Projonmo Kantho logo
About Us | Contuct Us | Privacy Policy
ঢাকা, শনিবার, ২৬ মে ২০১৮ , সময়- ১২:১০ অপরাহ্ন
Total Visitor: Projonmo Kantho Media Ltd.
শিরোনাম
মাদকবিরোধী অভিযানে ফের ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ১০ স্বাস্থ্যসেবায় বিশ্বে পাকিস্তান ও ভারতের চেয়ে এগিয়ে রয়েছে বাংলাদেশ        ইয়াবা ব্যবসার সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ড, নতুন আইন আসছে ‘ওরে মন, হবেই হবে’ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সম্মানসূচক ডি.লিট পাচ্ছেন আজ  যাত্রা শুরু করল বিশ্বভারতীর বাংলাদেশ ভবন মাঠপর্যায়ের জরিপে : বিজয় নিয়ে শঙ্কিত আওয়ামী লীগ, ফুরফুরে বিএনপি  বিদ্রোহী কবি কাজী নজরুল ইসলামের ১১৯তম জন্মবার্ষিকী আজ বাংলাদেশে স্রোতের মতো রোহিঙ্গা, সুনামির মতো মাদক পাঠাচ্ছে মিয়ানমার :  ওবায়দুল কাদের  এবার এমপি বদির বেয়াই ইয়াবা ব্যবসায়ী নিহত 

চাঁপাইনবাবগঞ্জ নিউ মার্কেটস্থ মাংস ব্যবসায়ীকে জরিমানা


নিজস্ব প্রতিবেদক, প্রজন্মকণ্ঠ

আপডেট সময়: ১৫ মে ২০১৮ ১:১৪ এএম:
চাঁপাইনবাবগঞ্জ নিউ মার্কেটস্থ মাংস ব্যবসায়ীকে জরিমানা

জনৈক ভোক্তা গত কয়েকদিন আগে চাঁপাইনবাবগঞ্জ নিউ মার্কেটস্থ মাংস বাজারে গরুর মাংস কিনতে গিয়েছিলেন। আলাউদ্দিন মাংস বিতান নামক দোকানে তিনি জিজ্ঞেস করেছিলেন যে, মাংস কত কেজি"। তাতে দোকানি উত্তরে বলেন ৪৮০ টাকা কেজি। তখন ঐ ভোক্তা বলেন, কয়েকদিন আগেই তো ৪০০ টাকা কেজি ছিল এখন এতো বেশি কেন? তারপর তিনি ৪৫০ টাকা প্রতি কেজি মাংস কিনতে রাজি হন। 

দোকানি বলেন, আপনি অন্য কোথাও এর কমে পাবেন না এবং অন্যেরা খারাপ মাংস দিবে। দোকানি আরও বলেন আপনি যেহেতু অল্প(১.৫ কেজি) মাংস নিচ্ছেন সেহেতু আপনাকে হাড়বিহীন মাংস দিচ্ছি। যাইহোক মাংস ওজন করার পর বিক্রেতা আরো দুই টুকরা চর্বি ফ্রি দিয়ে দেন।

ঐ ভোক্তা মাংস বাসায় নিয়ে কাটার সময় দেখেন আনুমানিক আধা কেজির মতো খাবার অযোগ্য হাড়, যেখানে তাকে মাত্র দুই টুকরা ফ্রি চর্বি দেয়ার কথা। তিনি জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা কার্যালয়ে সহকারি পরিচালক বরাবর লিখিত অভিযোগ দাখিল করেন। অদ্য সহকারি পরিচালক, জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর চাঁপাইনবাবগঞ্জ এর নেতৃত্বে ঘটনার সত্যতা যাচাইয়ের জন্য নিউ মার্কেটে অভিযান চলাকালীন সময়ে মাংস বাজারেও যাওয়া হয়। সেখানে অভিযোগকারী ও অভিযুক্ত উভয় উপস্থিত ছিলেন। তাদের বক্তব্য শোনার পর ও প্রমানস্বরুপ ভোক্তা কর্তৃক ক্কৃরয়ত সেই ১.৫ কেজি মাংস পর্যবেক্ষণ করা হয়। 

দেখা যায়, খাবার অযোগ্য হাড়ের পরিমান ৫৫০ গ্রাম এবং মাংসের পরিমান ৯৫০ গ্রাম। অর্থাৎ বিক্রেতার মাংস বিক্রিকালীন প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী প্রমাণের মিল পাওয়া যায়নি। উক্ত পর্যবেক্ষণে বিক্রেতা দোষ স্বীকার করেন এবং তাকে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন ২০০৯ এর ধারা ৪৫ অনুযায়ী ৩,০০০ টাকা জরিমানা আরোপ ও আদায় করা হয়।


আপনার মন্তব্য লিখুন...

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ন বেআইনি
Top