প্রধানমন্ত্রীর মানহানির দায়ে কিরণকে গ্রেফতার, ফিফার উদ্বেগ

বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের নারী উইংয়ের প্রধান মাহফুজা আক্তার কিরণের গ্রেফতারের ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছে বিশ্ব ফুটবলের নিয়ন্তা সংস্থা ফিফা। মাহফুজা আক্তার কিরণের শারীরিক অবস্থা এবং তার মামলার অগ্রগতির বিষয়ে ফিফার পক্ষ থেকে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের কাছে জানতে চাওয়া হয় বলে নিশ্চিত করেন বাফুফে’র সাধারণ সম্পাদক আবু নাইম সোহাগ। কিরণের বিরুদ্ধে করা মামলার বিষয়ে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন কাজ করছে বলে জানিয়েছেন সোহাগ।

বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নিয়ে মানহানিকর বক্তব্য দেয়ার অভিযোগে মাহফুজা আক্তার কিরণের বিরুদ্ধে গত সপ্তাহে মামলা করা হয়। ১৬ই মার্চ ঢাকার ধানমন্ডি এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয় বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের এই কর্মকর্তাকে।

বাফুফের সাধারণ সম্পাদক আবু নাইম সোহাগ বলেন, যেহেতু উনি আমাদের সংস্থা বাফুফের কার্যনির্বাহী সদস্য, তাই আমাদের মূল উদ্বেগ জামিন নিয়ে। মাহফুজা আক্তার কিরণের সাথে বাফুফে’র নিয়োগ করা উকিল কাজ করছে। গতকাল সোমবার বাফুফে কর্মকর্তাদের কাছে মাহফুজা আক্তার কিরণের বিষয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করে বিশ্ব ফুটবলের নিয়ন্ত্রক সংস্থা ফিফা।

ফিফা মূলত কিরণের জামিনের ব্যাপারে খোঁজ নেয় বাফুফে কর্তৃপক্ষের কাছে। মাহফুজা আক্তার কিরণ একই সাথে ফিফা ও এএফসি’র (এশিয়ান ফুটবল কনফেডারেশন) কাউন্সিলের সদস্য। কিরণের গ্রেফতারে ঘটনায় ফিফা’র পাশাপাশি এশিয়ান ফুটবল কনফেডারেশনও উদ্বেগ প্রকাশ করেছে।

কী বলেছিলেন মাহফুজা আক্তার কিরণ ?

কিছুদিন আগে একটি টেলিভিশন টক শো’তে কিরণ বলেন যে, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ক্রিকেট-পাগল বাংলাদেশে ফুটবলকে অগ্রাহ্য করেন। এই বক্তব্য দেয়ার কারণে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের সাবেক যুগ্ম সম্পাদক আবু হাসান চৌধুরী প্রিন্স মানহানি মামলা করেন কিরণের বিরুদ্ধে।

হাসানের উকিল বলেন, “মাহফুজা টেলিভিশনে বলেন, প্রধানমন্ত্রী ক্রিকেট ও ফুটবলের ক্ষেত্রে দ্বিমুখী ভূমিকা পালন করেন, সে ব্যক্তিগত স্বার্থে ক্রিকেটে পুরষ্কার দেন কিন্তু ফুটবলকে অবহেলা করেন। এই মানহানি মামলায় বলা হয়, এমন ক্রীড়াপ্রেমী প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে এই বক্তব্য গোটা জাতির জন্য লজ্জাজনক।

মানবাধিকার সংস্থার উদ্বেগ : যুক্তরাষ্ট্র ভিত্তিক মানবাধিকার সংস্থা অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল মাহফুজা আক্তার কিরণের গ্রেপ্তারকে অন্যায্য বলে দাবি করে একটি বিবৃতি দিয়েছে। যেখানে কিরণের বক্তব্যের ভিত্তিতে তার বিরুদ্ধে করা মানহানির মামলাকে ‘হাস্যকর’ বলে অভিহিত করেছে অ্যামনেস্টি। সূত্র-বিবিসি।

পাঠকের মন্তব্য