ভুল চিকিৎসার শিকার জাপা চেয়ারম্যান এইচএম এরশাদ

জাতীয় পার্টির মহাসচিব ও জাতীয় সংসদের বিরোধীদলীয় চিফ হুইপ মসিউর রহমান রাঙ্গা বলেছেন, চিকিৎসকদের ভুল চিকিৎসায় এরশাদ গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েছিলেন। এরশাদের ক্যান্সার না হলেও তাকে ক্যান্সারের ওষুধ দেন চিকিৎসকরা। অথচ সিঙ্গাপুরের চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, তার ক্যান্সার হয়নি। ভুল চিকিৎসায় লিভারসহ শারীরিকভাবে গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েছিলেন তিনি।

রোববার দুপুরে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান এইচএম এরশাদের সফরসঙ্গী হিসেবে রংপুরে গিয়ে সাংবাদিকদের কাছে এমন অভিযোগ করেন মসিউর রহমান রাঙ্গা। জাপার মহাসচিব বলেন, এইচএম এরশাদ ভুল চিকিৎসার শিকার হয়ে অসুস্থ হয়ে পড়েছিলেন। ভুল করে তাকে ক্যান্সারের চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। ফলে তার লিভার ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার পাশাপাশি রক্তে হিমোগ্লোবিন কমে গিয়েছিল।

চারদিনের সফরে এখন রংপুরে অবস্থান করছেন এরশাদ। রোববার দুপুরে হেলিকপ্টারযোগে রংপুর সেনানিবাসে পৌঁছান তিনি। এরপর সেনানিবাস থেকে প্রথমে তার নির্মাণাধীন বাসভবন পল্লী নিবাসে যান। সেখান থেকে নগরীর গ্রান্ড প্যালেস হোটেলে ওঠেন তিনি।

সেখানে জাপা নেতাকর্মীরা তাকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান। এ সময় তিনি হুইল চেয়ারে চলাফেরা করেন। কিন্তু উপস্থিত সাংবাদিক ও জাপা নেতাকর্মীদের সঙ্গে কোনো কথা না বলে হোটেলে তার নির্ধারিত কক্ষে চলে যান।

জাপা মহাসচিব মসিউর রহমান রাঙ্গা সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন। তিনি অভিযোগ করে বলেন, জাপা চেয়ারম্যান এরশাদ ভুল চিকিৎসার কারণে গুরুতর অসুস্থ হয়েছেন। তার ভুল চিকিৎসা রিপোর্ট দেয়া হয়। ওই রিপোর্টে ক্যান্সারের কথা উল্লেখ করা হয়। সেই মতে তাকে ক্যান্সারের চিকিৎসা দেয়া হয়। ভুল ওষুধ প্রয়োগের ফলে তার স্বাস্থ্যের অবনতি ঘটে। লিভার ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার ফলে তিনি গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েন। হাঁটা-চলা করতে পারতেন না। পরে তাকে সিঙ্গাপুরে নেয়া হলে ভুল চিকিৎসার বিষয়টি ধরা পড়ে। তবে সিঙ্গাপুরে চিকিৎসা নেয়ার পর তিনি এখন অনেকটা সুস্থ। হুইল চেয়ার ছাড়াও চলাফেরা করতে পারেন তিনি।

রাঙ্গা আরও বলেন, দলের চেয়ারম্যান চিকিৎসা শেষে দেশে ফেরার পর রংপুরে আসার আগ্রহ প্রকাশ করেছিলেন। তাই রংপুরে এসেছেন তিনি। বিএনপির প্রসঙ্গ টেনে তিনি বলেন, বিএনপির এখন অস্তিত্ব নেই। জাপা জাতীয় সংসদে বিরোধী দলের ভূমিকা দায়িত্বশীলতার সঙ্গে পালন করবে।

এ সময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- দলের প্রেসিডিয়াম সদস্য মেজর (অব.) মো. খালেদ আখতার, মহানগর জাপার সভাপতি ও রসিক মেয়র মোস্তাফিজার রহমান মোস্তাফা ও সাধারণ সম্পাদক ইয়াসির আহমেদ প্রমুখ।

পাঠকের মন্তব্য