শ্বশুরবাড়ি নয়, পৈত্রিক ভিটে থেকেই নির্বাচনে লড়বেন শেখ হাসিনা

শ্বশুরবাড়ি ছেড়ে এবার নিজের পৈত্রিক বাড়ির পথে পা বাড়ালেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা৷ তবে পারিবারিক কারণে নয়, আসন্ন জাতীয় নির্বাচনে জয়ের লক্ষ্যে কেন্দ্র বদল করছেন হাসিনা৷ নিজের পৈত্রিক ভিটে গোপালগঞ্জ কেন্দ্র থেকে নির্বাচনে লড়াই করবেন তিনি৷

২০১৪ সালের নির্বাচনে আওয়ামী লিগ সভাপতি তথা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দুটি কেন্দ্র থেকে লড়াই করেন৷ এবার একটি আসনেই লড়তে চান হাসিনা৷ আর সেই কারণেই রংপুর-৬ শ্বশুরবাড়ির আসনটি স্পিকার শিরিন শারমিন চৌধুরীকে ছেড়ে দিয়েছেন হাসিনা৷ রংপুরের আসনটি ছেড়ে দেওয়ার কারণে  শেখ হাসিনার কাছে রয়েছে পৈত্রিক ভিটে গোপালগঞ্জ-৩ আসনটি৷ টুঙ্গিপাড়া ও কোটালিপাড়া নিয়ে গঠিত এই আসনে প্রথম থেকে নির্বাচিত হয়ে আসছেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কন্যা৷

অন্যদিকে, জাতীয় সংসদ নির্বাচনে শাসকদল আওয়ামী লিগ সংসদে ৩০০টি আসনের মধ্যে নিজেদের জন্য ২৪০টি আসন দখলে রেখেছে৷ একই সঙ্গে ছয় শরিক দলের মোট ১৬ জন প্রার্থীর মনোনয়ন চূড়ান্ত করেছেন হাসিনা৷ জোট শরিকদের জন্য ৫৫ থেকে ৬০টি আসনও ছেড়ে দেওয়া হয়েছে শাসক দলের তরফে৷ এর মধ্যে শরিক জাতীয় পার্টি পাচ্ছে ৪০ থেকে ৪২টি আসন। ওয়ার্কার্স পার্টি পেয়েছে ৫, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল পেয়েছে তিনটি, তরিকত ফেডারেশন পেয়েছে দুটি আসন৷ একইসঙ্গে যুক্তফ্রন্টকে তিনটি আসন ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। 

জাতীয় পার্টি (জাপা) তাদের নিজস্ব লাঙল প্রতীক নিয়ে নির্বাচনে নেমেছে৷ রাজধানী ঢাকা আসনে আওয়ামী লিগের টিকিটে ভোটে লড়ছেন অভিনেতা আকবর হোসেন পাঠান ফারুক৷

অন্যদিকে, শরিকদের সঙ্গে আসন বণ্টন নিয়ে জেরবার খালেদা জিয়ার বিএনপি৷ এবার ২০টি দলকে নিয়ে জাতীয় ঐক্য ফ্রন্ট গঠন করেছে বিএনপি৷ অভিযোগ, আসন বণ্টন নিয়ে জোটসঙ্গীদের সঙ্গে বনিবনা না হওয়ায় জোট প্রায় ভাঙার পথে৷ কোনওক্রমে প্রার্থীপদ ঘোষণা করা হলেও অখুশি জোটসঙ্গীরা৷

পাঠকের মন্তব্য