Projonmo Kantho logo
About Us | Contuct Us | Privacy Policy
ঢাকা, বুধবার, ১২ ডিসেম্বর ২০১৮ , সময়- ১:৪৯ অপরাহ্ন
Total Visitor: Projonmo Kantho Media Ltd.
শিরোনাম
খালেদা জিয়ার প্রার্থিতা নিয়ে রিটের আদেশ আগামীকাল  মনোনয়নপত্র ফিরে পাচ্ছেন স্বতন্ত্র প্রার্থী হিরো আলম নির্বাচনী প্রচার শুরু করবেন শেখ হাসিনা, ১২ ডিসেম্বর সিঙ্গাপুর যাচ্ছেন সাবেক রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ সহস্রাব্দ উন্নয়ন লক্ষ্য ২০১৫ থেকে টেকসই উন্নয়ন অভীষ্ট ২০৩০ প্রধান নির্বাচন কমিশনাসহ ছয়জনের বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার রুল ভোট প্রচারণায় সোহেল তাজের ছেলে ব্যারিস্টার তুরাজ  মহাজোটের চূড়ান্ত প্রার্থী তালিকা । প্রজন্মকণ্ঠ  আওয়ামী লীগ শাসনামলে বাংলাদেশের উন্নয়ন চিত্র দেশের ৫৮টি নিউজ পোর্টালের ওয়েবসাইট বন্ধের নির্দেশ দিলো বিটিআরসি

রাসায়নিক হামলার অভিযোগে এ হামলা

সিরিয়ায় যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য ও ফ্রান্সের যৌথ বিমান হামলা


নিজস্ব প্রতিবেদক, প্রজন্মকণ্ঠ

আপডেট সময়: ১৪ এপ্রিল ২০১৮ ১:২৯ পিএম:
সিরিয়ায় যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য ও ফ্রান্সের যৌথ বিমান হামলা

সিরিয়ায় যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য ও ফ্রান্সের যৌথ বিমান হামলা দৌমায় কথিত রাসায়নিক হামলার অভিযোগে সিরিয়ায় বিমান হামলা চালিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য ও ফ্রান্স। শুক্রবার মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এই যৌথ হামলা চালানোর নির্দেশ দেন। বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, সিরিয়ার সময় অনুযায়ী, শনিবার ভোর রাতে এই হামলা চালানো হয়। ২০১১ সালে সিরিয়ায় গৃহযুদ্ধ শুরু হওয়ার পর পশ্চিমা জোটের এটি সবচেয়ে বড় হামলা।

মার্কিন সময় শুক্রবার রাতে ট্রাম্প হোয়াইট হাউজে সিরিয়ায় হামলা চালানোর নির্দেশের বিষয়টি সাংবাদিকদের যখন জানাচ্ছিলেন তখন দামেস্কের কাছে ত্রি-দেশীয় জোটের বিমান হামলা শুরু হয়ে গেছে। ট্রাম্প বলেছেন, ফ্রান্স ও যুক্তরাজ্যের সামরিক বাহিনীর সঙ্গে যৌথ অভিযান চলছে। সিরিয়ার সরকার নিষিদ্ধ রাসায়নিক গ্যাস ব্যবহার বন্ধ না করা পর্যন্ত আমরা হামলা অব্যাহত রাখতে প্রস্তুত।

ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে হামলায় তার দেশের অংশগ্রহণ নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেছেন, ‘সামরিক অভিযানের কোনো বিকল্প ছিল না।’ তবে এই অভিযান সিরিয়ার সরকার পরিবর্তনের জন্য নয় বলে দাবি করেছেন তিনি। বিবিসি জানিয়েছে, সিরিয়ার হোমস শহরের কাছে একটি সেনা ঘাঁটিতে যুক্তরাজ্যের চারটি টর্নেডো জঙ্গি বিমান হামলা চালিয়েছে। ওই ঘাঁটিতে রাসায়নিক অস্ত্রের সরঞ্জাম রাখা হতো বলে জানিয়েছে ব্রিটিশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়।

রয়টার্স জানিয়েছে, শনিবার ভোরে দামেস্কের কাছে অন্ততঃ ছয়টি বড় বিস্ফোরণের শব্দ পাওয়া গেছে। সিরিয়ার রাজধানীর আকাশে ধোঁয়ার কুন্ডুলি দেখা গেছে। এছাড়া দামেস্কের বারজাহ জেলায় বিমান হামলা হয়েছে বলে জানিয়েছে আরেক প্রত্যক্ষদর্শী। এই বাজরাহ জেলায় সিরিয়ার প্রধান বৈজ্ঞানিক গবেষণা কেন্দ্র রয়েছে।

শনিবার গৌতায় কর্মরত একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন জানিয়েছে, পূর্ব গৌতায় সরকারি বাহিনীর ভয়াবহ রাসায়নিক হামলায় কমপক্ষে ৭০ জন নিহত হয়েছে। তবে এ খবর কোনো নিরপেক্ষ সূত্র থেকে নিশ্চিত হওয়া যায়নি। সিরিয়ার সরকার অবশ্য এ অভিযোগ অস্বীকার করে আসছে। পশ্চিমা দেশগুলো অবশ্য দাবি করছে আসাদ সরকারই এই হামলা চালিয়েছে। মঙ্গলবার ট্রাম্প হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেছিলেন, এর জন্য সিরিয়ায় ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালানো হবে। অবশ্য সিরিয়ার ঘনিষ্ঠ মিত্র রাশিয়া পাল্টা হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেছে, হামলা হলে তারাও পাল্টা হামলা চালাবে।


আপনার মন্তব্য লিখুন...

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ন বেআইনি
Top