Projonmo Kantho logo
About Us | Contuct Us | Privacy Policy
ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৩ ডিসেম্বর ২০১৮ , সময়- ৯:৫৯ অপরাহ্ন
Total Visitor: Projonmo Kantho Media Ltd.
শিরোনাম
বাংলাদেশে ইংরেজি বর্ষবরণে হামলার ছক বানচাল : পরিকল্পনা ফাঁস  নির্বাচনের মাঠে জামাত, ৪৭ জনের প্রার্থীপদে আপত্তি আমেরিকার  টেলিভিশন বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে আ.লীগের নির্বাচনী প্রচার : এইচটি ইমাম নৌকার পক্ষে ভোট দেওয়ার ওয়াদা চাইলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা স্ট্রাইকিং ফোর্স হিসেবে মাঠে নামবে সেনাবাহিনী  ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলায় গণসংযোগে মির্জা ফখরুল  বিতর্কিত সাবেক রাষ্ট্রপতি এরশাদ ও তাঁর রাজনীতি  প্রমাণিত হলো বিএনপি সন্ত্রাসী দল : কাদের  বিবাহবার্ষিকীতে দোয়া চাইলেন ক্রিকেট সুপারস্টার সাকিব টুঙ্গিপাড়া থেকে নির্বাচনী প্রচারণা শুরু করলেন সভানেত্রী শেখ হাসিনা 

নিখোঁজ সাংবাদিককে সৌদি হত্যা করেছে, দাবি তুরস্কের


প্রজন্মকণ্ঠ অনলাইন রিপোর্ট

আপডেট সময়: ৮ অক্টোবর ২০১৮ ১২:৫৩ পিএম:
নিখোঁজ সাংবাদিককে সৌদি  হত্যা করেছে, দাবি তুরস্কের

তুরস্ক দাবি করেছে, এক নিখোঁজ সৌদি সাংবাদিককে ইস্তানবুলে সৌদি কনস্যুলেটের মধ্যে এক বিশেষ ‘হিট স্কোয়াড’ হত্যা করেছে৷ আন্তর্জাতিক অঙ্গনে সুপরিচিত সেই সংবাদভাষ্যকারকে সর্বশেষ কনস্যুলেটে প্রবেশ করতে দেখা গিয়েছিল৷

তুরস্কের সরকারি কর্মকর্তারা বিশ্বাস করেন, সৌদি সাংবাদিক জামাল খাসোগিকে সবচেয়ে বড় তুর্কি শহর ইস্তানবুলে অবস্থিত সৌদি কনস্যুলেটের মধ্যে সম্ভবত হত্যা করা হয়েছে৷ একাধিক সংবাদমাধ্যম রবিবার এই তথ্য প্রকাশ করেছে৷

গোপন সূত্রের বরাত দিয়ে বার্তাসংস্থা রয়টার্স এবং এপি জানিয়েছে, তুর্কি পুলিশের প্রাথমিক মূল্যায়ন হচ্ছে, খাসোগিকে সৌদি কনস্যুলেটের মধ্যে হত্যা করা হয়েছে৷ এই হত্যাকাণ্ড ছিল পূর্বপরিকল্পিত এবং হত্যার পর তাঁর মরদেহ কনস্যুলেট থেকে সরিয়ে ফেলা হয়েছে৷ 

নিজ বাড়ির জানালা পরিষ্কার করাটা হয়ত ঝুঁকিপূর্ণ নয়৷ কিন্তু সেটা যদি হয় উঁচু কোনো ভবনের, তাহলেই সমস্যা৷ জার্মানির মতো দেশে সুউচ্চ ভবনগুলোর বাইরের দিকটা পরিষ্কারের সময় তাই বেশ কড়া নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়৷ তবুও দুর্ঘটনা তো ঘটতেই পারে৷

ওয়াশিংটন পোস্ট পত্রিকার জন্যও কাজ করতেন খাসোগি৷ পত্রিকাটি গোপন সূত্রের বরাতে লিখেছে, এই সাংবাদিককে হত্যা করার জন্য সৌদি আরব থেকে ১৫ সদস্যের একটি টিম ইস্তানবুলে এসেছিল৷ হত্যাকাণ্ডটি পূর্ব পরিকল্পতি ছিল৷ 

এদিকে, ফরাসি বার্তাসংস্থা এএফপিকে একটি সূত্র জানিয়েছে, তুর্কি পুলিশের প্রাথমিক তদন্ত বলছে, সৌদি আরব থেকে আসা একটি দল সাংবাদিককে হত্যা করেছে এবং সেদিনই দলটি দেশে ফিরে গেছে৷

জার্মান বার্তাসংস্থা ডিপিএ-ও একই ধরনের সংবাদ প্রকাশ করেছে৷ খাসোগির এক ঘনিষ্ঠ বন্ধু পুলিশের বরাতে বার্তাসংস্থাটিকে জানিয়েছেন যে, সৌদি সাংবাদিকের মরদেহ কেটে টুকরো টুকরো করা হয়েছে৷

খাসোগিকে অপহরণ করা হয়েছে এমন সব খবর প্রত্যাখান করেছেন সৌদি আরবের কনসসাল-জেনারেল৷ তিনি বরং বার্তাসংস্থা রয়টার্সের কাছে দাবি করেছেন, আলোচিত সাংবাদিককে খুঁজে বের করতে সহায়তা করছে সৌদি আরব৷ 

অশীতিপর বাবা বাদশাহ সালমান কার্যত দেশের ক্ষমতা প্রিয় ছেলের হাতেই তুলে দিয়েছেন বলে অনেকে মনে করেন৷ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় ছাড়াও তিনি পেট্রোলিয়াম কোম্পানি আরামকো ও দেশের অর্থনৈতিক সংস্কারের দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন৷ উপ প্রধানমন্ত্রী পদও তাঁর দখলে ছিল৷

প্রসঙ্গত, গত মঙ্গলবার ইস্তানবুলে সৌদি কনস্যুলেটে প্রবেশের পর থেকে নিঁখোজ রয়েছেন খাসোগি৷ সৌদি কর্তৃপক্ষ অবশ্য দাবি করেছে, তিনি সেদিন কনস্যুলেট থেকে বের হয়ে গিয়েছিলেন৷ কিন্তু তুর্কি কর্তৃপক্ষ বলছে, এখন পর্যন্ত প্রাপ্ত সব তথ্যপ্রমাণই এই ইঙ্গিত দেয় যে, তিনি কনস্যুলেট থেকে বের হননি৷ সাংবাদিকের পরিনতি জানতে শনিবার ভোর থেকে তদন্ত শুরু করেছে আঙ্কারা৷

উল্লেখ্য, ২০১৭ সাল থেকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে স্বেচ্ছা নির্বাসনে ছিলেন সৌদি রাজপরিবারের সমালোচক হিসেবে পরিচিত জামাল খাসোগি৷ তিনি আশঙ্কা করছিলেন যে, তাঁর লেখালেখির কারণে সৌদি ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মদ বিন সালমান তাঁকে গ্রেপ্তার করতে পারেন৷ তুর্কি সঙ্গিনীকে বিয়ে করতে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র সংগ্রহ করতে মঙ্গলবার সৌদি কনস্যুলেটে গিয়েছিলেন তিনি৷ এরপর থেকে তাঁর কোনো হদিশ পাওয়া যাচ্ছে না৷

সুত্র : (রয়টার্স, এফপি, এপি, ডিপিএ)


আপনার মন্তব্য লিখুন...

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ন বেআইনি
Top