Projonmo Kantho logo
About Us | Contuct Us | Privacy Policy
ঢাকা, বুধবার, ২১ নভেম্বর ২০১৮ , সময়- ১০:৩১ অপরাহ্ন
Total Visitor: Projonmo Kantho Media Ltd.
শিরোনাম
সন্ত্রাসবাদ ইস্যুতে পাকিস্তানকে আর্থিক অনুদান বন্ধের ঘোষণা আমেরিকার ঈদ-ই-মিলাদুন্নবী উপলক্ষে রাষ্ট্রপতির উদ্যোগে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত নির্বাচনে অংশ নেবেন আবদুল লতিফ সিদ্দিকী  ‘মদিনা সনদেই মহানবী (সা.) ধর্মনিরপেক্ষতার কথা বলেছেন’ : সমাজকল্যাণমন্ত্রী রাষ্ট্রপতির সঙ্গে তিন বাহিনী প্রধানের সাক্ষাৎ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মহাজোটের হয়ে জাপার সম্ভাব্য প্রার্থীর তালিকা  গুজব খবর : বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট নিখোঁজ  ! আ'লীগ ও মহাজোটের মনোনয়ন ঘোষণা দিন পাঁচেক দেরি হবে : ওবায়দুল কাদের বিকৃত ইতিহাস থেকে দেশকে মুক্ত করতে কাজ করছে সরকার : প্রধানমন্ত্রী ঝিনাইদহে জঙ্গি আস্তানায় অভিযান সমাপ্ত, আটক ১

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ভারত সফর শেষে দেশে ফিরছেন আজ


প্রজন্মকণ্ঠ রিপোর্ট

আপডেট সময়: ২৫ জুলাই ২০১৮ ৪:৫৪ পিএম:
জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ভারত সফর শেষে দেশে ফিরছেন আজ

বাংলাদেশে চড়ছে নির্বাচনী পারদ ৷ তুঙ্গে রাজনৈতিক প্রস্তুতি ও তরজা ৷ আসরে নেমে পড়েছে শাসক-বিরোধী দু’পক্ষই ৷ সে দেশে অনেকেই মনে করছেন ভোটে ভারতের ভূমিকা গুরুত্বপূর্ণ ৷ তাই ইতিমধ্যেই দিল্লি সফর সেরে ফেলেছেন আওয়ামি লিগ ও বিএনপি-র শীর্ষ নেতৃত্ব৷ এমনই পরিস্থিতিতে ভারতকে পাশে পেতে এবার দিল্লির দরবারে প্রাক্তন সেনাপ্রধান রাষ্ট্রপতি হুসাইন মহম্মদ এরশাদ ৷

গত রবিবার ভারত সফরে গেছেন পার্টির চেয়ারম্যান হুসাইন মোহাম্মদ এরশাদ ৷ ইতিমধ্যেই দিল্লিতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিংয়ের সঙ্গে বৈঠক করেছেন তিনি ৷ যদিও সেখানে কী আলোচনা হয়েছে তা প্রকাশ্যে আসেনি ৷  

রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের মতে আসন্ন নির্বাচনে ভারতের সমর্থন আদায় করতেই এই সফর জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ৷ তাঁর সঙ্গে রয়েছেন, দলের মহাসচিব এবি এম রুহুল আমিন হাওলাদার, প্রেসিডিয়াম সদস্য জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলু, পলিটিক্যাল সেক্রেটারি সুনীল শুভরায় এবং প্রাক্তন মেজর খালেদ আখতার। উল্লেখ্য, ১৯৮২ সালে সেনা অভ্যুত্থানের মাধ্যমে রাষ্ট্রপতির আসন দখল করেন পার্টির চেয়ারম্যান হুসাইন মোহাম্মদ এরশাদ ৷ ক্ষমতায় থাকাকালীন ভারতের সঙ্গে সম্পর্কে অবনতি ঘটে বাংলাদেশের৷ পাকিস্তানের সঙ্গে সম্পর্ক মজবুত করেন এরশাদ ৷ তখন ক্ষমতায় ছিল কংগ্রেস ৷ রাজনীতিবিদদের মতে ভারতে মোদি সরকারই ফের ক্ষমতায় আসবে বলে মনে করছে বাংলাদেশের অধিকাংশ নেতারাই ৷ তাই গেরুয়া শিবিরের সঙ্গে সৌহার্দ্যপূর্ণ সম্পর্কের পক্ষেই মত সবার  ৷

উল্লেখ্য, আজ দেশ ফিরবেন পার্টির চেয়ারম্যান হুসাইন মোহাম্মদ এরশাদ  ৷ চলতি বছরের শেষের দিকে সাধারণ নির্বাচন বাংলাদেশে ৷ তার আগে কংগ্রেস নেতাদের সঙ্গেও বৈঠকে বসতে পারেন তিনি ৷ যদিও মনে করা হচ্ছে, তাঁর এই সফর দলের পক্ষে বিশেষ লাভজনক হবে না ৷ কারণ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আওয়ামি সরকারের সঙ্গে দিল্লির সম্পর্ক যথেষ্ট মজবুত ৷ ছিটমহল থেকে শুরু করে ইন্দিরা-মুজিব চুক্তির মাধ্যমে এখন আরও কাছাকাছি দুই দেশ ৷ এছাড়াও বাংলাদেশে ভারত বিরোধী জঙ্গি গতিবিধিতে রাশ টেনেছেন হাসিনা৷ যা বড় পাওনা ৷ তাই অপাতত ঢাকার মসনদে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকেই চাইছে ভারত ৷


আপনার মন্তব্য লিখুন...

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ন বেআইনি
Top