Projonmo Kantho logo
About Us | Contuct Us | Privacy Policy
ঢাকা, শুক্রবার, ২২ জুন ২০১৮ , সময়- ৯:০০ অপরাহ্ন
Total Visitor: Projonmo Kantho Media Ltd.
শিরোনাম
মুসল্লিরা জায়নামাজ ও ছাতা ছাড়া অন্য কিছু নিতে পারবেন না : ডিএমপি কমিশনার দেশবাসীকে ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী রাজধানীতে বিভিন্ন মসজিদ ও ঈদগাহে জামাতের সময়সূচী  ব্রাজিলের সাপোর্টার প্রধানমন্ত্রী, একই দলের সমর্থক জয় মুসলিম উম্মাহর ঐক্যে ফাটল সৃষ্টি করতেই ইসরাইলের সৃষ্টি নূর চৌধুরী'কে দেশে ফেরাতে কানাডার আদালতে মামলা করেছে সরকার নির্বাচনী কৌশলগত কারনেই জামায়াতের সঙ্গ ছাড়ছে বিএনপি বিশ্বকাপ উদ্বোধনী ম্যাচে ৫-০ ব্যবধানে জয় পেল স্বাগতিক রাশিয়া বাগেরহাট ৩ আসনের উপ-নির্বাচনে নির্বাচিত এমপি'র শপথগ্রহণ ঘরমুখো মানুষ, চরম দুর্ভোগের মুখে পড়েছেন ট্রেনের যাত্রীরা

প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে শাহজালাল মাজার এলাকায় বিশেষ উন্নয়ন পরিকল্পনা | প্রজন্মকণ্ঠ   


নিজস্ব প্রতিবেদক, প্রজন্মকণ্ঠ

আপডেট সময়: ১৬ ফেব্রুয়ারী ২০১৮ ১০:৫২ পিএম:
প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে শাহজালাল মাজার এলাকায় বিশেষ উন্নয়ন পরিকল্পনা | প্রজন্মকণ্ঠ   

সিলেটে হযরত শাহজালাল (র.) মাজার সংশ্লিষ্ট এলাকায় বিশেষ উন্নয়ন কর্মপরিকল্পনা গ্রহণ ও বাস্তবায়নে আগ্রহ দেখিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ লক্ষ্যে শুক্রবার সকালে দরগাহ এলাকা পরিদর্শন করেছেন জাতিসংঘ বাংলাদেশ মিশনের সাবেক স্থায়ী প্রতিনিধি ও রাষ্ট্রদূত বিশিষ্ট অর্থ ও কূটনীতিবিদ ড. এ কে আব্দুল মোমেন।

এ সময় মাজার প্রাঙ্গণসহ আশপাশ এলাকা ঘুরে দেখেন তিনি। পরে মাজারের অফিস কক্ষে এ বিষয়ে কী কী কর্মপরিকল্পনা গ্রহণ করা যায় সে বিষয়ে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাসহ মাজারের খাদেমদের নিয়ে সেখানে এক মতবিনিময় সভায় মিলিত হন।

সভায় মাজার এলাকার সৌন্দর্য বর্ধন, মহিলা ইবাদতখানা সম্প্রসারণ, অজুখানার উন্নয়ন, টয়লেট জোনকে আরো বৃদ্ধি করে অর্ধশতাধিক টয়লেট ও বাথরুমে উন্নিতকরণ ও মাজার এলাকায় প্রাচীর নির্মাণসহ সার্বিক উন্নয়নের ব্যাপারে বিভিন্ন কর্মপরিকল্পনার উপস্থাপন করা হয়। দ্রুতসময়ের মধ্যে এসকল প্রকল্পের ডিজাইন তৈরি করার জন্য স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরকে দায়িত্ব প্রদান করা হয়। শাহজালাল (র.) এর মাজার এলাকায় এসকল উন্নয়নে প্রাথমিকভাবে ব্যয় ধরা হয়েছে প্রায় ১০ কোটি টাকা। প্রয়োজনানুসারে এ বরাদ্দ আরো বৃদ্ধি হতে পারে।

এ ব্যাপারে ড. এ.কে আব্দুল মোমেন বলেন- ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতের বিশেষ আগ্রহে এ প্রকল্প হাতে নেওয়া হয়েছে। তারা চান ওলিকুল শিরোমনি হযরত শাহজালাল (র.) ও শাহপরাণ (র.) মাজার এলাকা আরো দৃষ্টিনন্দন করে গড়ে তোলা হোক। এখানে প্রতিদিন আগত হাজার হাজার লোকের প্রয়োজনীয় সুবিধা বৃদ্ধি করাসহ বর্তমান ও ভবিষ্যতের কথা ভাবনায় রেখে একটি বাস্তবমুখি উন্নয়ন পরিকল্পনা গ্রহণ করা। এতে আমাদের সকলের শ্রদ্ধা ও ভক্তিপূর্ণ এ স্থানগুলো সকলের কাছে যেমনি আকর্ষনীয় হবে, তেমনি এ স্থানে আগত পুরুষ ও মহিলা অতিথিদের সুযোগ-সুবিধা বৃদ্ধি পাবে। তিনি এ কর্মপরিকল্পনা দ্রুতসময়ের মধ্যে বাস্তবায়ন হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

এসময় উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী পি.কে চৌধুরী, নির্বাহী প্রকৌশলী এ.এস.এম মহসিন, সিনিয়র সহকারি প্রকৌশলী মো. এনায়েত কবির, উপজেলা প্রকৌশলী সায়ফুল আজম, দরগাহ-এ হযরত শাহজালাল (র.) এর সারেকওম, মোতাওয়াল্লী ফতেউল্লাহ আল আমান, সামুন আহমদ চৌধুরী, বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থা (বাসস)’র সিলেট ব্যুারো প্রধান মকসুদ আহমদ মকসুদ, সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগ নেতা জাবেদ সিরাজ প্রমুখ।


আপনার মন্তব্য লিখুন...

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ন বেআইনি
Top