Projonmo Kantho logo
About Us | Contuct Us | Privacy Policy
ঢাকা, শুক্রবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮ , সময়- ৪:১৪ অপরাহ্ন
Total Visitor: Projonmo Kantho Media Ltd.
শিরোনাম
খালেদা জিয়ার চিকিৎসা বিতর্ক কেন ? বিএনপি প্রতিনিধিদলের সঙ্গে সাক্ষাত শেষে যা বললেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী | প্রজন্মকণ্ঠ পছন্দের হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য আবেদন খালেদা জিয়ার | প্রজন্মকণ্ঠ খালেদা জিয়া কারাগারের বাইরে থাকার সময়ও জনগণ তার ডাকে সাড়া দেয়নি : ওবায়দুল কাদের বিএনপি-জামায়াত ক্লিনহার্ট অপারেশন চালিয়ে আ'লীগের অসংখ্য নেতাকর্মীকে নির্যাতনের শিকার করেছিল : প্রধানমন্ত্রী  ধর্মমন্ত্রী ও ভূমিমন্ত্রীর  কড়া সমালোচনা করলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে রিজভীর নেতৃত্বে মিছিল করেছে বিএনপি আ'লীগের প্রতিনিধিদলের উত্তরবঙ্গ সফর শুরু । প্রজন্মকণ্ঠ   বিজিবি-বিএসএফ সম্মেলন : সীমান্ত হত্যা শূন্যের কোটায় নামিয়ে আনার অঙ্গীকার | প্রজন্মকণ্ঠ  সেমিফাইনাল নিশ্চিত করতে মাঠে নামছে স্বাগতিক বাংলাদেশ, আগামীকাল | প্রজন্মকণ্ঠ

মুসলিম উম্মাহর ঐক্যে ফাটল সৃষ্টি করতেই ইসরাইলের সৃষ্টি


ডেস্ক রিপোর্ট

আপডেট সময়: ১৫ জুন ২০১৮ ৮:১২ পিএম:
মুসলিম উম্মাহর ঐক্যে ফাটল সৃষ্টি করতেই ইসরাইলের সৃষ্টি

ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহিল উজমা খামেনেয়ী বলেছেন, ইহুদিবাদী ইসরাইলের প্রধান সমস্যা হচ্ছে এই সরকারের কোনো বৈধতা নেই; আর অবৈধভাবে যে সরকারের জন্ম হয়েছে সব মুসলিম জাতির প্রচেষ্টায় এবং আল্লাহর ইচ্ছায় তা নিশ্চিতভাবে ধ্বংস হবে।

আজ (শুক্রবার) ঈদুল ফিতরের নামাজ শেষে সর্বস্তরের জনগণের সঙ্গে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময়ের সময় তিনি এ প্রত্যয় ব্যক্ত করেন। ঈদের নামাজ শেষে উচ্চপদস্থ সামরিক ও বেসামরিক কর্মকর্তাদের পাশাপাশি কয়েক হাজার সাধারণ মানুষ সর্বোচ্চ নেতার সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে যান।

এ সময় তিনি বলেন, বিশ্ব সাম্রাজ্যবাদী শক্তি বর্তমানে মুসলিম দেশগুলোর সরকার ও জনগণের মধ্যে বিভিদ সৃষ্টির কাজে সর্বশক্তি নিয়োগ করেছে। এই ষড়যন্ত্র নস্যাত করার একমাত্র উপায় হচ্ছে মুসলিম উম্মাহর মধ্যে ঐক্য ও সংহতি জোরদার করা।

আয়াতুল্লাহিল উজমা খামেনেয়ী বলেন, ফিলিস্তিন জবরদখল করে অবৈধ রাষ্ট্র ইসরাইল প্রতিষ্ঠার অন্যতম প্রধান উদ্দেশ্য ছিল মুসলিম উম্মাহর ঐক্যে ফাটল সৃষ্টি করা। কিন্তু ঐতিহাসিক অভিজ্ঞতায় বোঝা যায়, যে সরকার বৈধতার সংকটে থাকে তা চিরকাল টিকে থাকতে পারে না।

তিনি আরো বলেন, কিছু নতজানু আরব সরকারের পক্ষ থেকে ইসরাইলের সঙ্গে সম্পর্ক প্রতিষ্ঠা করা কিংবা বায়তুল মুকাদ্দাসে মার্কিন দূতাবাস স্থানান্তরের ঘটনা ইহুদিবাদী সরকারকে ধ্বংসের হাত থেকে রক্ষা করতে পারবে না।  

তিনি ফিলিস্তিন সংকট সমাধানে ইরানের পুরনো অবস্থানের পুনরাবৃত্তি করে বলেন, মুসলমান, খ্রিস্টান ও ইহুদি নির্বিশেষে প্রকৃত ফিলিস্তিনি নাগরিকদের মধ্যে গণভোট আয়োজনের মাধ্যমে এ সংকটের সমাধান করতে হবে। অদূর ভবিষ্যতে এরকম একটি গণভোটের মাধ্যমে ফিলিস্তিনের প্রকৃত সরকার প্রতিষ্ঠা হবে এবং এর ফলে স্বয়ংক্রিয়ভাবে অবৈধ ইসরাইল সরকারের পতন হবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।


আপনার মন্তব্য লিখুন...

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ন বেআইনি
Top