আমার ব্যাক্তিগত জীবন বিজনেস করার জিনিস না...

সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে খোলামেলা ছবি ও টিকটকে অস্বাভাবিক অঙ্গভঙ্গির ভিডিও ছাড়ার কারণে নবাগত নায়িকা সানাই মাহবুব সুপ্রভাকে সম্প্রতি পুলিশের সাইবার ক্রাইম ইউনিট জিজ্ঞাসাবাদ করে। পরবর্তীতে মুচলেকায় সই করে ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ক্ষমা চেয়ে রেহাই পান তিনি।

এরপর তার বিয়ে নিয়ে আবারও গণমাধ্যমে সংবাদের শিরোনাম হন। তাকে নিয়ে বেশকিছু সংবাদও প্রকাশ। সম্প্রতি  বিভিন্ন গণমাধ্যমের সংবাদ প্রকাশ নিয়েও বেশ ক্ষেপেছেন তিনি। তিনি অভিযোগ করেন তাকে নিয়ে একেকবার একেক সংবাদ প্রকাশ করা হচ্ছে অনলাইন পোর্টালগুলোতে। সংবাদ প্রকাশ নিয়ে সাংবাদিকদের নিয়ে তীব্র সমালোচনা করেছেন।

হুবহু ফেসবুক স্টাটাস তুলে ধরা হলো- 

কিছু কিছু অনলাইন পত্রিকা কে বলছি সবগুলি কে না। 

আমি সাংবাদিক দের ভীষণ সম্মান করি, আমি মনে করি, সাংবাদিকতা একটি অন্যতম পবিত্র পেশা যার মাধ্যমে সমাজের আসল দিক ফুটে উঠে..কিন্তু কিছু কিছু অনলাইন সাংবাদিক আপনারা নিজেরাই নিজেদের নাম খারাপ করেছেন, আপনাদের কেউই বিশ্বাস করে না।

কারণ প্রথম সারির নিউজ সাইট যেমনঃ প্রথম আলো, কালের কন্ঠ, বাংলা নিউজ, জাগোনিউজ, বিডি নিউজ, বাংলাদেশ জার্নাল, বিডি মরনিং, গো নিউজ, বিডি টু ডে, ইত্তেফাক অনলাইন, একাত্তর যোগ, আনন্দ যোগ, মানব জমিন অনলাইন, আর টিভি, ডেইলি পেইজ থ্রি, ডেইলি সান,ডেইলি স্টার, ইত্যাদি ১ম সারির নিউজ অনলাইন গুলো কখনোই কাউকে নিয়ে বিজনেস করবেনা, নিজেদের ভিউয়ার বাড়ানোর জন্য তারা কখনোই কারো ব্যাক্তিগত জীবন নিয়ে বিজনেস কার্ড খেলবে না কারণ তারা অলরেডি শীর্ষ স্থানীয় অনলাইন পত্রিকা হিসেবে স্বীকৃতি প্রাপ্ত। এবং তাদের প্রতি আমার শ্রদ্ধা। আজকে সানাই হওয়ার পিছনে তাদের অন্যতম অবদান যা কখনোই আমি চাইলেও অস্বীকার করতে পারব না।

কিন্তু কিছু কিছু অগাছা অনলাইন সাংবাদিক যাদের ভিউয়ার নাই, মানুষের ব্যাক্তিগত জীবন নিয়ে বিজনেস করে তারাই হাত পা ধুয়ে আমার পিছনে লেগেছে, আরে ভাই কিছু হলে তো আমি নিজেই বলব৷ আপনারা হুমড়া হুমড়ি শুরু করলেই কি নিউজ পাবেন??

আপনারা কারো ব্যাক্তিগত জীবন নিয়ে তার concern ছাড়া নিউজ করতে পারেন না। এই অধিকার কারোরই নেই। আপনারা মানবাধিকার আইন লংঘন করতে পারেন না কারণ আপনারা সাংবাদিক।আপনারা সমাজের প্রতিবিম্ব। দয়া করে এই মহান দায়িত্ব ভিউয়ার বাড়ানোর দুশ্চিন্তায় হেলায় ফেলায় দিবেন না। ধন্যবাদ।

ফেসবুক স্টাটাসঃ লিঙ্ক sanayee mahbob

পাঠকের মন্তব্য