পারফরম্যান্সে’ই ভিক্টোরিয়ান্সের বাজিমাত

আরও একটি জয়ের দেখা পেলো কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। মঙ্গলবার (২৯ জানুয়ারি) দিনের প্রথম ম্যাচ শেষে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে সবচেয়ে ভালো অবস্থানে আছে ইমরুল কায়েসের নেতৃত্বাধীন দলটি। এখন পর্যন্ত ১০টি ম্যাচ খেলে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স জয় পেয়েছে ৭টি ম্যাচেই। কুমিল্লার সমান সংখ্যক ম্যাচ খেলা কোনো দলই এতগুলো জয়ের দেখা পায়নি। ম্যাচ শেষে দলের খেলোয়াড়রা জানান, দলীয় পারফরম্যান্সের সুবাদেই এই সাফল্যের দেখা পাচ্ছেন তারা।

ডাকওয়ার্থ লুইস পদ্ধতিতে স্বাগতিক চিটাগং ভাইকিংসকে ৭ উইকেটে হারানোর ম্যাচ শেষে পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে আনুষ্ঠানিক আলাপচারিতায় কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের অধিনায়ক ইমরুল কায়েস বলেন, ‘দল ভালো করায় আমি অনেক খুশি। আমাদের বোলিং বিভাগ আজ দুর্দান্ত ছিল।’

তিনি মনে করেন, দলের সবার মিলিত প্রয়াসেই জয়ের পথে রয়েছে তার দল। ইমরুল বলেন- ‘সবাই দারুণ একটি দিন কাটিয়েছে। পুরোটাই ছিল দলীয় পারফরম্যান্সের অবদান।’

স্বাগতিকদের মাঠে জয় পাওয়া চাট্টিখানি কথা নয়। তার চেয়েও বড় কথা, এই ম্যাচে ভিক্টোরিয়ান্সের কাছে পাত্তা না পাওয়া চিটাগং ভাইকিংস কয়দিন আগেও ছিল দারুণ ফর্মে। ৪ ওভার বল করে মাত্র ১০ রানের খরচায় ২ উইকেট শিকার করে ম্যান অব দ্যা ম্যাচের খেতাব পাওয়া পাকিস্তানি ক্রিকেটার শহীদ আফ্রিদিও মনে করেন, দলীয় পারফরম্যান্সের ভিত্তিতেই পয়েন্ট তালিকার শীর্ষে উঠেছেন তারা। একইসাথে এই পারফরম্যান্স ধরে রাখার উপরও গুরুত্ব আরোপ করেছেন বিপিএলে কুমিল্লার হয়ে খেলা এই অলরাউন্ডার।

আফ্রিদি বলেন- ‘আমরা একটি দল হিসেবে পারফর্ম করছি- এটি বেশ গুরুত্বপূর্ণ। ভালো খেলতে হলে আমাদের পারফরম্যান্সের ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে হবে।’

আফ্রিদির লেগ স্পিন এবার বেশ কাজে লাগছে কুমিল্লার। তাকে মোকাবেলা করতে রীতিমত গলদঘর্ম হতে হচ্ছে প্রতিপক্ষ ব্যাটসম্যানদের। নিজের পারফরম্যান্স ও সামর্থ্যের প্রসঙ্গে আফ্রিদির ভাষ্য, ‘আপনাকে স্কিলফুল হতে হবে। লেগ স্পিন, গুগলি ও ফ্লিপারে পারদর্শী হলে এটি সহায়তা করবে।’

পাঠকের মন্তব্য