Projonmo Kantho logo
About Us | Contuct Us | Privacy Policy
ঢাকা, সোমবার, ২২ অক্টোবর ২০১৮ , সময়- ১:১৩ পূর্বাহ্ন
Total Visitor: Projonmo Kantho Media Ltd.
শিরোনাম
এরশাদের বিরুদ্ধে করা মঞ্জুর হত্যা মামলার প্রতিবেদন দাখিল, আগামী ১৮ নভেম্বর নির্বাচন সামনে রেখে শিগগিরই সারাদেশে অবৈধ অস্ত্রের বিরুদ্ধে সাঁড়াশি অভিযান শুরু জিম্বাবুয়ের বিরুদ্ধে ২৮ রানে জয় পেলো বাংলাদেশ  সাম্প্রতিক সৌদি আরব সফর : প্রধানমন্ত্রীর সংবাদ সম্মেলন, আগামীকাল গাজীপুরের বঙ্গবন্ধু হাইটেক সিটির জন্য চালু হচ্ছে ঢাকা-কালিয়াকৈর ট্রেন সার্ভিস শিগগিরই ছোট হচ্ছে মন্ত্রিসভা আপনার কথায় অস্ট্রেলিয়ায় থাকা আমার মেয়েও লজ্জিত : মঈনুলকে ফোনে মির্জা ফখরুল  আমরা আর দুর্নীতিতে বিশ্ব চ্যাম্পিয়ান হতে চাইনা, সমৃদ্ধ উন্নত বাংলাদেশ চাই : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী  সিলেটে সমাবেশ করার অনুমতি পেয়েছে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট  ইমরুলের সেঞ্চুরিতে ৮ উইকেট হারিয়ে টাইগারদের সংগ্রহ ২৭১ রান

খালেদার পক্ষে আদালতে আজ আপিল হচ্ছে না


অনলাইন ডেষ্ক

আপডেট সময়: ১১ ফেব্রুয়ারী ২০১৮ ১২:২৪ পিএম:
খালেদার পক্ষে আদালতে আজ আপিল হচ্ছে না

দুর্নীতির দায়ে পাঁচ বছরের কারাদণ্ডপ্রাপ্ত বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে আরও কয়েকদিন কারাগারে থাকতে হচ্ছে। কারণ রায়ের সার্টিফাইড কপি না পাওয়ায় এই সাজার বিরুদ্ধে আজ রবিবার উচ্চ আদালতে আপিল ও জামিনের আবেদন করতে পারছে না খালেদার আইনজীবীরা।

গত বৃহস্পতিবার রায় ঘোষণার দিনই রবিবারের মধ্যে উচ্চ আদালতে আপিল করার কথা জানিয়েছিলেন খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা। একইসঙ্গে ওইদিনই মামলার সার্টিফাইড কপি পেতে খালেদার আইনজীবীরা আদালতে আবেদন করেন।

এ ব্যাপারে ওইদিন তার আইনজীবী আবদুর রেজ্জাক খান সাংবাদিকদেরকে বলেছিলেন, ‘রায়ের সত্যায়িত অনুলিপি পাওয়ার জন্য লিখিত আবেদন করেছি। রায়ের অনুলিপি পেলে আগামী রবিবার আমরা এ মামলার আপিল করব। আমরা বিচারকের সইসহ রায়ের একটি ফটোকপি চেয়েছি। সেটা পেলেও আমরা আপিল করব।’

ফলে খালেদা জিয়াকে আরও কয়েকদিন কারাগারেই বন্দী থাকতে হবে। সেটা কত দিন তা অবশ্য জানা যায়নি।

১৯৯১ সালে ক্ষমতায় আসার পর এতিমদের কল্যাণে বিদেশ থেকে আসা দুই কোটি ১০ লাখ ৭১ হাজার ৬৭১ টাকা অস্তিত্বহীন ট্রাস্টের নামে বরাদ্দ করার অভিযোগে করা মামলায় গত ৮ ফেব্রুয়ারি খালেদা জিয়াকে দু্র্নীতির মামলায় পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দেয় বিশেষ জজ আদালত-৫ এর বিচারক আখতারুজ্জামান।

আর রায় ঘোষণার পর পর সাবেক প্রধানমন্ত্রীকে নেয়া হয় বকশিবাজারে পুরনো কারাগারে। সেখানে বন্দীদের সন্তানদের জন্য ডে কেয়ার সেন্টারের দুটি কক্ষ আগে থেকেই তৈরি করা ছিল।

এরই দিন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক সচিবালয়ে জানান, রায়ের বিরুদ্ধে ৬০ দিনের মধ্যে আপিল করে জামিন আবেদন করতে পারবেন বিএনপি নেত্রী। আর ততদিন পর্যন্ত তাকে কারাগারেই থাকতে হবে। আপিল করার আগে রায়ের সার্টিফাইড কপি লাগবে বলেও জানান তিনি।

তবে খালেদা জিয়া আইনজীবী জাকির হোসেন ভুঁইয়া শনিবার রাতে জানান, রায়ের সার্টিফাইড কপি এখনও তারা পাননি, ফটোকপিও মেলেনি।

তাহলে রবিবার আপলি আপিল করা হচ্ছে না? এমন প্রশ্নে জাকির বলেন, ‘আগামীকালকাল (রবিবার) প্রশ্নই উঠে না, আরও দুই-তিন দিন লাগবে।’

আইনজীবীরা জানান, সার্টিফাইড কপি রবিবার যোগাড় হলে কোন কোন যুক্তিতে আবেদন করা হবে, সেটি সুনির্দিষ্ট হতে হবে। এরই মধ্যে কিছু কিছু যুক্তি দাঁড় করিয়েছেন আইনজীবীরা। তবে পূর্ণাঙ্গ রায়টি ৬৩২ পৃষ্ঠার। এটির খুঁটিনাটি পর্যালোচনা করতে হবে। এ জন্যই কিছু সময় লাগবে।

শনিবার বিকালে কারাগারে বন্দী খালেদা জিয়ার সঙ্গে আপিলের বিষয়টি নিয়ে এক ঘণ্টারও বেশি সময় কথা বলেন তার জ্যেষ্ঠ আইনজীবী মওদুদ আহমদ, খন্দকার মাহবুব হোসেন, জমির উদ্দিন সরকার, আবদুর রেজ্জাক খান ও এ জে মোহাম্মদ আলী। তবে আপিলে কী বলা হবে, সে বিষয়ে কিছু জানাননি তারা।

এর আগে রায়ের বিষয়ে শনিবার দুপুরে সংবাদ সম্মেলন করেন মওদুদ আহমেদসহ বিএনপিপন্থী আইনজীবীরা। সেখানে কোন কোন যুক্তিতে আপিল করা হবে-এমন প্রশ্নে মওদুদ আহমদ বলেন, ‘আমরা এখন বলব না, কোন গ্রাউন্ডে আবেদন করব।


আপনার মন্তব্য লিখুন...

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ন বেআইনি
Top