কুড়িগ্রামের চারটি সংসদীয় আসনে আ.লীগের ৫৯ প্রার্থী | প্রজন্মকণ্ঠ 

কুড়িগ্রামের চারটি সংসদীয় আসনে আওয়ামী লীগ থেকে মোট ৫৯ জন মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন। জেলায় যে কোনো সময়ের মধ্যে এটি সবচেয়ে বেশি মনোনয়নপত্র সংগ্রহ বলে জানা গেছে। মনোনয়ন সংগ্রকারীদের অনেককেই এলাকাবাসী চেনেন না। সবচেয়ে বেশি মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করা হয়েছে কুড়িগ্রাম-৪ আসনে। এই আসন থেকে ৩০ জন মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন।

এবার কুড়িগ্রাম-১ আসন থেকে মনোনয়নপত্র সংগ্র করেছেন ১০ জন, কুড়িগ্রাম-২ আসন থেকে ১০ জন, কুড়িগ্রাম-৩ আসন থেকে ৯ জন এবং কুড়িগ্রাম-৪ আসন থেকে ৩০ জন।

কুড়িগ্রাম-১ আসন থেকে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভনের বাবা ও ভুরুঙ্গামারী উপজেলা চেয়ারম্যান নুরুন্নবী চৌধুরী খোকন, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান আছলাম সওদাগর, শিল্পপতি গোলাম মোস্তফা, মোজাম্মেল হক প্রধান, বীর মুক্তিযোদ্ধা আক্তারুজ্জামান মন্ডল, বীর মুক্তিযোদ্ধা ওসমান গণি, ডা. উজ্জ্বল, মাজহারুল ইসলাম, গোলাম হোসেন ও লাভলী বেগম।

কুড়িগ্রাম-২ আসন থেকে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আমিনুল ইসলাম মঞ্জু মন্ডল, সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদ সদস্য মো. জাফর আলী, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সম্পাদক ও সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আমান উদ্দিন আহমেদ মঞ্জু, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সম্পাদক ও সাবেক রাকসু নেতা অ্যাডভোকেট এস.এম আব্রাহাম লিংকন, মেজর জেনারেল (অব.) আ ম সা আ আমিন, ঢাকা পঙ্গু হাসপাতালের সাবেক পরিচালক ডা. হামিদুল হক খন্দকার, জেলা যুবলীগের আহ্বায়ক অ্যাডভোকেট রুহুল আমিন দুলাল, জেলা পরিষদ সদস্য মাহবুবা আক্তার লাভলী, শাহানা পারভীন এবং জেলা আওয়ামী লীগের বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক আবু সুফিয়ান।

কুড়িগ্রাম-৩ আসন থেকে উলিপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মতি শিউলী, সাধারণ সম্পাদক গোলাম হোসেন মন্টু, হাবিবুল হক সরকার ফুলু সরকার, উলিপুর উপজেলা বঙ্গবন্ধু পরিষদের সভাপতি অধ্যাপক এম.এ আব্দুল মতিন, মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্ম লীগ কেন্দ্রীয় উপ-কমিটির সদস্য সাজাদুর রহমান তালুকদার সাজু, ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি আব্দুর রহিম ভুঁইয়া ও জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য অধ্যক্ষ আহসান হাবীব রানা, কুড়িগ্রাম প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ও যুবলীগ নেতা আতাউর রহমান বিপ্লব মনোনয়নপত্র নিয়েছেন।

কুড়িগ্রাম-৪ আসন থেকে মনোনয়নপত্র নিয়েছেন রৌমারী উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক সংসদ সদস্য জাকির হোসেন, সাধারণ সম্পাদক রেজাউল ইসলাম মিনু, চিলমারী উপজেলা চেয়ারম্যান শওকত আলী সরকার বীর বিক্রম, রাজিবপুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান শফিউল আলম, হাইকোর্টের আইনজীবী অ্যাডভোকেট জাহাঙ্গীর আলম, রৌমারী যুবলীগের সভাপতি হারুন অর রশীদ, সাধারণ সম্পাদক জাহিদুল ইসলাম মিনু, জেলা যুব মহিলা লীগের সভাপতি মারশাদ আক্তার খুকী, মুরাদ লতিফ, বিপ্লব হাসান পলাশ, অ্যাডভোকেট মাছুম ইকবাল, সাইফুল ইসলাম, শিল্পী বেগম, সাইদুর রহমান সোহেল, আজিম মাস্টার, নুরুজ্জামান আজাদ, আব্দুল খালেক, রৌমারী সদর ইউপি চেয়ারম্যান শহিদুজ্জামান শালু, অ্যাডভোকেট আতা, ফজলুল হক, আবু হোরায়রা, আব্দুর রহিমসহ ৩০জন।

পাঠকের মন্তব্য