Projonmo Kantho logo
About Us | Contuct Us | Privacy Policy
ঢাকা, রবিবার, ২১ অক্টোবর ২০১৮ , সময়- ১০:০৬ পূর্বাহ্ন
Total Visitor: Projonmo Kantho Media Ltd.
শিরোনাম
লক্ষ লক্ষ তরুণ-তরুণীদের কাঁদিয়ে ‘এবি’ উড়াল দিলেন আকাশে । প্রজন্মকণ্ঠ  কক্সবাজারের টেকনাফে দেশের সবচেয়ে বড় সৌরপ্রকল্প চালু । প্রজন্মকণ্ঠ  জাতীয় নির্বাচনে পর্যবেক্ষক পাঠাবে না ইউরোপীয় ইউনিয়ন, কিন্তু কেন ?  কক্সবাজারে আত্মসমর্পণ করলেন ৬ দস্যু বাহিনীর ৪৩ সদস্য । প্রজন্মকণ্ঠ শেষ ইচ্ছা অনুযায়ী মায়ের কবরের পাশে চির নিদ্রায় আইয়ুব বাচ্চু  প্রিন্স মোহাম্মদ বিন সালমানের সমালোচনা করার কারণেই খাশগজিকে হত্যা করা হয়  জাতীয় পার্টির মহাসমাবেশে হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ ১৮ দফা কর্মসূচি ঘোষণা  দেশের শান্তি ও অগ্রগতি অব্যাহত রাখতে স্বাধীনতাবিরোধী অপশক্তি রোধে সবার প্রতি আহ্বান : রাষ্ট্রপতি কারিগরি শিক্ষা ও বিজ্ঞান শিক্ষাকে বিশেষ গুরুত্ব দিচ্ছি : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনের সংবাদ ৭ দিন বর্জনের আহ্বান : সাংবাদিক নারী সমাজ 

ইমরান খানের প্রধানমন্ত্রী হওয়া নিয়ে জোট জটিলতা কাটেনি 


ডেস্ক রিপোর্ট

আপডেট সময়: ১১ আগস্ট ২০১৮ ১:০৮ এএম:
ইমরান খানের প্রধানমন্ত্রী হওয়া নিয়ে জোট জটিলতা কাটেনি 

আগেই ঠিক হয়েছিল স্বাধীনতা অনুষ্ঠানের পূর্বে প্রধানমন্ত্রী পদে শপথ গ্রহণ করবেন ইমরান খান৷ আপাতত যা খবর জানা যাচ্ছে তাতে আসন্ন পাক স্বাধীনতা দিবসে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করা এবারের মতো হচ্ছে না ইমরান খানের৷ আগামী ১৮ অগস্ট তিনি শপথ নিতে চলেছেন৷ আর ১৪ অগস্ট পাকিস্তানের স্বাধীনতা দিবস৷

পাক সংবাদমাধ্যম জিও টিভি জানাচ্ছে দেশের নবনির্বাচিত প্রধানমন্ত্রী পদে ইমরান খান বসতে পারেন ১৮ তারিখ৷ এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকছেন তাঁর ক্রিকেটীয় জীবনের অন্যতম প্রতিদ্বন্দ্বী তথা ভারতীয় তিন ক্রিকেটার গাভাস্কর, কপিল দেব এবং সিধু৷ এঁরা প্রত্যেকেই আমন্ত্রণ পত্র পেয়েছেন বলে স্বীকার করেছেন৷ জিও টিভি জানিয়েছে, শপথ গ্রহণের জন্য প্রেসিডেন্ট মামুন হুসেন তাঁর স্কটল্যান্ড সফর বাতিল করেছেন৷ কেননা তাঁকেই শপথ বাক্য পাঠ করাতে হবে৷ ইমরানের শপথের পরই স্কটল্যান্ড সফরে যাবেন তিনি৷

তবে ইমরান খানের প্রধানমন্ত্রী হওয়া নিয়ে জোট জটিলতা এখনও অব্যাহত৷ সদ্য সমাপ্ত পাক জাতীয় নির্বাচনে ২৭২টি আসনের মধ্যে ১১৬টি আসনে জয় পেয়েছে পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ দল৷ তারা বৃহত্তম হলেও পার্লামেন্টে সংখ্যাগরিষ্ঠতা অর্জন করতে পারেনি৷ এর জন্য দরকার ১৩৭টি আসন৷ এখানেই জটিলতা৷ বিরোধী হয়ে যাওয়া পাকিস্তান পিপলস পার্টি ও সদ্য ক্ষমতা হারানো পাকিস্তান মুসলিম লিগ(নওয়াজ) যতগুলি আসনে জিতেছে তাদের মোট আসন সংখ্যা ইমরান খানকে চিন্তায় রাখছে৷

যদিও ইমরানের দলের মুখপাত্র ফওয়াদ চৌধুরী জানিয়েছেন, ঘাটতি থাকা আসন পূরণ করতে কতগুলি ছোট দলের সঙ্গে আলোচনা চলছে৷ কিন্তু তার দাবি মতো এখনও কোনও দল সরাসরি ইমরান খানকে সমর্থন জানায়নি৷ এই পরিস্থিতিতে পিপিপি ও পিএমএল(এন) এবং আরও দু-একটি দলের জোট সম্ভাবনা আরও বাড়ল৷ এই বিরোধীরা যদি যৌথভাবে প্রধানমন্ত্রী প্রার্থীর নাম তুলে ধরে তাহলে কুর্সিতে বসা কঠিন ইমরান খানের কাছে৷


আপনার মন্তব্য লিখুন...

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ন বেআইনি
Top