সাদুল্যাপুরে পুলিশের উপর হামলার ঘটনায় আহত আটক ১২ 

গাইবান্ধার সাদুল্যাপুরে সড়ক দুর্ঘটনাকে কেন্দ্র করে হামলার ঘটনায় আহত হয়েছেন ২ পুলিশ সদস্য। এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে ১২ জনকে আটক করেছে পুলিশ।
বিভিন্ন সূত্রে জানা যায়, শনিবার সকাল পর্যন্ত এদেরকে গ্রেফতার করা হয়।

এরআগে গত বৃহস্পতিবার রাতে উপজেলার জামালপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান নুরুজ্জামান মন্ডলের মোটরসাইকেলের ধাক্কা খেয়ে পার্শবর্তী তরফবাজীত গ্রামের মৃত মকর উদ্দিনের স্ত্রী রেনু বেগম (৭০) নাম বৃদ্ধা গুরুতর আহত হন। এসময় আশপাশের লোকজন চেয়ারম্যানকে লাঞ্চিত করেন।  খবর পেয়ে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করার চেষ্টা করেন। এতে পুলিশের উপর হামলা চালান স্থানীয়রা। এতে থানার এএসআই হেলাল উদ্দিন ও কনস্টেবল আব্দুল কাফী আহত হন। আহত বৃদ্ধা ও পুলিশ সদস্যরা বিভিন্ন স্থানে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে ১২ জনকে আটক করেছে পুলিশ। এরপর বিক্ষুদ্ধ জনতা থানার সামনে ও চারমাথা মোড়ে অবস্থান নিলে পুলিশ তাদের সরিয়ে দিয়ে যে কোন ধরণের অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে শহরে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েনসহ ১৪৪ ধারা জারী করেছে পুলিশ। চেয়ারম্যান নুরুজ্জামান মন্ডল জানান, ঘটনার পর আহত বৃদ্ধাকে গাইবান্ধা সদর হাসপাতালে পাঠানোর চেষ্টাকালে আমার উপর স্থানীয়রা উত্তেজিত হয়ে লাঞ্চিত করে। পুলিশ এসে তাদেরকে সরিয়ে দেয়ার চেষ্টা করে।

এতে তারা পুলিশের প্রতিও হামলা হামলা চালায়। তিনি জানান, প্রতিপক্ষ সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান রেজাউল করিম রেজা ও তার পক্ষের লোকজন এ ঘটনা ঘটিয়েছে। সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান রেজাউল করিম রেজা জানান, ঘটনার সময় তিনি ছিলেন না।  থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি)- আরশেদুল হক বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, হামলার ঘটনায় পুলিশের এএসআই হেলাল উদ্দিন ও কনস্টেবল আঃ কাফী আহত হয়েছেন। তাদের মধ্যে কাফীর দু’টি দাঁত ভেঙে গেছে। তাদের উদ্ধার করে সাদুল্যাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপে¬ক্সে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় আটককৃতদের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

পাঠকের মন্তব্য