Projonmo Kantho logo
About Us | Contuct Us | Privacy Policy
ঢাকা, বুধবার, ১৫ আগস্ট ২০১৮ , সময়- ১২:৩৭ অপরাহ্ন
Total Visitor: Projonmo Kantho Media Ltd.
শিরোনাম
রাসেল, রাসেল তুমি কোথায় ? বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানিয়েছেন স্পিকার আজ শোক দিবস : বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা টুঙ্গিপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে আজ শ্রদ্ধা জানাবেন প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু হত্যা ঘটনার লোমহর্ষক বর্ণনা  বিশ্বের বসবাসের অনুপযুক্ত শহরগুলোর তালিকায় দ্বিতীয় ঢাকা ১৫ আগস্টের রাত বাংলাদেশের ইতিহাসে সবচেয়ে কলঙ্কজনক রাত : আইনমন্ত্রী এশিয়া কাপের জন্য ঘোষিত ৩১ সদস্যের প্রাথমিক দল জনগণ খুশি থাকলেই আমাদের উন্নয়ন কর্মকাণ্ড সার্থক হবে : ওবায়দুল কাদের মায়া চৌধুরীর ১৩ বছর সাজার রায় বহাল থাকবে কি না, সিদ্ধান্ত ৭ অক্টোবর

জেলখানা আরাম-আয়েশের জায়গা না, জেল তো জেলই


অনলাইন ডেষ্ক

আপডেট সময়: ১১ ফেব্রুয়ারী ২০১৮ ৩:৩৩ পিএম:
জেলখানা আরাম-আয়েশের জায়গা না, জেল তো জেলই

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে কোনো ধরনের অসম্মান বা অমর্যাদা করা হচ্ছে না জানিয়ে  সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, সাবেক প্রধানমন্ত্রী হিসেবে তিনি সব সুযোগ সুবিধা পাবেন। তবে জেলখানা আরাম আয়েশের জায়গা না, জেল তো জেলই। কিন্তু জেল কোড অনুযায়ী সব সুযোগ সুবিধাই তিনি পাবেন। আজ রবিবার সচিবালয়ে নিজ দফতরে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন তিনি।

গত বৃহস্পতিবার জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় খালেদা জিয়ার পাঁচ বছরের কারাদণ্ড হওয়ার পর আজ খালেদা জিয়াকে কারাগারে প্রথম শ্রেণির মর্যাদা দেওয়ার জন্য ঢাকা বিশেষ জজ আদালত ৫ এ আবেদন দাখিল করা হয়। পরে শুনানি শেষে আদালত খালেদা জিয়াকে জেলকোড অনুযায়ী প্রথম শ্রেণির (ডিভিশন) বন্দীর মর্যাদা দিতে কারা কর্তৃপক্ষকে ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ দেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, জেল কোডে গৃহপরিচারিকা অথবা ব্যক্তিগত সহকারী রাখার কোনও বিধান নাই। ওয়ান ইলেভেনের সময় আমাদের নেত্রীও জেলে ছিলেন, উনিও গৃহপরিচারিকা রাখেননি। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমানও জেলে ছিলেন, তিনিও এ সুবিধা পাননি। এসি (এয়ার কন্ডিশন) ও জেলকোডে নেই। মোট কথা জেল কোনও আরাম আয়েশের জায়গা নয়।

এ ছাড়াও বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের অভিযোগের বিষয়ে সেতুমন্ত্রী বলেন, 'যেখানে উনাকে রাখা হয়েছে সেটি উনার থাকার উপযোগী করেই তৈরি করা হয়েছে। ভবনটি পরিত্যক্ত হলেও একজন ভিআইপি আসামিকে রাখার মতো করেই ডেকোরেশন করা হয়েছে। তাছাড়া ভবনটি খুব বেশি দিনের পরিত্যক্ত নয়।’

এর আগে এ বিষয়ে মির্জা ফখরুল বলেছিলেন, খালেদা জিয়াকে স্যাঁতসেঁতে ও পরিত্যক্ত জায়গায় একা রাখা হয়েছে। সাবেক প্রধানমন্ত্রীকে একজন সাধারণ কয়েদির মতো রাখা হয়েছে। যে খাবার দেওয়া হয়েছে, তা মুখে দেওয়ার মতো নয়।


আপনার মন্তব্য লিখুন...

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ন বেআইনি
Top