ধামরাইয়ে অপহরেন ৩ দিন পর মিলল শিশুর গলিত লাশ

মোঃ রওনক খান মজলিশ : গত ২৬ জানুয়ারি থেকে ধামরাইয়ের আশুলিয়া গ্রামের এক শিশু নিখোঁজ ছিল। শিশুটির নাম মোঃ মনির হোসেন (কালা) তার পিতার নাম মোঃ সোনা মিয়া ২৬ জানুয়ারি সন্ধ্যা ৫:২৫ মিনিট সময়ে নিজ গ্রাম থেকে হারিয়ে যায়। 

অতঃপর তাকে আর পাওয়া যায়নি। আজ মঙ্গলবার (২৯ জানুয়ারী) সকাল ১০ ঘটিকার সময় ধামরাই ভাড়ারিয়া ইউনিয়নের ছোট আশুলিয়া গ্রাম থেকে শিশুটির লাশ উদ্ধার করা হয়।পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, গত ২৬ জানুয়ারি শিশু মনিরকে তার বাড়ির পাশে খেলার সময় নেশাযুক্ত বিস্কুট খাইয়ে অপহরণ করা হয়। এরপর তার পিতার কাছে দশ লক্ষ টাকা মুক্তিপন চায় অপহরণকারীরা। শিশুর পিতা ধামরাই থানায় বিষয়টি জানালে পুলিশ তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে তদন্তে নামে। তবে পুলিশের শত চেষ্টা পরেও শিশুটিকে জীবিত উদ্ধার করতে সম্ভব হয়নি। 

এই ব্যাপারে ৩ জনকে আসামী করে ধামরাই থানায় একটি মামলা করা হয়েছে। তদের মধ্যে পুলিশ এপর্যন্ত দুইজনকে আটক করতে সক্ষম হয়েছে, 

১। মানসুর (৩৫) পিতা-আাব্দুল হামিদ, সাং-কুল্লা ইউনিয়ন। ২।মাজেদুল (২৫) পিতা-আবুল হোসেন,সাং-ছোট আশুলিয়া। এই মামলার ৩নং আসামি রাব্বি(২৭), পিতা-মিশু এখন পলাতক রয়েছে। 

শিশু মনিরের সম্পর্কে ধামরাই থানার ওসি দিপক চন্দ্র সাহা বলেন, প্রাথমিক প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে বিস্কুটে নেশাজাতীয় দ্রব্যের পরিমাণ মাত্রাতিরিক্ত থাকায় শিশুটির মৃত্যু হয়। এরপরে অপহরণকারীরা শিশুটির লাশ ছোট আশুলিয়া গ্রামের মিশুর বাড়ীর গোয়াল ঘরের পাশে পুকুর পারের মাটিতে গর্ত করে চাপা দেয়। তবে লাশের ময়না তদন্ত রিপোর্ট এলেই বিস্তারিত জানা যাবে বলে জানান এই ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা।

পাঠকের মন্তব্য