ময়মনসিংহের ফুলপুরে নৌকা সমর্থকদের উপর হামলার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন

ময়মনসিংহের ফুলপুর বাসস্ট্যান্ড এলাকায় মঙ্গলবারের আওয়ামীলীগ-বিএনপির সহিংসতাকে কেন্দ্র করে উপজেলার বিএনপি-জামাতের ২৯৫ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত আরো ৩ শতাধিক নেতাকর্মীর উপর মামলা হয়েছে। নৌকার সমর্থকদের উপরে হামলা ও ভাঙচুরের প্রতিবাদে ফুলপুর উপজেলা আওয়ামীলীগ অফিসে বুধবার বেলা আড়াইটায় এক সংবাদ সম্মেলনে মহাজোটের প্রার্থী বর্তমান সংসদ সদস্য শরীফ আহমেদের পক্ষে ফুলপুর উপজেলা আওয়ামীলীগ নেতৃবৃন্দ জানান, মঙ্গলবার বিএনপি মনোনীত প্রার্থী শাহ শহীদ সারোয়ারের কর্মী সমর্থকরা বিনা উস্কানিতে ফুলপুর শিক্ষক সমিতির কার্যালয়ে যুবলীগের এক কর্মী সভায় হামলা চালিয়ে বেশ কয়েকজন নেতা-কর্মীকে আহত করে। 

এখানে আমাদের প্রার্থী শরীফ আহমেদ উপস্থিত ছিলেন। তারা তাকে লক্ষ্য করেও ইট পাটকেল নিক্ষেপ করে। আমরা প্রতিহত করতে চাইলে পরবর্তীতে ধানের শীষের প্রার্থীর অফিস থেকে কয়েকশ লোক লাঠি সোটা নিয়ে দ্বিতীয় দফায় হামলা চালায়। তখন শেরপুর রোডে জেলা আওয়ামীলীগ নেতা শাহ কুতুব চৌধুরীর চেম্বারসহ বিভিন্ন স্থানে হামলা চালায়। এতে আমাদের কর্মীদের বেশ কয়েকটি মোটর সাইকেল ভাঙচুর করা হয়। এ সময় আরো কয়েকজন কর্মীকে আহত করা হয়। এমনকি তারা ককটেলেরও বিস্ফোরন ঘটিয়েছে। আজ বুধবার সকালেও বওলা অামাদের কর্মী রাশিদ মেম্বার ও তার ছেলে খোকনের উপর হামলা করেছিল তারা। নেতৃবৃন্দ আরও বলেন বিএনপি নির্বাচনের পরিবেশ নষ্ট করতে নৌকা সমর্থকদের উপর হামলা চালিয়েছে।

আমরা এ ব্যাপারে ফুলপুর থানায় মামলা করেছি। অবিলম্বে আসামিদের গ্রেফতার ও ঘটনার সুষ্ঠু বিচার দাবি করছি। সেইসাথে এ ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি। সাংবাদিক সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন, জেলা আওয়ামীলীগ সদস্য শাহ কুতুব চৌধুরী, উপজেলা আওয়ামীলীগের সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক এম এ হাকিম সরকার ও উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মোহাম্মদ হাবিবুর রহমান। এ সময় সাবেক মেয়র মো. শাহজাহান, আওয়ামীলীগ নেতা শশধর সেন, আতাউল করিম রাসেল প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

পাঠকের মন্তব্য