Projonmo Kantho logo
About Us | Contuct Us | Privacy Policy
ঢাকা, শনিবার, ১৯ জানুয়ারী ২০১৯ , সময়- ৬:৫৭ অপরাহ্ন
Total Visitor: Projonmo Kantho Media Ltd.
শিরোনাম
জীবন দিয়ে হলেও জনগনের সম্মান আমি রক্ষা করবো লুঠের টাকায় ভোট, লুঠছে সব নোট : মমতা'র অভিযোগ ‘জয় বাংলা’ স্লোগানে মুখরিত সোহরাওয়ার্দী উদ্যান অর্থপূর্ণ রাজনৈতিক সংলাপের আহ্বান জানিয়েছে জাতিসংঘ সাবেক অর্থমন্ত্রীর হুইল চেয়ার ধরার লোক নেই বিমানবন্দরে !  বিজেপি সরকারের ‘বিদায় ঘণ্টা’ বাজানোর প্রস্তুতি জনগণের দৃষ্টি ভিন্নখাতে প্রভাহিত করতেই বিজয় উৎসব করছে আ'লীগ কলকাতার ব্রিগেডের দিনেই সম্প্রচারিত হয়েছিল বঙ্গবন্ধুর মৃত্যু আশঙ্কা আসছেন জাতিসংঘের বিশেষ দূত যেসব সড়কে যান চলাচল বন্ধ থাকবে আজ 

ইন্টারনেট সংযোগ পাচ্ছেন দেশের প্রতিটি ইউনিয়ন ও ছিটমহলবাসি, চলতি বছরেই   


নিজস্ব প্রতিবেদক, প্রজন্মকণ্ঠ

আপডেট সময়: ৭ এপ্রিল ২০১৮ ৪:২৪ পিএম:
ইন্টারনেট সংযোগ পাচ্ছেন দেশের প্রতিটি ইউনিয়ন ও ছিটমহলবাসি, চলতি বছরেই   

তথ্যপ্রযুক্তি খাতকে এগিয়ে নেওয়ার জন্য সরকার বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। এ বছরের মধ্যে সব ইউনিয়ন ও ছিটমহলে ইন্টারনেট সংযোগ দেওয়া হবে এমন তথ্য জানিয়েছেন ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার। 

মঙ্গলবার জনতা টাওয়ার সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্কের সেমিনার হলে বিপিও সামিটের সংবাদ সম্মেলনের এসব কথা বলেন মন্ত্রী। দেশীয় ও আন্তর্জাতিক বাজারে বিজনেস প্রসেস আউটসোর্সিং বা বিপিও খাতের অবস্থানকে তুলে ধরার লক্ষ্যে ১৫ ও ১৬ এপ্রিল তৃতীয়বারের মতো অনুষ্ঠিত হবে ‘বিপিও সম্মেলন বাংলাদেশ ২০১৮’। মোস্তাফা জব্বার বলেন, সরকার ফাইভজি ইন্টারনেট সেবা চালু করার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছে। তিনি বলেন, ‘আমরা এরই মধ্যে ফোরজি ইন্টারনেট সেবা চালু করেছি। উন্নত বিশ্বে ফাইভজি সেবা দেওয়া হচ্ছে। 

প্রযুক্তিতে আমরা পিছিয়ে থাকব কেন?’ দেশের বেকার তরুণদের সম্পর্কে তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী বলেন, ‘এখন আমাদের সবচেয়ে বড় সমস্যা হলো শিক্ষিত বেকারদের কর্মসংস্থান তৈরি করা। এ সমস্যা সমাধানের জন্য সরকার নানা ধরনের উদ্যোগ নিচ্ছে।’ মন্ত্রী আরও বলেন, ‘বিপিও খাতে তরুণদের কাজে লাগাতে হবে। মেয়েদের বেশি বেশি অংশগ্রহণ করতে হবে। পার্শ্ববর্তী দেশ ভারত ও ভিয়েতনাম এ আউটসোর্সিং কাজে ভালো করছে। কারণ সবচেয়ে বেশি মেয়ে কাজ করে এ খাতে। আর আমাদের দেশে কিন্তু অনেক কম। যত বেশি এই খাতে মেয়ে আসবে বিপিও খাত তত বেশি সফল হবে।’ তিনি বলেন, ‘যে-কোনো জায়গায় বসে সব শ্রেণির মানুষের চাকরির সুযোগ রয়েছে বিপিও সেক্টরে। আমরা এ সামিটে তা তুলে ধরার চেষ্টা করব। 

সামিটে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে দক্ষ তরুণদের এনে চাকরি দেওয়ার ব্যবস্থা রয়েছে।’ সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, এই সামিটে দেশের অন্তত ১০টি প্রতিষ্ঠান কর্মী নেবে। গতবার শুধু সিভি নেওয়া হলেও এবার সরাসরি সাক্ষাৎকারের সুযোগ থাকছে। সেখান থেকেই প্রতিষ্ঠানগুলো পছন্দের প্রার্থীকে বেছে নিতে পারবে। রাজধানীর প্যান প্যাসিফিক সোনারগাঁও হোটেলে অনুষ্ঠিত হবে দুই দিনের বিপিও সামিট বাংলাদেশ ২০১৮। উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তিবিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়। 

আয়োজকদের পক্ষ থেকে জানানো হয়, এবারের আয়োজনে ১০টি সেমিনার ও কর্মশালায় ৪০ জন স্থানীয় এবং ২০ জন আন্তর্জাতিক বক্তা অংশগ্রহণ করবেন। দুই দিনের মূল আয়োজনের আগে ৩০টি বিশ্ববিদ্যালয়ের অ্যাক্টিভেশন কার্যক্রম অনুষ্ঠিত হবে। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি বিভাগের মহাপরিচালক একেএম খায়রুল আলম, বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব কলসেন্টার অ্যান্ড আউটসোর্সিংয়ের (বাক্য) সভাপতি ওয়াহিদ শরীফ, সাধারণ সম্পাদক তৌহিদ হোসেনসহ খাত সংশ্লিষ্টরা।

আয়োজনে অংশীদার হিসেবে যুক্ত হয়েছে বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব সফটওয়্যার অ্যান্ড ইনফরমেশন সার্ভিসেস (বেসিস), বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতি (বিসিএস), বাংলাদেশ ওমেন ইন টেকনোলজি (বিডব্লিউআইটি), আইএসপি অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (আইএসপিএবি) ও বাংলাদেশ মোবাইল ফোন ইমপোর্টারস অ্যাসোসিয়েশন (বিএমপিআইএ)।


আপনার মন্তব্য লিখুন...

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ন বেআইনি
Top