Projonmo Kantho logo
About Us | Contuct Us | Privacy Policy
ঢাকা, শনিবার, ১৯ জানুয়ারী ২০১৯ , সময়- ৬:৫৯ অপরাহ্ন
Total Visitor: Projonmo Kantho Media Ltd.
শিরোনাম
জীবন দিয়ে হলেও জনগনের সম্মান আমি রক্ষা করবো লুঠের টাকায় ভোট, লুঠছে সব নোট : মমতা'র অভিযোগ ‘জয় বাংলা’ স্লোগানে মুখরিত সোহরাওয়ার্দী উদ্যান অর্থপূর্ণ রাজনৈতিক সংলাপের আহ্বান জানিয়েছে জাতিসংঘ সাবেক অর্থমন্ত্রীর হুইল চেয়ার ধরার লোক নেই বিমানবন্দরে !  বিজেপি সরকারের ‘বিদায় ঘণ্টা’ বাজানোর প্রস্তুতি জনগণের দৃষ্টি ভিন্নখাতে প্রভাহিত করতেই বিজয় উৎসব করছে আ'লীগ কলকাতার ব্রিগেডের দিনেই সম্প্রচারিত হয়েছিল বঙ্গবন্ধুর মৃত্যু আশঙ্কা আসছেন জাতিসংঘের বিশেষ দূত যেসব সড়কে যান চলাচল বন্ধ থাকবে আজ 

নির্বাচন করাই আমাদের জন্য বড় চ্যালেঞ্জ : ইসি


নিজস্ব প্রতিবেদক, প্রজন্মকণ্ঠ

আপডেট সময়: ৮ এপ্রিল ২০১৮ ১১:৩৮ এএম:
নির্বাচন করাই আমাদের জন্য বড় চ্যালেঞ্জ : ইসি

প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নূরুল হুদা বলেছেন, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সব দল অংশগ্রহণ না করলে তা ‘ভালো নির্বাচন’ হবে না। শনিবার (০৭এপ্রিল) নির্বাচন বিষয়ক রিপোর্টিং প্রশিক্ষণের সমাপনী দিনে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে একথা বলেন তিনি। নির্বাচন কমিশন বিটে কর্মরত সাংবাদিকদের সংগঠন রিপোর্টার্স ফোরাম ফর ইলেকশন এ্যান্ড ডেমোক্রেসির (আরএফইডি) উদ্যোগে বাংলাদেশ প্রেস ইন্সটিটিউট (পিআইবি) তিন দিনের এ প্রশিক্ষণের আয়োজন করে। সমাপনী অনুষ্ঠানের ৩৫ জন সাংবাদিকের হাতে সনদ তুলে দেন সিইসি।

এসময় তথ্য মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব আবুয়াল হোসেন ও পিআইবি মহাপরিচালক শাহ আলমগীর উপস্থিত ছিলেন। আরএফইডির সভাপতি সোমা ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক মঈনুল হক চৌধুরী শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন। ৫-৭ এপ্রিল পর্যন্ত প্রশিক্ষণে সাবেক সিইসি এটিএম শামসুল হুদা, সাবেক সিইসি কাজী রকিবউদ্দীন আহমদ, পিএসসি চেয়ারম্যান মোহাম্মদ সাদিকসহ নির্বাচন বিশেষজ্ঞরা বিভিন্ন অধিবেশনে বক্তব্য দেন।

সিইসি বলেন, “নির্বাচন করাই আমাদের জন্য বড় চ্যালেঞ্জ। আমরা আশা করি, সব দলই আগামী সংসদ নির্বাচনে অংশ নেবে। সব দল না এলে তা ভালো নির্বাচন হবে না।” বিএনপি ও সমমনা দলগুলো দশম সংসদ নির্বাচনে অংশ না নিলেও একাদশ সংসদে নির্বাচনে তার পুনরাবৃত্তি হবে না।

দশম সংসদ নির্বাচনের পুনরাবৃত্তি রোধ করতে ইসির কি ভূমিকা থাকবে জানতে চাইলে তিনি বলেন, নির্বাচন নিরপেক্ষভাবে করব সে ব্যাপারে কমিশনের দৃঢ়তা রয়েছে। রাজনৈতিক দলগুলো কমিশনের নিরপেক্ষতা নিয়ে কথাবার্তা কম বলছে।

নির্বাচনের সময় সংসদ বহাল থাকলে আচরণবিধি সংশোধন করে সাংসদদের ক্ষমতা খর্ব করা হবে কিনা জানতে চাইলে কে এম নূরুল হুদা বলেন, “এটা অবশ্যই চিন্তা করা দরকার। তাদের রেখে নির্বাচন করতে হলে আচরণবিধিতে কিছু পরিবর্তন আনা প্রয়োজন। এটা নিয়ে আমরা চিন্তা করে দেখব।”

বিদ্যমান পরিস্থিতিতে নির্বাচনে ‘লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড’ তৈরির বিষয়ে সীমাবদ্ধতা রয়েছে বলে সিইসি জানান। “কিছু কিছু জিনিস আছে নির্বাচন কমিশনের কিছু করার নেই। সরকারের কাঠামো কেমন হবে, নির্বাচনের সময় সরকার কি রকম- এগুলো সম্পূর্ণ সরকারের বিষয়। নির্বাচন কমিশনের বিষয় না। কি রকম সরকার হবে না হবে সেটা নিয়ে আমরা কিছু করতে পারব না।"

নির্বাচনে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) ব্যবহারের বিষয়ে সিইসি বলেন, “রংপুরে আমরা চেষ্টা করেছি। গাজীপুর ও খুলনায় আংশিক যতটা পারি আমরা সেখানেও আমরা মানুষের কাছে নিয়ে যাব। সেটা যদি গ্রহণযোগ্য হয় তখন ধীরে ধীরে এটাকে সংস্কার করা হবে।তবে জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ইভিএম ব্যবহারের বিষয়ে এখনো কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি।

উল্লেখ্য, চলতি বছরের নভেম্বর থেকে আগামী বছরের জানুয়ারির মধ্যে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন হবে। তা অংশগ্রহণমূলক করার বিষয়ে জোর দিচ্ছে সব মহল।


আপনার মন্তব্য লিখুন...

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ন বেআইনি
Top