একদলীয় শাসনের জন্য বাংলাদেশ স্বাধীন হয়নি

ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগ কোনদিন এদেশে গণতন্ত্র চায়নি বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আব্দুল মঈন খান।

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ চেয়েছে একদলীয় শাসন। তারা ১৯৭৫ সালে বাকশাল কায়েম করেছিল। বাংলাদেশের মানুষ তা গ্রহণ করেনি। একদলীয় শাসনের জন্য বাংলাদেশ স্বাধীন হয়নি, স্বাধীন হয়েছে বহুদলীয় গণতন্ত্রের জন্য।

আজ (শুক্রবার) সকাল ১১টার দিকে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে এক মানববন্ধনে এসব কথা বলেন বিএনপির এ নেতা। বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি দাবিতে এ মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করে জাতীয়তাবাদী মহিলা দল।

তিনি বলেন, কয়েকদিন আগে শুনলাম বাকশালের মাধ্যমে নাকি গণতন্ত্র হয়। আমার প্রশ্ন পৃথিবীতে যারা রাষ্ট্রবিজ্ঞান বই লিখেছেন, তারা কি সেই বই বাতিল করে নতুন করে বই লিখবেন বাকশালের মাধ্যমে গণতন্ত্র হয়। খালেদা জিয়ার মুক্তি দাবি করে মঈন খান বলেন, তাকে মুক্ত করে দেশে পুনরায় তার নেতৃত্বেই বহুদলীয় গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করা হবে। সে গণতন্ত্র বাকশালী গণতন্ত্র নয়। শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান বাকশাল থেকে এ দেশের মানুষকে গণতন্ত্র ফিরিয়ে দিয়েছিলেন।

সুখি দেশের প্রতিবেদন প্রসঙ্গে তিনি বলেন, জাতিসংঘ একটি রিপোর্টে বিশ্বের সুখী দেশগুলোর তালিকা প্রকাশ করেছে। বলতে লজ্জা হয় বাংলাদেশ যে অবস্থানে ছিল, সেখান থেকে ১০ ধাপ নিচে নেমে গেছে। সরকার সব সময় বলছে বাংলাদেশ নাকি বিশ্বের রোল মডেল, তাহলে বিশ্বের সুখী দেশের তালিকায় ১০ ধাপ নিচে নামলো কেন? এর জবাব সরকারকে দিতে হবে, ধোঁকাবাজি দিয়ে চিরদিন টিকে থাকা যায় না। এদিকে, খালেদা জিয়ার মুক্তি আন্দোলন হবে, তবে বলে কয়ে সেই আন্দোলন হবে না বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির আরেক সদস্য আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী। তিনি বলেন, দেশের মানুষের প্রত্যাশা পূরণের জন্য, খালেদা জিয়ার মুক্তির জন্য যে আন্দোলন সৃষ্টি হবে, সে আন্দোলন বলে কয়ে হবে না। আন্দোলন হবে, দেশ মুক্ত হবে, খালেদা জিয়া মুক্ত হবেন।

আজ (শুক্রবার) জাতীয় প্রেসক্লাবে জিয়া পরিষদ আয়োজিত প্রতিবাদ সভায় এসব কথা বলেন আমির খসরু। তিনি আরও বলেন, বিএনপি যে পথে চলছে, সেই পথেই থাকবে। বিএনপির পথ গণতন্ত্র ও মানবাধিকার, আইনের শাসন, গণমাধ্যমের স্বাধীনতা এবং জীবনের নিরাপত্তার পথ। এই পথ থেকে বিএনপি বিচ্যুত হয়নি, সামনেও হবে না। যারা বিচ্যুত হয়েছে তারা কিভাবে ঘুরে দাঁড়াবে এটাই হচ্ছে আজকের আলোচ্য বিষয়। অন্যদিকে, বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে রাজধানীতে বিক্ষোভ মিছিল করেছে বিএনপি।

আজ (শুক্রবার) বেলা ১১টার দিকে দলের সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীর নেতৃত্বে এ বিক্ষোভ মিছিল বের করা হয়। মিছিলটি নয়াপল্টন বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে থেকে বের হয়ে ফকিরাপুল-নাইটিঙ্গেল মোড় ঘুরে কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে এসে শেষ হয়।

মিছিল শেষে নয়াপল্টন বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে সংক্ষিপ্ত সমাবেশে রুহুল কবির রিজভী বলেন, দেশে নৈরাজ্যজনক পরিস্থিতি আর চলতে দেয়া যায় না। স্বৈরশাসনের কষাঘাতে জনগণের মনে বিষাদঘন অবস্থা বিরাজমান। দেশনেত্রী খালেদা জিয়াকে আটকিয়ে রাখা হয়েছে দস্যুবৃত্তির পন্থায়। তাকে চিকিৎসা না দিয়ে অসুস্থতাকে গুরুতর করার যাবতীয় ব্যবস্থা করে যাচ্ছে সরকার।

পাঠকের মন্তব্য