গলাচিপায় গাছ কাটায় ১২ জনের বিরুদ্ধে মামলা

জসিম উদ্দিন : পটুয়াখালীর গলাচিপায় ক্রয় করা জমিতে গাছ লাগালে প্রতিপক্ষরা জোরপূর্বক ১০০ চারা গাছ কেটে ফেলায় মোসাঃ রেবা বেগম (৪৫) বাদী হয়ে গলাচিপা সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে ১২ জনকে আসামী করে মামলা দায়ের করেন। 

আসামীরা হলেন- বশার খাঁ, শহিদুল খাঁ, রবিউল প্যাদা, জলিল প্যাদা,নজরুল প্যাদা, রেজাউল প্যাদা, ফিরোজ প্যাদা , ফেরদৌস, সুজন প্যাদা, সজিব প্যাদা, কবির প্যাদা, দেলোয়ার প্যাদা সি আর মামলা নং ৬০/২০১৯ । বিজ্ঞ আদালত মামলাটি আমলে নিয়ে পটুয়াখালী জেলার সি আই ডি কে তদন্ত করে প্রতিবেদন দেয়ার নির্দেশ দেন। 

মামলা সূত্রে জানা যায় গত ২০/০১/২০১৯ তারিখ রোজ রবিবার সকাল আনুমানিক ৬ টার দিকে পূর্ব শত্রæতার জের ধরে রেবা বেগমের ক্রয় করা জমিতে ্আসামীরা প্রায় ১০০ বিভিন্ন প্রজাতির গাছের চারা কেটে ফেলে। যার আনুমানিক মূল্য ৮০ হাজার টাকা। রেবা বেগম প্রতিবেদককে জানান, আসামীরা আমার জায়গা দখর করার জন্য আমার ১০০ শত গাছ কেটে ফেলে। আমি আদালতে মামলা করি। মামলা করার পরে ওরা আমার স্বামী ও আমাকে মৃত্যুর ভয় দেখাচ্ছে।আমি আপনাদের মাধ্যমে ওদের সুষ্ঠ বিচার চাই। তিনি আরও বলেন আসামীদের ভয়ে আমি পালিয়ে বেড়াচ্ছি। এ বিষয়ে গোলখালী ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মোঃ মোছলেম প্যাদা ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেণ। ইউপি চেয়ারম্যান নাসির উদ্দিন হাওলাদার মুঠোফোনে বলেন ঘটনাটি আমি শুনেছি দেখব। 

এ বিষয়ে মাননীয় সংসদ সদস্য পটুয়াখালী-৩ গলাচিপা- দশমিনা এমপি মোঃ এস এম শাহজাদার কাছে এ বিষয়ে লিখিত দরখাস্ত করেন রেবা বেগম। বিষয়টি তিনি গলাচিপা থানাকে অবগত করেন।

পাঠকের মন্তব্য