দ্বিতীয় ওয়ানডে শুরু শনিবার 

প্রথম ওয়ানডেতে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ব্যাটিং-বোলিং দুই বিভাগেই ন্যূনতম প্রতিরোধ গড়তে পারেনি বাংলাদেশ। কিউইদের বিপক্ষে সফরকারী দলগুলোর জন্য সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ কন্ডিশন। কিন্তু মাত্র একটি প্রস্তুতি ম্যাচ সম্বল করে দেশ ছাড়ার চারদিনের মধ্যে নিউজিল্যান্ডের মাঠে খেলতে নামাটাই আত্মহত্যার শামিল। 

প্রথম ম্যাচে ৮ উইকেটের ব্যবধানে হারের পর কন্ডিশনের সঙ্গে মানিয়ে নেয়ার চ্যালেঞ্জের কথা বলেন বাংলাদেশ অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজাও। এমনই অবস্থায় তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজে ক্রাইস্টচার্চে দ্বিতীয় ম্যাচ খেলতে নামছে বাংলাদেশ। এ ম্যাচে মাশরাফিরা হারলেই এক ম্যাচ হাতে রেখেই সিরিজ নিজেদের করে নেবে নিউজিল্যান্ড। ম্যাচটি শুরু হবে শনিবার বাংলাদেশ সময় ভোর ৪টায়।

ক্রাইস্টচার্চ স্বাগতিকদের জন্য সবসময়ই পয়মন্ত। এ মাঠে নিউজিল্যান্ড এক হারের বিপরীতে জিতেছে আট ম্যাচে। ২০১৭ সালে এ মাঠে কিউইদের বিপক্ষে ৭৭ রানে হেরেছিল বাংলাদেশ। ওই হারা ম্যাচে হাফ সেঞ্চুরি করেছিলেন সাকিব আল হাসান ও মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত। এবার দুজনই স্কোয়াডে নেই। ইনজুরির কারণে সাকিব নেই, আর স্কোয়াডভুক্ত হননি মোসাদ্দেক।

এবারের সফরে প্রথম ম্যাচে সফরকারীদের প্রাপ্তি বলতে মোহাম্মদ মিঠুন (৯০ বলে ৬২) আর অলরাউন্ডার মোহাম্মদ সাইফউদ্দিনের (৫৮ বলে ৪১) ব্যাটিং। টপ অর্ডারের চরম ধসের মুখে অষ্টম উইকেটে ৮৪ রানের রেকর্ড জুটি গড়েন দুজনে। ম্যাচে একটা সময়ে বাংলাদেশের স্কোরবোর্ডে ছিল ৯৪/৬। আর তাই আগামীকালের দ্বিতীয় ম্যাচে টপ অর্ডারের মূল স্তম্ভ তামিম ইকবাল, লিটন দাস, সৌম্য সরকার ও মুশফিকুর রহিমদের রানে ফেরার পরীক্ষা।

সিরিজে সম্ভাবনা ধরে রাখার জন্য ম্যাচটি যে খুবই গুরুত্বপূর্ণ, তা ভালোভাবেই অনুধাবন করছেন উইকেটরক্ষক মুশফিক। গতকাল তার অফিশিয়াল ফেসবুক অ্যাকাউন্টে এক পোস্টে লিখেছেন, ‘কন্ডিশন কঠিন, কিন্তু আমরা দ্বিতীয় ম্যাচে লড়াই করার জন্য প্রস্তুতি নিয়েছি।’

এদিকে গতকাল নেপিয়ার থেকে ৭৫০ কিলোমিটারেরও বেশি দূরে দ্বিতীয় ম্যাচের ভেনু ক্রাইস্টচার্চ স্টেডিয়ামের কাছেই একটি হোটেলে উঠেছে মাশরাফি বাহিনী। নেপিয়ারের মতো এটিও সাগরপাড় ঘেঁষা সবুজ ভেনু। আজ ম্যাচ ভেনুতে একদিনের অনুশীলনের সুবিধা নেবে স্টিভ রোডসের শিষ্যরা। নেপিয়ারে প্রথম ম্যাচ হারের পর এক প্রতিক্রিয়ায় অধিনায়ক মাশরাফি বলেছিলেন, ‘এ কন্ডিশনে এক সপ্তাহ আগে এসে প্রস্তুতি নিতে পারলে দলের জন্য ভালো হতো। তবে এটিকে এখন আর অজুহাত হিসেবে নিতে চাই না। এখন আমাদের দলের ব্যাটিংয়ে উন্নতির দিকে চোখ রাখতে হচ্ছে। আশা করি, এবার ব্যাটসম্যানরা আরো দায়িত্বশীলতার সঙ্গে ব্যাট করবে।’

এদিকে স্বাগতিক দলে বল হাতে গতির ঝড় তোলার অপেক্ষায় আছেন কিউই স্পিড স্টার ট্রেন্ট বোল্ট। এ মাঠে উইকেট শিকারে শীর্ষে রয়েছেন অভিজ্ঞ এ পেসার। সাত ম্যাচে তার শিকার ১৬ উইকেট। সেরা বোলিং ফিগার ৩৪ রানে ৭ উইকেট। ২০১৭ সালে এ মাঠেই ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে এক ম্যাচে সাত উইকেট নেয়ার কৃতিত্ব দেখান এ কিউই ফাস্ট বোলার। অবশ্য প্রথম ম্যাচে পেসার ম্যাট হেনরি, লকি  ফার্গুসন ও স্পিনার মিচেল স্যান্টনার ভালোই ভুগিয়েছেন বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানদের।

নেপিয়ারে প্রথম ম্যাচে হারে নিউজিল্যান্ডের মাটিতে ১১ ওয়ানডেতেই হারের স্বাদ পেল বাংলাদেশ। কিউই সফরের দুঃস্বপ্ন থেকে বেরিয়ে আসার চ্যালেঞ্জ মাশরাফি বাহিনী কীভাবে নেয়, সেটিই এখন দেখার ব্যাপার

পাঠকের মন্তব্য