শাকিব খানই খোলা রাখবেন সিনেমা হল

১২ এপ্রিল থেকে দেশের সব সিনেমা হল বন্ধ রাখার ঘোষণা দিয়েছেন প্রদর্শকরা। সম্প্রতি সংবাদ সম্মেলন করে এ কথা জানান তারা। অবস্থাদৃষ্টে তাদের সরে আসার সম্ভাবনা দেখা না গেলেও শাকিব খান পরিস্থিতিতে নতুন চমক আনতে পারেন।

শাকিবের হাতে মুক্তি প্রতীক্ষিত ছবি বলতে আছে শামীম আহমেদ রনি পরিচালিত ‘শাহেনশাহ’। কয়েকবার মুক্তির তারিখ দিয়েও কিছুদিন আগে জানানো হয় দেরি হবে। তখন ধারণা করা হয়েছিল ঈদুল ফিতরে মুক্তি পেতে পারে নুসরাত ফারিয়া ও নবাগত রোদেলা জান্নাতকে নিয়ে নির্মিত সিনেমাটি।

কিন্তু প্রদর্শকদের ঘোষণার কয়েক দিনের মাথায় জানা গেল, ১২ এপ্রিল মুক্তি পাবে ‌’শাহেনশাহ’। অর্থাৎ, ঠিক যে দিন ভারতীয় সিনেমার আমদানির দাবিতে হল বন্ধ করবে মালিকরা।সে দিকে পরিস্থিতি নতুন দিকে মোড় নিতেও পারে।

এখানেই শেষ নয়। রোজার ঈদকে কেন্দ্র করে শাকিবের প্রযোজনায় শবনম বুবলিকে নায়িকা করে মালেক আফসারি নির্মাণ করছেন ‘পাসওয়ার্ড’। অগ্রিম বুকিংয়ের কারণে সেই সিনেমাও আলোচনায় এসেছে। সংবাদমাধ্যম থেকে জানা যায়, ইতিমধ্যে তিনটি হল থেকে সাড়ে ১১ লাখ টাকা সংগ্রহ করেছেন শাকিব ও সহপ্রযোজক মো. ইকবাল। তবে এ নিয়ে প্রদর্শক সমিতির কর্তাব্যক্তিরা জানান, বন্ধ রাখার সিদ্ধান্তে বহাল আছেন তারা।

শাকিব আরও ঘোষণা দেন ঈদুল আজহার জন্য নির্মাণ করতে যাচ্ছেন ‘ফাইটার’। ছবিটি পরিচালনা করবেন বদিউল আলম খোকন।

বিদেশি সিনেমা কেন্দ্রিক এ আন্দোলনের নানা পক্ষের সম্মতি রয়েছে বলে অনেকে মনে করছেন। যেমন; বৃহস্পতিবার প্রথম আলো সম্পাদক মতিউর রহমান ‘সব কটা জানালা খুলে দাও’ শিরোনামের লেখায় বিদেশি সিনেমা আমদানির পক্ষে সাফাই গান।

এ পরিস্থিতি অবস্থা উত্তরণে সিনেমা কেন্দ্রিক সংগঠনগুলোর কোনো ভূমিকা চোখে পড়ছে। সবাই শুধু কথার মারপ্যাচে মধ্যে সীমিত আছেন। সেখানে শাকিবের সিনেমা মুক্তি কার্যকর পদক্ষেপ- যা বলার অপেক্ষা রাখে না।

পাঠকের মন্তব্য