেকে তাকে বিচ্যুত করা যায়নি। সরকার মনে করেছে তাকে বন্দি করে দেশনেত্রীর মনোবলকে দূর্বল করবেন, তার বিরুদ্ধে আরো ষড়যন্ত্র করবেন, এটা পারবেন না। জনগনের নেত্রী তার জনগনের অধিকার আদায়ের জন্য যেখানে থাকুন সেখান থেকে অটুট মনোবল নিয়ে নেতৃত্ব দিয়ে যাবেন অব্যাহতভাবে। সেজন্য আমরা এই নতুন কর্মসূচি ঘোষণা করছি।

শনিবারের বিক্ষোভ কর্মসূচি থেকে মহানগর দক্ষিনের সহসভাপতি নবী উল্লাহ নবী, যুব দলের সাবেক নেতা মিজানুর রহমান জিমি, অলিউদ্দিনসহ ৫০ জন, নারায়নগঞ্জে ১৩জন, নেত্রকোনায় ৫জন, চট্টগ্রাম উত্তর ও গাইবান্ধায় একজন, পিরোজপুরে তিনজন, টাঙ্গাইলে ৬ জন, ফেনীতে ২ জন, কুমিল্লায় ১১ জন, নাটোরে ১৫ জন, ভোলায় একজন, নড়াইলে ১৬ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে জানান রিজভী।

গত ৩০ জানুয়ারি থেকে এই পর্যন্ত ৪ হাজার ২ শতের অধিক নেতা কর্মী গ্রেপ্তার হয়েছে দাবি করে তাদের নিঃশর্ত মুক্তির দাবি জানান বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব।

সংবাদ সম্মেলনে অন্যান্যের মধ্যে চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য আতাউর রহমান ঢালী, আবদুল হালিম ডোনার, কেন্দ্রীয় নেতা অধ্যাপক রফিকুল কবির, তাইফুল ইসলাম টিপু, বেলাল আহমেদ, আমিনুল ইসলাম প্রমুখ নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।


আপনার মন্তব্য লিখুন...

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ন বেআইনি
Top