Projonmo Kantho logo
About Us | Contuct Us | Privacy Policy
ঢাকা, রবিবার, ২৪ জুন ২০১৮ , সময়- ৪:৪৫ অপরাহ্ন
Total Visitor: Projonmo Kantho Media Ltd.
শিরোনাম
মুসল্লিরা জায়নামাজ ও ছাতা ছাড়া অন্য কিছু নিতে পারবেন না : ডিএমপি কমিশনার দেশবাসীকে ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী রাজধানীতে বিভিন্ন মসজিদ ও ঈদগাহে জামাতের সময়সূচী  ব্রাজিলের সাপোর্টার প্রধানমন্ত্রী, একই দলের সমর্থক জয় মুসলিম উম্মাহর ঐক্যে ফাটল সৃষ্টি করতেই ইসরাইলের সৃষ্টি নূর চৌধুরী'কে দেশে ফেরাতে কানাডার আদালতে মামলা করেছে সরকার নির্বাচনী কৌশলগত কারনেই জামায়াতের সঙ্গ ছাড়ছে বিএনপি বিশ্বকাপ উদ্বোধনী ম্যাচে ৫-০ ব্যবধানে জয় পেল স্বাগতিক রাশিয়া বাগেরহাট ৩ আসনের উপ-নির্বাচনে নির্বাচিত এমপি'র শপথগ্রহণ ঘরমুখো মানুষ, চরম দুর্ভোগের মুখে পড়েছেন ট্রেনের যাত্রীরা

নৌকা জনগণের মার্কা : প্রধানমন্ত্রী


নিজস্ব প্রতিবেদক, প্রজন্মকণ্ঠ

আপডেট সময়: ২২ ফেব্রুয়ারী ২০১৮ ৯:৪৭ পিএম:
নৌকা জনগণের মার্কা : প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আগামী নির্বাচনে নৌকার জন্য ভোট প্রত্যাশা করে বলেছেন, একমাত্র আওয়ামী লীগই পারে দেশের উন্নতি করতে। প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘নৌকা সেই নূহ নবীর আমল থেকেই বিপদে রক্ষা করেছে। নূহ নবীর নৌকা। এই নৌকাই স্বাধীনতা এনে দিয়েছে। এই নৌকা উন্নয়ন দিয়েছে।

 আমি আপনাদের এইটুকু বলবো নৌকা আপনাদের মার্কা। নৌকা জনগণের মার্কা, এই নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে এদেশের মানুষ মাতৃভাষা বাংলায় কথা বলার সুযোগ পেয়েছে।’ প্রধানমন্ত্রী আজ বিকেলে স্থানীয় সরকারি হাই মাদ্রাস মাঠে স্থানীয় আওয়ামী আওয়ামী লীগ আয়োজিত বিশাল জনভায় প্রদত্ত ভাষণে একথা বলেন। 

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জনতার উদ্দেশ্যে বলেন, ‘আপনাদের কাছে আমি আবেদন জানাই আগামীতে নির্বাচন। সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন হবে, জাতীয় সংসদ নির্বাচন হবে ডিসেম্বরে। সেই নির্বাচন এবং স্থানীয় সরকার নির্বাচন এই প্রত্যেকটা নির্বাচন মার্কা দিয়ে নির্বাচন হবে। মার্কাটা হচ্ছে নৌকা। সেই নৌকা মার্কায় আমি আপনাদের কাছে ভোট চাই। যে উন্নয়ন করে যাচ্ছি, তা যেন অব্যাহত থাকে। 

মানুষ যেন খেয়ে পড়ে সুখে থাকে। মানুষ যেন শান্তিতে থাকে তাঁর জন্য আপনারা নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে আপনাদের সেবা করার সুযোগ আমাদের দেন।’ তিনি এ সময় সমবেত জনতার উদ্দেশ্যে নৌকায় ভোট প্রদানের জন্য ওয়াদা চাইলে জনতা দুই হাত তুলে সম্মতি জানায়। বিএনপি’র নেত্রীর দুর্নীতির প্রতি ইঙ্গিত করে তিনি বলেন, ‘এদের মাথায় রয়েছে পচন। নেতাই যদি এতিমের টাকা মেরে খায় তবে তার সাঙ্গ-পাঙ্গরা কি খেতে পারে, আপনারাই বিচার করে দেখেন।’ 

জনসভায় সভাপতিত্ব করেন রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি এবং রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের সাবেক মেয়র এইচ এম খায়রুজ্জামান লিটন। বক্তৃতা করেন, আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য ও স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ, জাহাঙ্গীর কবির নানক ও ডা. দিপু মনি এবং সাংগঠনিক সম্পাদক খালিদ মাহমুদ চৌধুরীসহ স্থানীয় সংসদ সদস্য এবং আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ। দেশব্যাপী প্রাক নির্বাচনী সফরের অংশ হিসেবে সিলেট এবং বরিশালের পরই প্রধানমন্ত্রী এলেন পদ্মা বিধৌত বরেন্দ্র ভূমির রাজশাহীতে। 

সাত বছর আগে এই ঐতিহাসিক মাদ্রাসা ময়দানে দলীয় জনসভায় ভাষণ দেন আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা। এরপর ২০১৩ সালের ৫ সেপ্টেম্বর রাজশাহীর বাগমারায় এবং ২০১৪ সালের ৮ ফেব্রুয়ারি চারঘাটে আওয়ামী লীগের জনসভায় যোগ দেন তিনি। 

সর্বশেষ ২০১৭ সালের ১৪ সেপ্টেম্বর রাজশাহীর পবায় দলীয় জনসভায় উপস্থিত হয়েছিলেন শেখ হাসিনা। তিনি অনুষ্ঠান স্থল থেকে ২১টি উন্নয়ন প্রকল্প উদ্বোধন এবং ১২টি প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন।

 


আপনার মন্তব্য লিখুন...

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ন বেআইনি
Top