Projonmo Kantho logo
About Us | Contuct Us | Privacy Policy
ঢাকা, শুক্রবার, ১৯ অক্টোবর ২০১৮ , সময়- ১:১৪ অপরাহ্ন
Total Visitor: Projonmo Kantho Media Ltd.
শিরোনাম
বিকল্প ধারার তিন শীর্ষ নেতাকে বহিস্কার করে নতুন কমিটি গঠন শহীদ মিনারে আইয়ুব বাচ্চুকে ভক্ত, অনুরাগীসহ সর্বস্তরের মানুষের শেষ শ্রদ্ধা বাংলাদেশের উন্নয়নে অংশীদার হতে চান সৌদি যুবরাজ | প্রজন্মকণ্ঠ ঐক্যফ্রন্ট বিজয়ী হলে পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী কে হবেন ? প্রশ্ন কূটনীতিকদের   দেশের বৃহত্তর আন্দোলনের স্বার্থে জাতীয় ঐক্যকে শক্তিশালী করা হবে : নজরুল ইসলাম জেদ্দায় বাংলাদেশ কনস্যুলেট ভবনের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করলেন প্রধানমন্ত্রী জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি : হাইকোর্টের আদেশের বিরুদ্ধে খালেদা জিয়ার আপিল আইয়ুব বাচ্চুর মৃত্যুতে শোক জানিয়েছে ক্রিকেট বোর্ড | প্রজন্মকণ্ঠ সৌদি ঘাতক টিমের ১ সদস্য গাড়িচাপায় নিহত : তুর্কি দৈনিক 'ইয়ানি শাফাক' নভেম্বর মাসের প্রথম সপ্তাহে তফসিল ঘোষণা হতে পারে : ইসি সচিব হেলালুদ্দীন

খুলনা ও গাজীপুর সিটি : কৌশলগত কারণে মেয়র প্রার্থী দিচ্ছে না জাতীয় পার্টি


নিজস্ব প্রতিবেদক, প্রজন্মকণ্ঠ

আপডেট সময়: ৫ এপ্রিল ২০১৮ ৬:৩৩ পিএম:
খুলনা ও গাজীপুর সিটি : কৌশলগত কারণে মেয়র প্রার্থী দিচ্ছে না জাতীয় পার্টি

আসন্ন খুলনা ও গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে কৌশলগত কারণে মেয়র প্রার্থী দিচ্ছে না জাতীয় পার্টি (জাপা)। পার্টির তৃণমূলকে শক্তিশালী রাখতে মেয়রের পরে ওয়ার্ড কমিশনার ও সংসদ সদস্য পদকে গুরুত্ব দিচ্ছে জাপা। তাই সিটি নির্বাচনে জাপার ভোট যাবে আওয়ামী লীগের মেয়রের পক্ষে। বিনিময়ে জাপা চায় তাদের কমিশনার প্রার্থীর পক্ষে আ.লীগের ভোট এবং জাতীয় নির্বাচনে অধিকসংখ্যক সংসদীয় আসন। তবে কোনো সিটিতে আওয়ামী লীগের বিরোধী কোনো ব্যক্তি বা দল নির্বাচনে না এলে সে ক্ষেত্রে প্রার্থী দিতে পারে জাপা।

জাপার নির্ভরযোগ্য একটি সূত্র জানায়, গাজীপুরে মেয়র পদে মনোনয়ন প্রত্যাশী এক আওয়ামী লীগ নেতা জাপার মহাসমাবেশ সফল করতে মোটা অংকের অর্থ ও জনবল দিয়ে সহযোগিতা করেছেন। বিনিময়ে ওই সিটির জাপা নেতাকর্মীরা সমর্থন দেবেন আওয়ামী মেয়র প্রার্থীকেই। এ সিটিতে জাপার মেয়র প্রার্থী ছিলেন পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য এডভোকেট মাহাবুব আলম মামুন।

অন্যদিকে পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটি খুলনা সিটিতে জাপার প্রার্থী হিসেবে প্রচারণায় থাকতে এস এম মুশফিকুর রহমানকে সমর্থন দিয়েছিলেন। কিন্তু সন্ত্রাস ও নারী কেলেঙ্কারিসহ নানা অভিযোগ থাকায় খুলনা জেলা ও মহানগর নেতারা তাকে মনোনয়ন দিতে নিষেধ করেন। তারা কেন্দ্রকে জানান, মানুষের কাছে এখন জাপার জনপ্রিয়তা বেড়েছে তাই ক্লিন ইমেজ ছাড়া কাউকে প্রার্থী দেয়া যাবে না। মেয়র প্রার্থী হিসেবে খুলনা জেলা জাপার সভাপতি শফিকুল ইসলাম মধুকে সমর্থন দেন তারা। তবে মধু চান একাদশ জাতীয় নির্বাচনে সংসদ সদস্য হিসেবে প্রার্থী হতে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে গাজীপুর জাপার নেতা এডভোকেট মাহাবুব আলম মামুন বলেন, এখানে আমার ভালো জনসমর্থন রয়েছে। কিন্তু মেয়র হিসেবে নির্বাচনে অংশগ্রহণ নির্ভর করছে পার্টির কেন্দ্রের সিদ্ধান্তের ওপর। তাদের নির্দেশ পেলে নির্বাচনে অংশ নেব, না পেলেও কোনো আক্ষেপ নেই। পার্টি ভালো থাকলেই আমি নেতাকর্মী ও জনগণের জন্য কাজ করতে পারব। আর খুলনা জেলা জাপার সভাপতি শফিকুল ইসলাম মধু বলেন, প্রস্তুতি আছে, তবে কেন্দ্র থেকে এখনো কোনো চূড়ান্ত সবুজ সংকেত পাইনি। আর পার্টির সিদ্ধান্তই আমার সিদ্ধান্ত।

এদিকে দুই সিটিতে মেয়র প্রার্থী না দেয়ার বিষয়ে এখনো কোনো ঘোষণা দেয়নি জাপা। যদিও পার্টির বেশ কয়েকজন সিনিয়র নেতা ‘অব দ্য রেকর্ড’ তা নিশ্চিত করেছেন। এ বিষয়ে জাপা মহাসচিব এ বি এম রুহুল আমীন হাওলাদার বলেন, আমাদের চূড়ান্ত প্রস্তুতি রয়েছে, একাধিক যোগ্য প্রার্থীও আছে। তবে নির্বাচনে যাওয়া না যাওয়া নিয়ে এখনো কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। 

এ বিষয় নিয়ে দ্রুতই একটা আলোচনায় বসব। তখন সবাই যে মতামত দেবে তার ওপর ভিত্তি করে সিদ্ধান্ত নেব। নির্বাচনে গেলে কোথায় কে প্রার্থী হবে সেটা পরে বলতে পারব। আর ওয়ার্ড কমিশনারের নাম নিয়ে কোনো কথা এখনি বলব না। স্থানীয়ভাবে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হওয়ার পর সার্বিক সহযোগিতা দেয়ার চেষ্টা থাকবে কমিশনার প্রার্থীদের জন্য। আপাতত এটুকু বলব, যে কোনো নির্বাচনের জন্য সারা দেশে আমাদের অবস্থান ভালো, আমরা প্রস্তুত আছি।


আপনার মন্তব্য লিখুন...

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ন বেআইনি
Top