Projonmo Kantho logo
About Us | Contuct Us | Privacy Policy
ঢাকা, মঙ্গলবার, ১১ ডিসেম্বর ২০১৮ , সময়- ১২:২৮ পূর্বাহ্ন
Total Visitor: Projonmo Kantho Media Ltd.
শিরোনাম
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সৎ নেতা হিসাবে আন্তর্জাতিকভাবে পরিচিত  ‘তারুণ্যের প্রথম ভোট উন্নয়নের স্বার্থে হোক, শন্তির পক্ষে হোক’ জামিনে মুক্ত ভিকারুননিসার শিক্ষক হাসনা হেনা ময়মনসিংহ মুক্ত দিবস আজ খালেদা জিয়ার প্রার্থিতা নিয়ে রিটের আদেশ আগামীকাল  মনোনয়নপত্র ফিরে পাচ্ছেন স্বতন্ত্র প্রার্থী হিরো আলম নির্বাচনী প্রচার শুরু করবেন শেখ হাসিনা, ১২ ডিসেম্বর সিঙ্গাপুর যাচ্ছেন সাবেক রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ সহস্রাব্দ উন্নয়ন লক্ষ্য ২০১৫ থেকে টেকসই উন্নয়ন অভীষ্ট ২০৩০ প্রধান নির্বাচন কমিশনাসহ ছয়জনের বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার রুল

কুড়িগ্রাম-৩ সংসদীয় আসনের উপ-নির্বাচনে ভোটগ্রহণ চলছে


প্রজন্মকণ্ঠ রিপোর্ট

আপডেট সময়: ২৫ জুলাই ২০১৮ ২:১০ পিএম:
কুড়িগ্রাম-৩ সংসদীয় আসনের উপ-নির্বাচনে ভোটগ্রহণ চলছে

কুড়িগ্রাম-৩ সংসদীয় আসনের উপ-নির্বাচনে ভোটগ্রহণ চলছে। বুধবার (২৫ জুলাই) সকাল ৮টায় ভোটগ্রহণ শুরু হয়। চলবে বিকেল ৪টা পর্যন্ত। উলিপুর ও চিলমারী উপজেলা মিলে একটি পৌরসভা ও ১৬টি ইউনিয়ন নিয়ে কুড়িগ্রাম ৩ আসন। এতে মোট ভোটার তিন লাখ ৬৩ হাজার ৭৫ জন। পুরুষ ভোটার এক লাখ ৭৬ হাজার ৪৭৭ এবং নারী ভোটার এক লাখ ৮৬ হাজার ৫৯৮। 

ভোটকেন্দ্র ১৫৯ এবং ভোটকক্ষ ৭৬৭টি।কেন্দ্রগুলোতে ১৫৯ জন প্রিসাইডিং অফিসার, ৭৬৭ জন সহকারী প্রিসাইডিং অফিসার ও এক হাজার ৫৩৪ জন পোলিং এজেন্ট নিয়োগ দেওয়া হয়েছে।

গত ১০ মে জাতীয় পার্টির সংসদ সদস্য একেএম মাঈদুল ইসলামের মৃত্যুতে শূন্য হয় কুড়িগ্রাম-৩ আসন। দীর্ঘ ৩০ বছর ধরে জাতীয় পার্টির দখলে থাকা এই আসনটির উপ-নির্বাচনে বিএনপিসহ অন্য কোন দল অংশ না নিলেও নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী অধ্যাপক এমএ মতিন ও জাতীয় পার্টির প্রার্থী প্রাইম সনিক গ্রুপের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. আক্কাছ আলী সরকার।

কুড়িগ্রাম-৩ সংসদীয় আসনের রিটার্নিং কর্মকর্তা জিএম সাহাতাব উদ্দিন জানান, নির্বাচনে আমরা চার স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা রেখেছি। পুলিশ, বিজিবি, র‌্যাব, আনসার এবং ২৫ জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও চারজন জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মাঠে কাজ করবে। ১৩ প্লাটুন বিজিবি মোতায়েন করা হয়েছে। বিপুল সংখ্যক র‌্যাব, পুলিশ বাহিনীর সদস্য মাঠে কাজ করছে।

এবং নির্বাচন কমিশনের ১৮জন পর্যবেক্ষক মাঠে কাজ করছে। আমাদের স্ট্রাইকিং ফোর্স, মোবাইল ফোর্স রয়েছে। ভোটাররা যেন উৎসবের মধ্য দিয়ে তাদের পছন্দের প্রার্থীকে ভোট দিতে পারে এবং নির্বিঘ্নে ভোট কেন্দ্রে যেতে পারে এবং ভোট দিয়ে নির্বিঘ্নে বাসায় পৌছাতে পারে তার যাবতীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।


আপনার মন্তব্য লিখুন...

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ন বেআইনি
Top