Projonmo Kantho logo
About Us | Contuct Us | Privacy Policy
ঢাকা, শনিবার, ২৬ মে ২০১৮ , সময়- ৩:৫৬ অপরাহ্ন
Total Visitor: Projonmo Kantho Media Ltd.
শিরোনাম
দেশজুড়ে গ্রেফতার বাণিজ্যের পাশাপাশি হত্যা-বাণিজ্য চলছে : রিজভী এই সম্মানসূচক ডিগ্রি বাংলাদেশের জনগণের প্রতি উৎসর্গ করছি : প্রধানমন্ত্রী আ'লীগের টার্গেট চার সিটিতে নৌকার বিজয়  ডি.লিট উপাধিতে ভূষিত শেখ হাসিনা ইসলাম ধর্ম প্রচারে ও প্রসারে শেখ হাসিনার ভূমিকা  সুনামগঞ্জে এ বছরসহ চার বছরে বজ্রপাতে নিহত হয়েছেন ৯০ জন ফুটবলের চীনে জন্ম, ইংল্যান্ড বড় করেছে আর ব্রাজিল দিয়েছে পরিপূর্ণতা কক্সবাজারের তালিকাভুক্ত ইয়াবা গডফাদারা সবাই প্রভাবশালী, নামের তালিকা মাদকবিরোধী অভিযানে ফের ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ১০ স্বাস্থ্যসেবায় বিশ্বে পাকিস্তান ও ভারতের চেয়ে এগিয়ে রয়েছে বাংলাদেশ       

ইন্টারনেটের গতি কমানোর সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার


অনলাইন ডেষ্ক

আপডেট সময়: ১২ ফেব্রুয়ারী ২০১৮ ১২:৪৮ পিএম:
ইন্টারনেটের গতি কমানোর সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার

নির্দেশনা জারির একদিন পর ইন্টারনেটের গতি কমানোর সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার করেছে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি)। আজ সকালে বিটিআরসি সচিব মো. সরওয়ার আলম এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, আপাতত সরকারি নির্দেশনা প্রত্যাহার করা হয়েছে। পরবর্তী নির্দেশনা না আসা পর্যন্ত ইন্টারনেট সেবা স্বাভাবিক থাকবে।

সোমবার সকাল আটটা পাঁচ মিনিটে বাংলাদেশে ইন্টারনেট সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানগুলোর সংগঠন আইএসপিএবিএ-এর কাছে বার্তা পাঠিয়ে ইন্টারনেটের গতি কমানোর সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার করে নেয়ার কথা জানানো হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করে আইএসপিএবিএ-এর সভাপতি আমিনুল হাকিম বলেন, সকাল আটটা পাঁচ মিনিটে আমরা বিটিআরসির কাছে থেকে ইন্টারনেটের গতি স্বাভাবিক করার জন্য বার্তা পেয়েছি। ইন্টারন্যাশনাল ইন্টারনেট গেটওয়ে (আইআইজি) থেকে ইন্টারনেট ব্যান্ডউইথ সরবরাহ স্বাভাবিক করা হয়েছে। ইন্টারনেটের গতি এখন স্বাভাবিক আছে। দেশজুড়ে স্বাভাবিক গতির ইন্টারনেট পরিষেবা পাওয়া যাচ্ছে’।

দেশজুড়ে চলমান এসএসসি পরীক্ষার প্রশ্ন ফাঁসের পর ফেসবুকসহ ইন্টারনেটের গতি কমিয়ে দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয় শিক্ষা মন্ত্রণালয়। সরকারের উচ্চ পর্যায়ের প্রতিনিধিদের সঙ্গে পরামর্শ শেষে এই সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন করতে বলা হয় বিটিআরসিকে। এই বিষয়টি ভালো চোখে দেখছেন তা ডাক, টেলিযোগাযেোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার।

মোস্তাফা জব্বার বলেন, ‘পরীক্ষায় প্রশ্ন ফাঁস হচ্ছে। এটা ঠেকানোর দায়িত্ব শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের। সেজন্য ইন্টারনেট বন্ধ করে দেয়া কিংবা এর গতি কমানোর কোনো মানেই নেই। আমি ফেসবুক কিংবা ইন্টারনেট বন্ধের পক্ষে কোনো দিনেই ছিলাম না। কিন্তু যেহেতু এটা সরকারের তরফ থেকে সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে তাই বিটিআরসিকে তাদের নির্দেশনা অনুযায়ী ইন্টারনেটের গতি কমানো সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছিল। যদিও সরকার এখন সেই সিদ্ধান্ত থেকে সরে এসেছে। এটা ভালো সিদ্ধান্ত।’

মোস্তাফা জব্বার বলেন, ‘আমি শিক্ষা মন্ত্রণালয়কে বলবো, আপনারা প্রশ্ন ফাঁসের সঙ্গে জড়িত আসল অপরাধীদের খুঁজে বের করুন। এজন্য ইন্টারনেট বন্ধ করে সাধারণ মানুষদের ভোগান্তিতে ফেলার কোনো মানে নেই।’

এর আগে গতকাল রবিবার নির্দেশনা জারির পর পরীক্ষামূলকভাবে রাত ১০টা থেকে সাড়ে ১০টা পর্যন্ত ইন্টানেট বন্ধ রাখা হয়। এছাড়া আজ সকাল ৮টা থেকে ১০টা পর্যন্ত মোবাইলে ইন্টারনেট সেবা ধীর গতি থাকে। 

এসএসসি পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁস রোধে পরীক্ষা শুরুর দুই ঘণ্টা আগে থেকে মোট আড়াই ঘণ্টা সময় ইন্টারনেটে ধীর গতি রাখার জন্য গতকাল সিদ্ধান্ত নিয়েছিল সরকার। নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিটিআরসি থেকে দেশের সব আইআইজিকে (ইন্টারন্যাশনাল ইন্টারনেট গেটওয়ে) এই নির্দেশ পাঠানো হয়েছিল। আজ অন্য এক নিদের্শনায় ইন্টারনেটের গতি ধীর করার সিদ্ধান্ত থেকে সরে এসেছে বিটিআরসি।


আপনার মন্তব্য লিখুন...

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ন বেআইনি
Top