Projonmo Kantho logo
About Us | Contuct Us | Privacy Policy
ঢাকা, শনিবার, ২৬ মে ২০১৮ , সময়- ১২:১২ অপরাহ্ন
Total Visitor: Projonmo Kantho Media Ltd.
শিরোনাম
মাদকবিরোধী অভিযানে ফের ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ১০ স্বাস্থ্যসেবায় বিশ্বে পাকিস্তান ও ভারতের চেয়ে এগিয়ে রয়েছে বাংলাদেশ        ইয়াবা ব্যবসার সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ড, নতুন আইন আসছে ‘ওরে মন, হবেই হবে’ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সম্মানসূচক ডি.লিট পাচ্ছেন আজ  যাত্রা শুরু করল বিশ্বভারতীর বাংলাদেশ ভবন মাঠপর্যায়ের জরিপে : বিজয় নিয়ে শঙ্কিত আওয়ামী লীগ, ফুরফুরে বিএনপি  বিদ্রোহী কবি কাজী নজরুল ইসলামের ১১৯তম জন্মবার্ষিকী আজ বাংলাদেশে স্রোতের মতো রোহিঙ্গা, সুনামির মতো মাদক পাঠাচ্ছে মিয়ানমার :  ওবায়দুল কাদের  এবার এমপি বদির বেয়াই ইয়াবা ব্যবসায়ী নিহত 

ছাত্রলীগের সম্মেলন সম্পন্ন হলেও দ্রুত কমিটি ঘোষণা করা হচ্ছে না


নিজস্ব প্রতিবেদক, প্রজন্মকণ্ঠ

আপডেট সময়: ১২ মে ২০১৮ ১১:৪৬ পিএম:
ছাত্রলীগের সম্মেলন সম্পন্ন হলেও দ্রুত কমিটি ঘোষণা করা হচ্ছে না

বাংলাদেশ ২৯তম ছাত্রলীগের দুই দিনের সম্মেলন সম্পন্ন হয়েছে।তবে সম্মেলন সম্পন্ন হলেও দ্রুত কমিটি ঘোষণা করা হচ্ছে না বলে জানিয়েছেন সংগঠনটির সাধারণ সম্পাদক এস এম জাকির হোসাইন। শনিবার (১২ মে) বিকালে রাজধানীর রমনার ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে কাউন্সিল অধিবেশনের সমাপনী অনুষ্ঠানে তিনি একথা জানান।

ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, আমরা প্রার্থীদের তালিকা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে জমা দিয়েছি। আশা করছি নেত্রী অতি দ্রুত নতুন নেতৃত্বের বিষয়ে জানিয়ে দেবেন। হয় তো দুই-একদিন সময় লাগতে পারে এ ঘোষণা আসতে।

গতকাল শুক্রবার (১১মে) ঢাকার সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে দুই দিনের এই সম্মেলন উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সেখানে তিনি ছাত্রলীগকে আলাপ-আলোচনার মাধ্যমে পরবর্তী নেতৃত্ব বাছাইয়ের তাগিদ দেন। পরে রাতে গণভবনে এ ব্যাপারে সংশ্লিষ্টদের নিয়ে বৈঠকও করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

আজ শনিবার (১২মে) দ্বিতীয় অধিবেশনে ছাত্রলীগের নেতারা নতুন নেতৃত্ব বাছাইয়ে একটি তালিকা করেন। সেখানে উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতারাও। সেই তালিকা পাঠানো হয়েছে গণভবনে। সেখান থেকেই আসবে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত।

দ্বিতীয় অধিবেশনের সমাপনী ভাষণে ছাত্রলীগের সভাপতি সাইফুর রহমান সোহাগ বলেন, ‘প্রার্থীদের তালিকা আমরা আমাদের অভিভাবক জননেত্রী শেখ হাসিনার কাছে জমা দিয়েছি।চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত তিনিই দেবেন।কমিটির ঘোষণা যেকোনো সময় নেত্রী দিতে পারেন।

তথ্য মতে, এক যুগেরও অধিক সময় ধরে ছাত্রলীগের নেতৃত্ব পরিবর্তন হয় কয়েকটি সিন্ডিকেটের মাধ্যমে। সিন্ডিকেটের আশীর্বাদই ছাত্রলীগের রাজনীতিতে সবচেয়ে বড়ো অর্জন। যারা এটা অর্জন করতে পারেন, নেতা বনে যাওয়া তাদের মুহূর্তের ব্যাপার। আর যারা তাদের ম্যানেজে ব্যর্থ, ছাত্রলীগে তাদের ঠাঁই হয় না। ভোটের মাধ্যমে নেতা নির্বাচনে বড়ো ধরনের প্রভাব ফেলে ওই সিন্ডিকেট। পরবর্তীতে ওই কমিটি সিন্ডিকেটের হয়েই কাজ করে বলে অভিযোগ রয়েছে।

এর ফলে ছাত্রলীগের যোগ্য নেতৃত্ব অনেকটা বাধাগ্রস্ত হয়েছে বলে মনে করে আওয়ামী লীগের হাইকমান্ড। এ থেকে বেরিয়ে আসতে নির্বাচন পদ্ধতি পরিবর্তন করা হচ্ছে। কিন্তু এবারো সম্মেলনের দিনক্ষণ ঘোষণা হওয়ার পরপরই আলোচনায় উঠে আসে কথিত সিন্ডিকেট। সিন্ডিকেটের বিষয়টি আলোচনায় আসায় ক্ষুব্ধ হন ছাত্রলীগের সর্বোচ্চ অভিভাবক আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা।

এরপর ছাত্রলীগের নেতা নির্বাচনে দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরসহ ৫ জন কেন্দ্রীয় নেতাকে কিছু নির্দেশনা দিয়েছেন। একইসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের আরও দুই কর্মকর্তাকে যাচাই-বাছাইয়ের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। নির্দেশনাগুলোর মধ্যে রয়েছে সমঝোতার ভিত্তিতে নতুন কমিটি করার সর্বোচ্চ চেষ্টা করা হবে, না হলে ভোট হবে। গুরুত্ব পাবে রাজপথের ত্যাগ, মেধা, আওয়ামী লীগ পরিবার। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনার আলোকে ইতোমধ্যে নতুন নেতৃত্বের একটি সর্ট লিস্ট তৈরি করে প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ে দেওয়া হয়েছে।

ওই তালিকা চুলচেরা বিশ্লেষণ করে সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক পদে দুজনের নাম প্রায় চূড়ান্ত করা হয়েছে বলে সূত্র নিশ্চিত করেছে। সম্মেলন তদারকির দায়িত্বপ্রাপ্ত কেন্দ্রীয় দুই নেতার আশির্বাদপুষ্ট তারা প্রধানমন্ত্রীর সুনজরে এসেছেন বলে জানা গেছে। এ দুজন ছাত্রলীগের রাজনীতিতে বেশ পরিচিত ও কট্টরপন্থি আওয়ামী পরিবারের সন্তান।

এদিকে, কেন্দ্রীয় কমিটির ঘোষণার পরপরই ঘোষণা হতে পারে ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ মহানগর ও ঢাকা বিশ্বিবদ্যালয় ছাত্রলীগের নতুন কমিটি। ছাত্রলীগের গুরুত্বপূর্ণ এ ৩ শাখা কমিটির নেতা নির্বাচনেও চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবেন প্রধানমন্ত্রী। ইতোমধ্যে গত ২৫, ২৬ ও ২৯ এপ্রিল যথাক্রমে ছাত্রলীগের ঢাকা মহানগর দক্ষিণ, মহানগর উত্তর ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কমিটির সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। নতুন কমিটিতে পদ পেতে এখানেও মাঠ দাবড়িয়ে বেড়াচ্ছেন শতাধিক ছাত্রনেতা।

উল্লেখ্য, ২০১৫ সালের ২৬ ও ২৭ জুলাই ছাত্রলীগের ২৮তম জাতীয় সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সম্মেলনে সাইফুর রহমানকে সভাপতি ও এসএম জাকির হোসাইনকে সাধারণ সম্পাদক করা হয়। গঠনতন্ত্র অনুযায়ী গত ২০১৭ সালের জুলাই মাসে বর্তমান কমিটির মেয়াদ শেষ হওয়ার কথা ছিল।


আপনার মন্তব্য লিখুন...

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ন বেআইনি
Top