৫০ মহিলাকে ধর্ষণ ! মোবাইলে ভিডিও দেখে চোখ কপালে পুলিশের

মোবাইলে ৫০টির বেশি ধর্ষণের ভিডিও। চেন্নাই থেকে গ্রেপ্তার করা হল ধর্ষককে। শুক্রবার বিকেল চারটে নাগাদ চেন্নাই থেকে এই ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। তার মোবাইল থেকে প্রায় ৫০টি ভিডিও পাওয়া গিয়েছে। যদিও কোনও মহিলার অভিযোগ পায়নি পুলিশ। জানা গিয়েছে, এই ভিডিও ছড়িয়ে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে ব্ল্যাকমেল করত ওই ব্যক্তি। পুলিশ মোবাইলটি বাজেয়াপ্ত করেছে। জিজ্ঞাসাবাদ চলছে।

রাস্তায় মোটরবাইকের কাগজ নিয়ে গন্ডগোলের সূত্রপাত হয়। তখন ওই ব্যক্তি বুঝতেই পারেনি, তার অপরাধ সামনে চলে আসতে পারে। গাড়ির কাগজ দেখাতে না পারায় তাকে আটক করে চেন্নাই ট্রাফিক পুলিশ। গাড়ির কাগজের সঙ্গে আইডেন্টিটি না মেলায় সমস্যা বাড়ে। কথাবার্তা অসংলগ্ন হওয়ায় সন্দেহ শুরু হয় পুলিশের। কোনও সঠিক উত্তর দিতে না পারায় পুলিশ তার ফোন পরীক্ষা করে। তখনই মোবাইল থেকে ৫০টি ভিডিও খুঁজে পায় পুলিশ। যেখানে একাধিক মহিলাকে ধর্ষণের ভিডিও দেখা যায় তার মোবাইলে। সঙ্গে সঙ্গে ওই ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করে কীভাবে এই অপরাধ সংগঠিত করত সে। জেরায় তা স্বীকার করে নিয়েছে এই ব্যক্তি। পুলিশ ঘটনাটির গভীরে গিয়ে তদন্ত শুরু করেছে।

পুলিশ সূত্রে খবর, মহিলাদের একা থাকার সুযোগে বাড়িতে প্রবেশ করত এই ব্যক্তি। তারপর ধর্ষণ করত ও তা মোবাইলে রেকর্ড করে রাখত। পরবর্তীকালে ওই ভিডিওর ভয় দেখিয়ে ব্ল্যাকমেল করত। এখনও তার নামে কোনও সঠিক অভিযোগ পাওয়া যায়নি। তবে পুলিশ রেকর্ড অনুযায়ী, একবার একটি অভিযোগ জমা পড়েছিল। কিন্তু সেই মামলা এত পোক্ত না হওয়ায় তিনমাসের মধ্যে জামিন পেয়ে যায় এই ব্যক্তি।

পাঠকের মন্তব্য