Projonmo Kantho logo
About Us | Contuct Us | Privacy Policy
ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৬ অক্টোবর ২০১৮ , সময়- ৮:৪৫ অপরাহ্ন
Total Visitor: Projonmo Kantho Media Ltd.
শিরোনাম
নরসিংদীর ‘জঙ্গি আস্তানায়’ যৌথবাহীনির অভিযান সমাপ্ত  এই মুহূর্তে কোনও রাজবন্দি নাই, যারা আছে তারা সবাই অপরাধী : তথ্যমন্ত্রী অনুসন্ধানী সাংবাদিকতা ছাড়া দুদক টিকবে না : দুর্নীতি দমন কমিশন নরসিংদীর 'জঙ্গি আস্তানা' থেকে দু'টি লাশ উদ্ধার, জঙ্গিদের আত্মসমর্পণের আহ্বান ৮ হাজার রোহিঙ্গার প্রথম তালিকা যাচাই করে তথ্য স্বীকার করেছে মায়ানমার জলবায়ু পরিবর্তনের ঝুঁকি মোকাবিলায় সম্মিলিত প্রচেষ্টার বিকল্প নেই : পানি সম্পদ মন্ত্রী চারদিনের সফরে রিয়াদের উদ্দেশে ঢাকা ছেড়েছেন প্রধানমন্ত্রী ড. কামালের হোসেনের টার্গেট সম্ভবত ক্ষমতায় যাওয়া নয়, তার টার্গেট শেখ হাসিনা : ওবায়দুল কাদের বিএনপির নেতৃত্বাধীন ভেঙে গেল ২০ দলীয় জোট, বেরিয়ে গেল ন্যাপ ও এনডিপি জঙ্গি আস্তানা : শেখেরচরে জঙ্গি আস্তানায় অভিযান, গুলির শব্দ

চলতি বছরে বিশ্বপ্রবৃদ্ধি ৩ দশমিক এক শতাংশ হবে : বিশ্বব্যাংকের প্রেসিডেন্ট


নিজস্ব প্রতিবেদক, প্রজন্মকণ্ঠ

আপডেট সময়: ২১ এপ্রিল ২০১৮ ১১:৩৫ পিএম:
চলতি বছরে বিশ্বপ্রবৃদ্ধি ৩ দশমিক এক শতাংশ হবে : বিশ্বব্যাংকের প্রেসিডেন্ট

চলতি বছরে বিশ্বপ্রবৃদ্ধি ৩ দশমিক এক শতাংশ হবে বলে মনে করছেন বিশ্বব্যাংকের প্রেসিডেন্ট জিম ইয়ং কিং।

গত ২০১১ সাল থেকে বিশ্ব অর্থনীতির অবকাঠামো পুনরুদ্ধার, শিল্প উৎপাদন ও বাণিজ্য, ভোগ্যপণ্য রপ্তানিকারক দেশগুলোর সুফল প্রাপ্তির কারণে এ প্রবৃদ্ধি বেড়েছে বলে মনে করেন তিনি। তবে একে অন্তর্ভুক্তিমূলক প্রবৃদ্ধিতে পরিণত করাই চ্যালেঞ্জ বলে মনে করছে বিশ্বব্যাংক।

যুক্তরাষ্ট্রের ওয়াশিংটন ডিসি থেকে ঝর্ণা রায়ের রিপোর্ট। গত ১৬ এপ্রিল থেকে যুক্তরাষ্ট্রের ওয়াশিংটন ডিসিতে বিশ্বব্যাংকের প্রধান কার্যালয়ে শুরু হয়েছে আইএমএফ-বিশ্বব্যাংক বসন্তকালীন বৈঠক। এতে যোগ দিয়েছেন বাংলাদেশের অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত।

স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার এক সংবাদ সম্মেলনে বিশ্বব্যাংকের প্রেসিডেন্ট জিম ইয়ং কিং জানান, চলতি বছরে বিশ্ব প্রবৃদ্ধি বেড়ে ৩ শতাংশ ছাড়িয়ে যাবে। বিশ্ব অর্থনীতি এখন একটি শক্তিশালী ভিতের ওপর দাঁড়িয়ে আছে—এ কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, আমি মনে করি ২০১৮ সালে বিশ্ব প্রবৃদ্ধি ৩ দশমিক ১ শতাংশ হবে।

গত ২০১১ সাল থেকে বিশ্ব অর্থনীতির অবকাঠামো পুনরুদ্ধার, শিল্প উৎপাদন ও বাণিজ্য বৃদ্ধি, ভোগ্যপণ্য রপ্তানিকারক দেশগুলোর ভোগ্যপণ্যের সুফল প্রাপ্তির কারণে এ প্রবৃদ্ধি বেড়েছে বলে জানান তিনি। অর্থনীতির এ শক্তিশালী প্রবৃদ্ধির সুফল যাতে দরিদ্র দেশগুলো পায় সেদিকে সবাইকে দৃষ্টি দেয়ার আহ্বানের কথা উল্লে খ করে একইসঙ্গে প্রতিটি মানুষকে এই প্রবৃদ্ধিতে অন্তর্ভুক্ত করাই এখনকার চ্যালেঞ্জ বলে মনে করেন বিশ্বব্যাংক প্রেসিডেন্ট।

চলতি সপ্তাহেই বিশ্বব্যাংক দরিদ্র দেশগুলোর জন্য আইডিএ নামে একটি অর্থনৈতিক উদ্যোগ নিয়েছে।


আপনার মন্তব্য লিখুন...

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ন বেআইনি
Top