Projonmo Kantho logo
About Us | Contuct Us | Privacy Policy
ঢাকা, বুধবার, ১৭ অক্টোবর ২০১৮ , সময়- ৩:০৯ পূর্বাহ্ন
Total Visitor: Projonmo Kantho Media Ltd.
শিরোনাম
বৈশ্বিক ক্ষুধা সূচকে গত বছরের তুলনায় আরও দুই ধাপ এগিয়েছে বাংলাদেশ রাষ্ট্রদ্রোহ মামলার পর এবার ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীর বিরুদ্ধে চাঁদাবাজির মামলা চলতি বছরেই বাংলাদেশে চালু হচ্ছে ই-পাসপোর্ট শেষ পর্যন্ত ভর্তুকি দিয়ে গ্যাসের দাম না বাড়ানোর সিদ্ধান্ত : বিইআরসি নরসিংদীর ‘জঙ্গি আস্তানায়’ যৌথবাহীনির অভিযান সমাপ্ত  এই মুহূর্তে কোনও রাজবন্দি নাই, যারা আছে তারা সবাই অপরাধী : তথ্যমন্ত্রী অনুসন্ধানী সাংবাদিকতা ছাড়া দুদক টিকবে না : দুর্নীতি দমন কমিশন নরসিংদীর 'জঙ্গি আস্তানা' থেকে দু'টি লাশ উদ্ধার, জঙ্গিদের আত্মসমর্পণের আহ্বান ৮ হাজার রোহিঙ্গার প্রথম তালিকা যাচাই করে তথ্য স্বীকার করেছে মায়ানমার জলবায়ু পরিবর্তনের ঝুঁকি মোকাবিলায় সম্মিলিত প্রচেষ্টার বিকল্প নেই : পানি সম্পদ মন্ত্রী

শিক্ষার্থীদের আন্দোলন : গুজব ছড়ানোর অভিযোগে গ্রেপ্তার ১৯   


নিজস্ব প্রতিবেদক, প্রজন্মকণ্ঠ

আপডেট সময়: ১০ আগস্ট ২০১৮ ১:২৭ এএম:
শিক্ষার্থীদের আন্দোলন : গুজব ছড়ানোর অভিযোগে গ্রেপ্তার ১৯   

নিরাপদ সড়কের দাবিতে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের সময় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে গুজব ছড়ানোর অভিযোগে এখন পর্যন্ত ১৯ জনকে গ্রেপ্তার করেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। এরমধ্যে রাজধানীর উত্তরা পশ্চিম থানা, রূপনগর থানা, রমনা থানা ও ধানমন্ডি থানায় ১৪ জনকে, চট্টগ্রামের কোতোয়ালি থানায় চারজন ও সিরাজগঞ্জের সদর থানায় একজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। যাদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা হয়েছে তারা গুজব ছড়িয়ে দেশকে অস্থিতিশীল করে জনমনে আতঙ্ক সৃষ্টি করার চেষ্টা করেছেন। 

এছাড়া ফেসবুকে সরকাবিরোধী বক্তব্য শেয়ার করার অভিযোগও আনা হয়েছে অনেকের বিরুদ্ধে। তাই বিতর্কিত তথ্যপ্রযুক্তি আইনের ৫৭ ধারায় তাদের বিরুদ্ধে মামলা করে গ্রেপ্তারও দেখানো হয়েছে। বুধবার রাতে উস্কানিমূলক ও মিথ্যা খবর প্রচার ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে গুজব ছড়ানোর অভিযোগে ২ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। গ্রেপ্তারকৃতরা হলো- অনলাইন নিউজ পোর্টাল জুম বাংলার সিইও ইউসুফ চৌধুরী (৪০) ও বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী দাইয়ান আলমকে (২২)। রাজধানীর বেশ কয়েকটি এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করে ডিএমপি’র সাইবার নিরাপত্তা ও অপরাধ দমন বিভাগ। এ সময় তাদের কাছ থেকে কম্পিউটার, মোবাইল, ল্যাপটপসহ ফেসবুক আইডি ও গ্রুপসমূহ জব্দ করা হয়েছে। গত ১লা আগস্ট রমনা থানায় দায়েরকৃত মামলায় (নং-১) ইউসুফকে এবং ৫ই আগস্ট রমনা থানায় দায়েরকৃত (নং-৮) মামলায় দাইয়ানকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে।

র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব-২) সূত্রে জানা গেছে, মঙ্গলবার রাতে ধানমন্ডি এলাকা থেকে র‌্যাব তিনজনকে গ্রেপ্তার করেছে। তারা হলেন, মুনিম সরকার (২৩), আখতারুজ্জামান টনি (২২) ও আসাদুল্লাহ আল গালিব (২২)। এসময় তাদের কাছ থেকে মোবাইল, সিম, ল্যাপটপ ও শিবিরের কিছু কাগজপত্র উদ্ধার করা হয়। র‌্যাব জানায়, গ্রেপ্তারের পর প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আসামিরা নিজেদের শিবিরের কর্মী হিসাবে পরিচয় দিয়েছে। একই দিন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে গুজব ছড়ানোর অভিযোগে রাজধানীর বিভিন্ন এলাকা থেকে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের সাইবার ক্রাইম ইউনিট তৌহিদুল ইসলাম তুষার (২৪), মোহাম্মদ ওয়ালিউল্লাহ (২৮) ও এহসান উদ্দিন এজাজ (১৮) নামের তিনজনকে আটক করেছে। তাদের কাছ থেকেও মোবাইল ফোন, ল্যাপটপ, মেমোরি কার্ড উদ্ধার করা হয়। এছাড়া তাদের ফেসবুক আইডি থেকে অনেক তথ্যও পাওয়া যায়। পরে তথ্যপ্রযুক্তি আইনের ৫৭ ধারায় তাদের রমনা থানার একটি মামলায় গ্রেপ্তার দেখানো হয়। 


আপনার মন্তব্য লিখুন...

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ন বেআইনি
Top