Projonmo Kantho logo
About Us | Contuct Us | Privacy Policy
ঢাকা, সোমবার, ২৩ জুলাই ২০১৮ , সময়- ১১:২০ অপরাহ্ন
Total Visitor: Projonmo Kantho Media Ltd.
শিরোনাম
বিভ্রান্ত করতে বিএনপি নেতাকর্মী ও শয়তানের মধ্যে তফাৎ নাই : যুবলীগ চেয়ারম্যান এত বেশী কেন, বাংলাদেশে মোবাইল ইন্টারনেটের দাম ? মামলার তারিখ এলেই খালেদা জিয়া অসুস্থ হয়ে পড়েন : শেখ হাসিনা মামলার তারিখ এলেই খালেদা জিয়া অসুস্থ হয়ে পড়েন : শেখ হাসিনা মামলার তারিখ এলেই খালেদা জিয়া অসুস্থ হয়ে পড়েন : শেখ হাসিনা তালিকাচ্যুতির পাইপ লাইনে আরও ২৫ কোম্পানি বেগম খালেদা জিয়ার জামিন না মঞ্জুর, ২৬ জুলাইয়ের মধ্যে নিষ্পত্তির নির্দেশ কুষ্টিয়ার ঘটনায় যারাই জড়িত থাকুক, খুঁজে বের করা হবে : ওবায়দুল কাদের লাল ফিতা, সাদা ফিতার দৌরাত্ম্য বন্ধ সরকারি কর্মকর্তাদের প্রতি আহ্বান : প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশের প্রথম প্রধানমন্ত্রী তাজউদ্দীন আহমদ

পয়লা বৈশাখের আগেই আকাশছোঁয়া চাহিদা, চড়া দাম ইলিশের


নিজস্ব প্রতিবেদক, প্রজন্মকণ্ঠ

আপডেট সময়: ১ এপ্রিল ২০১৮ ৯:৫৫ পিএম:
পয়লা বৈশাখের আগেই আকাশছোঁয়া চাহিদা, চড়া দাম ইলিশের

পয়লা বৈশাখের একপক্ষ বাকি থাকতেই বাড়তি চাহিদা ইলিশের। আর সেই সুযোগেই রাজধানী ঢাকায় চড়া দামে বিকোচ্ছে ইলিশ। এক সপ্তাহের ব্যবধানে ছোট-বড় সব ধরনের ইলিশের দাম কেজি প্রতি ২০০ থেকে ৩০০ টাকা বেড়েছে। রবিবার রাজধানীর মিরপুর ৬ নম্বর বাজার, রূপনগর বাজার ও মহাখালি কাঁচা বাজার ঘুরে এই চিত্র দেখা গিয়েছে। বিক্রেতারা বলছেন, ক্রেতারা আগে থেকেই পয়লা বৈশাখের জন্য ইলিশ কিনে রাখছেন। তাই বাড়তি চাহিদা তৈরি হওয়ায় ইলিশের বাজার দিন দিন চড়ছে।

রাজধানীর মিরপুরের ৬ নম্বর বাজারে দেখা যায়, ১ কেজি ওজনের ইলিশ ১২০০ টাকা থেকে ১৪০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। তবে এই আকারের মাছ কম দেখা গিয়েছে। ওই বাজারে ৮০০ থেকে ৯০০ গ্রাম ওজনের ইলিশ বিক্রি হচ্ছে প্রতি কেজি ১১০০ টাকায়। ৬০০ থেকে ৮০০ গ্রাম ওজনের ইলিশ বিক্রি হচ্ছে প্রতি কেজি ৭০০ থেকে ৮০০ টাকায়। আর ৪০০ থেকে ৫০০ গ্রাম ওজনের ইলিশ বিক্রি হচ্ছে প্রতি কেজি ৬০০ টাকায়। ওই বাজারের ইলিশ বিক্রেতা দাদন মিঞা জানান, প্রতি কেজি ইলিশ মাছের দাম গত সপ্তাহের তুলনায় কমপক্ষে ২০০-৩০০ টাকা বেড়ে গিয়েছে। বাজারে অন্য মাছের তুলনায় ইলিশের জোগান একেবারেই কম দেখা যায় মহাখালি কাঁচা বাজারে।

উল্লেখ্য, প্রতি বছর ১ নভেম্বর থেকে ৩০ জুন পর্যন্ত খোকা ইলিশ (লম্বায় ৯ ইঞ্চির চেয়ে ছোট) আহরণ, ক্রয়-বিক্রয় নিষিদ্ধ থাকে। এর অন্যথা হলে দোষী সাব্যস্তের এক থেকে দুই বছর কারাদণ্ড বা পাঁচ হাজার টাকার জরিমানার বিধান রয়েছে। উল্লেখ্য, জানুয়ারি মাসেই দীর্ঘ সাড়ে পাঁচ বছর পর ভারতে ইলিশ রপ্তানি থেকে নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়। মৎস্যজীবীদের জাল এবং নৌকা দিয়ে স্বনির্ভর করে তোলার চেষ্টা করা হচ্ছে। 

আবার ইলিশের উৎপাদন বৃদ্ধির জন্য নানা উদ্যোগও গ্রহণ করা হচ্ছে। যার মধ্যে উল্লেখযোগ্য হল জাটকা নিধন বন্ধ করা, বিচরণ ক্ষেত্রগুলির সংরক্ষণ, নদীতে ড্রেজিংয়ের ব্যবস্থা করা প্রভৃতি।” উল্লেখ্য, হাসিনা সরকারের তরফে গৃহীত একাধিক পদক্ষেপের ফলে বাংলাদেশের ইলিশ জিআই তকমা অর্জন করেছে।


আপনার মন্তব্য লিখুন...

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ন বেআইনি
Top