বাংলাদেশ কী আন্তর্জাতিক অপরাধীদের নিরাপদ আশ্রয়স্থল ?

গত এক বছরে বিভিন্ন অপরাধের সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে  প্রায় চার শতাধিক বিদেশি নাগরিককে গ্রেপ্তার করে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। বাংলাদেশে থাকা বিদেশি নাগরিক বিশেষ করে আফ্রিকান নাগরিকদের বেশিরভাগেরই থাকে না ভিসা বা পাসপোর্ট। পড়ালেখা, খেলাধুলা ও ভ্রমণের জন্য ভিসা নিয়ে এদেশে এসে জড়িয়ে পড়ছে বিভিন্ন অপরাধের সাথে।

৫ অক্টোবর রাজধানীর উত্তরায় খুন করা হয় স্কুলছাত্র জুবায়ের। এই ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে গ্রেপ্তার করা হয় আলজেরিয়ান নাগরিক ওবায়েদ কাদেরকে। গত বছর ২৩ ডিসেম্বর অবৈধ ভিওআইপি ব্যবসার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে ৩৭ জন চীন ও তাইওয়ানের নাগরিককে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব। এর আগে ১১ সেপ্টেম্বর জাল ডলার ও ডলার তৈরির সরঞ্জামসহ ৩ নাইজেরিয়ানকে গ্রেপ্তার করে গোয়েন্দা পুলিশ ।

সর্বশেষ শুক্রবার গ্রেপ্তার হয় নাইজেরিয়া, গাম্বিয়া, উগান্ডার নাগরিকসহ বিভিন্ন দেশের ৩১ জন। পুলিশ জানায়, পড়ালেখা, খেলাধুলা ও ভ্রমণের জন্য ভিসা নিয়ে এদেশে এসে আর ফিরছেন না এসব বিদেশি নাগরিক। এরপর জড়িয়ে পড়ছে বিভিন্ন অপরাধ কর্মকান্ডের সাথে।

বিদেশিদের বাড়ি ভাড়া দেয়ায় আগে তার পাসপোর্ট, ভিসার মেয়াদ ইত্যাদি বিষয় সতর্কতার সাথে পরীক্ষা করা পরামর্শ দিয়েছে পুলিশ।

অবৈধভাবে বসবাস ও বিভিন্ন অপরাধের সাথে জড়িত বিদেশি নাগরিকদের বিরুদ্ধে কেবল রাজধানীতেই না, সারাদেশেই অভিযান চলবে বলে জানিয়েছে পুলিশ। তবে কী বাংলাদেশ আন্তর্জাতিক অপরাধীদের নিরাপদ আশ্রয়স্থল ?

 

পাঠকের মন্তব্য