সব ঋতুতে উজ্জ্বল ত্বক চাই ? করলার উপকারিতা

করলা। না দেখতে আকর্ষণীয় আর না খেতে। পাতে এই সবজিটি দেখলে নাক সিঁটকোয় অনেকেই। কিন্তু করলার গুণাগুণ জানলে কষ্ট হলেও একে ভালবেসে ফেলবেন। করলার রস কিন্তু খাবারের মেনুতে করলাকে রাখুন। পার্থক্যটা নিজেই বুঝবেন। ত্বক উজ্জ্বল ও আকর্ষণীয় করে তুলতে এর জুড়ি মেলা ভার। চলুন জেনে নেওয়া যাক এর কয়েকটি উপকারিতা।

১. বয়সকে শুধু সংখ্যা হিসেবে ক্যালেন্ডারেই রাখতে চান? চেষ্টা করেন চেহারায় সে যেন থাবা না বসাতে পারে? আপনি একা নন, এমন ইচ্ছা তো সকলেই হয়। কিন্তু চোখের কোণে, চামড়ার ভাঁজে উঁকি দেয় বয়সের ছাপ। তবে বয়সকে দূরে সরিয়ে রাখার মোক্ষম ওষধু করলা। কারণ এতে প্রচুর পরিমাণ ভিটামিন সি থাকে। যার ফলে চামড়া সহজে কুঁচকায় না। চামড়ায় ভাঁজ পড়ে না। কিছুই না, রোজ করলা সিদ্ধ করে তাতে খানিকটা লেবু আর নুন ছিটিয়ে খান। আর যৌবন ধরে রাখুন।

২. নিয়মিত করলা রক্তের মধ্যে থাকা ক্ষতিকর পদার্থ মেরে ফেলে রক্তকে পরিষ্কার রাখে। আর রক্ত পরিষ্কার হলে আপনার ত্বকও থাকে পরিষ্কার ও উজ্জ্বল। তাই ত্বকে জেল্লা ধরে রাখতে বড় ভূমিকা রয়েছে করলার।

৩. একটা গ্লাসে দুই টেবিল চামচ করলার রস এবং দুই টেবিল চামচ কমলা লেবুর রস মিশিয়ে নিন। দাঁড়ান, দাঁড়ান। খেয়ে ফেলবেন না। তুলোয় ভিজিয়ে সেই রস দিয়ে নিজের মুখমণ্ডলখানি ভালভাবে পরিষ্কার করুন। মুখ শুকনো হয়ে গেলে জল দিয়ে ভাল করে মুখ ধুয়ে নিন। এরপর আয়নার সামনে দাঁড়ালে তফাতটা নিজেই বুঝতে পারবেন। মুখ উজ্জ্বল করার নামী-দামি ব্র্যান্ডেড ক্রিমগুলি ড্রেসিং টেবিল থেকে সরিয়ে ফেলতে বাধ্য হবেন। 

৪. আপনার ত্বক কি খুব স্পর্শকাতর? মাঝেমধ্যেই ব্রণ, ব়্যাশ হতে থাকে? তবে বাজারের কেমিক্যাল মেশানো ক্রিম এড়িয়ে চলাই বুদ্ধিমানের কাজ হবে। তার চেয়ে বরং এক গ্লাস করলার রস খেয়ে ফেলুন। অতিরিক্ত তিক্ত মনে হলে সঙ্গে পছন্দের কোনও সবজিও বেছে নিন। ত্বকের সমস্যা দূর হতে বাধ্য।

৫. অনলাইনে তো নানা ধরনের ফেশিয়াল কিট, ক্রিম, ফাউন্ডেশন অর্ডার দেন। ওসব ছেড়ে করলার একটি ফেসপ্যাক পাওয়া যায়, সেটি অর্ডার দিয়ে ফেলুন। অন্তত একবার ট্রাই করে দেখুন এই ফেসপ্যাকটি। উপকৃত হবেনই। তবে যদি বাজারি ফেসবুক কিনতে না চান তবে বাড়িতে সহজেই বানিয়ে ফেলুন প্যাকটি। প্রথমে একটা করলা সিদ্ধ করে নিন। এরপর বীজগুলি সরিয়ে তা মিক্সারে বেটে নিন। ব্যস, ফেসপ্যাক তৈরি। চোখ বাঁচিয়ে মুখে করলার প্রলেপ দিন। প্যাকটি শুকিয়ে গেলে জল দিয়ে ধুয়ে নিন। সপ্তাহে একবার করে এই ফেসপ্যাক ব্যবহার করলেই বন্ধুমহলে আকর্ষণের কেন্দ্রবিন্দু হয়ে উঠবেন আপনিই।

পাঠকের মন্তব্য