ছবিতে চিহ্নিতরা চোর

ওদেরকে ধরিয়ে দিন

ছবিতে চিহ্নিতরা চোর। তারা পল্টন থানাধীন আল-ইসলাম ওভারসীজ নামে একটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের তালা ভেঙ্গে ৭৮ লক্ষ টাকা চুরি করে নিয়ে যায়। সিসি ক্যামেরার মাধ্যমে তাদের ছবি সংগ্রহ করা হয়েছে। তাদের পরিচয় জানা না থাকায় তাদেরকে গ্রেফতারে পুলিশকে সহায়তা করার জন্য আহ্বান জানানো হয়েছে।

পল্টন থানা সূত্রে জানা যায়, গত ০২ ডিসেম্বর,২০১৮ আব্দুল মুঈন চৌধুরী পল্টন থানায় এসে বাদি হয়ে একটি মামলা দায়ের করেন। মামলায় বলা হয়, তিনি পল্টন মডেল থানাধীন ৭২ নয়াপল্টন অর্চাড ফারুক টাওয়ার ৮ম তলায় আল-ইসলাম ওভারসীজ নামে একটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের জেনারেল ম্যানেজার। উক্ত প্রতিষ্ঠানে কর্মরত সবাই প্রতিদিন সকাল ৯.৩০ টা হতে সন্ধ্যা ৬.৩০ পর্যন্ত অফিসে কাজ করে। প্রতিষ্ঠানটি সিসিটিভি দ্বারা নিয়ন্ত্রিত। গত ০১ ডিসেম্বর,২০১৮ প্রতিদিনের ন্যায় কাজ শেষে অফিসের সবাই চলে যায়। সবাই যাওয়ার পর অফিস তালাবদ্ধ করে বাদি একটি চাবি প্রতিষ্ঠানের চেয়ারম্যানকে বুঝিয়ে দেন এবং আরেকটি চাবি নিজে সঙ্গে করে নিয়ে যান। পরের দিন ০২ ডিসেম্বর,২০১৮ সকাল ৯.১৫ টায় অফিসের পিয়ন অনিক বাদিকে মোবাইলে ফোন করে জানান যে, অফিসের গেটে লাগানো দুইটি তালার একটিও নেই। 

সংবাদ পেয়ে বাদিসহ প্রতিষ্ঠানের এমডি ও সকল কর্মকর্তা/কর্মচারি দ্রুত অফিসে চলে আসেন। অফিসের ভেতরে প্রবেশ করে দেখেন যে, হিসাব শাখার ফাইল ক্যাবিনেটের ড্রয়ার ভাঙ্গা ও খোলা। হিসাব রক্ষকের চেয়ারের উপর একশত টাকা নোটের অনেকগুলো বান্ডিল রাখা। তাছাড়াও অফিসের অন্যান্য শাখার বিভিন্ন টেবিলের ড্রয়ারগুলো ভাঙ্গা অবস্থায় পাওয়া যায়। বাদি তাৎক্ষণিক পল্টন থানায় সংবাদ দেন। সংবাদ পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে যায় পুলিশ। বাদি পুলিশের সামনে অফিসের দৈনিক হিসাব মিলিয়ে দেখেন প্রতিষ্ঠানের হিসাব শাখার ফাইল ক্যাবিনেটের ড্রয়ারে রাখা মোট ৭৮ লক্ষ টাকা নেই।

এরপর উক্ত প্রতিষ্ঠানের সিসিটিভি ক্যামেরায় দেখা যায় যে, গত ০১ ডিসেম্বর,২০১৮ তারিখ দিবাগত রাত ১২.০৯ টা হতে ১২.২৩ টার মধ্যে ছবিতে উল্লেখিত এই ৩ ব্যাক্তি প্রতিষ্ঠানের তালা ভেঙ্গে অফিসে প্রবেশ করে উল্লেখিত টাকা চুরি করে নিয়ে যায়।

উল্লেখিত ব্যাক্তিদের কোন পরিচয় কিংবা সংবাদ পাওয়া গেলে পল্টন মডেল থানায় (ওসি-০১৭১৩-৩৭৩১৫৫) যোগাযোগ করার জন্য অনুরোধ জানানো হয়েছে। তথ্যসুত্র- ডিএমপি নিউজ

পাঠকের মন্তব্য