বাড়াবাড়িতে রণবীর, বিয়ে ভাঙার সিদ্ধান্ত দীপিকার !

রণবীর-দীপিকা

রণবীর-দীপিকা

দাম্পত্য জীবনে ইতি টানতে চলেছেন দীপিকা এবং রণবীর। সেলেব দম্পতি রণবীর সিং এবং দীপিকা পাড়ুকোনকে নিয়ে ভক্তদের মধ্যে উৎসাহ উত্তেজনা চিরকাল। তাঁদের মতো সুখী দম্পতি নাকি বলিপাড়ায় আর কেউ নেই! আর তাঁদের ব্যক্তিগত জীবন সবসময়েই পাপারাজিদের লেন্সের ফোকাসে! ভক্তদের মনে হাজারও প্রশ্ন, এতো গোছানো মেয়ে হওয়া সত্ত্বেও রণবীরের মতো একটা অগোছাল ছেলের সঙ্গে মানিয়ে নিয়ে কীভাবে রয়েছেন দীপিকা? তাঁদের সুখী দাম্পত্যে ঘরকন্না চলছেই বা কী করে? 

এত ব্যস্ততার মাঝেও তাঁরা একসঙ্গে সময় কাটান কী করে? এহেন যাবতীয় প্রশ্ন ভিড় করে ভক্তদের মনে। এক্কেবারে পারফেক্ট ‘হ্যাপি কাপল’ যা বোঝায়। এতদিন সেই উদাহরণের তালিকায় এই সেলেব দম্পতির নামই ছিল শীর্ষে। এমনকী, তাঁদের সুখী দাম্পত্যের কৌশল জানতেও কিছুদিন আগে উদগ্রীব হয়েছিলেন দর্শক। কিন্তু, সেই দাম্পত্যজীবন এখন অসুখী হয়েছে। কিন্তু হঠাৎ এমন কী হল, যার জন্য বিয়ের পাঁচ মাসের মধ্যেই বিচ্ছেদের পথে হাঁটছেন তাঁরা?

দীপিকা-রণবীরের বিচ্ছেদের খবর চাউর হতেই বলিপাড়ার অন্দরে হায় হায় রব উঠেছে। শোনা গিয়েছে, রণবীরের ঘনিষ্ঠ বন্ধু অর্জুন মধ্যস্থতার জন্য ফোন করেছেন প্রিয় বন্ধু রণবীরকে। একদিকে অর্জুন যখন হপ্তা দু’য়েকের মধ্যেই মালাইকার সঙ্গে গাঁটছড়া বাঁধছেন, তখন বন্ধু রণবীর বিচ্ছেদের পথে হাঁটছেন। 

কিন্তু কেন এমনটা হল? শোনা যাচ্ছে, রণবীরের অদ্ভূত কাণ্ডকারখানায় মেজাজ হারিয়ে ফেলছেন দীপিকা। স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ঝামেলা এমন পর্যায়ে পৌঁছেছে যে ‘ছপাক’-এর সেট ছেড়ে চলে এসেছিলেন অভিনেত্রী। এছাড়াও, রণবীরের পোশাকের রুচি নিয়ে বিরক্ত দীপিকা। দীপিকা বক্তব্য, রণবীরের পোশাক নির্বাচন তাঁর এক্কেবারেই পছন্দ নয়। 

একথা তিনি প্রকাশ্যেও একবার জানিয়েছেন। তাছাড়া, রণবীর যেরকম পোশাক পরেন, তাতে নাকি প্রকাশ্যে দীপিকার ভাবমূর্তিও নষ্ট হচ্ছে। ঘনিষ্ঠ মহলে, মাঝেমধ্যেই রণবীরকে নিয়ে হাসিঠাট্টা হয়। আর স্ত্রী হয়ে, স্বামীর এহেন নিন্দা বা সমালোচনা কারই বা শুনতে ভাল লাগে! উপরন্তু, ছবির প্রচারে গিয়ে রণবীরের এদিক-ওদিক ঝাঁপিয়ে পড়ার মতো কার্যকলাপেও তিতিবিরক্ত দীপিকা। ভেবেছিলেন বিয়ের পর সব ঠিক হয়ে যাবে একসঙ্গে থাকতে থাকতে, কিন্তু হল আর কই! ঘনিষ্ঠ সূত্রের খবর, দিন কয়েক আগেই এক গেট টুগেদারে রণবীরকে কষিয়ে চড় মেরেছিলেন স্ত্রী দীপিকা।

প্রসঙ্গত, গত নভেম্বরের ১৪ তারিখে ইতালির লেক কোমোয় রাজকীয়ভাবে ঘনিষ্ঠ বন্ধুদের উপস্থিতিতে কোঙ্কণী এবং সিন্ধি মতে বিয়ে সেরেছিলেন দীপিকা-রণবীর। কিন্তু বিয়ের পাঁচ মাসের মধ্যেই দাম্পত্য কলহে অস্থির অভিনেত্রী। দীপিকার এই সিদ্ধান্তে হতবাক অনেকেই। তবে, যেদিন ‘ছপাক’-গার্ল এই এতবড় সিদ্ধান্তটা নিলেন, সেদিনের তারিখটা দেখার জন্য ক্যালেন্ডারে চোখ রাখুন। সারা দুনিয়ায় এই একটাই দিন রেখে দেওয়া আছে নিছক মজা করার জন্য। দিনটার অস্থিমজ্জাতেই যে লুকিয়ে আছে এ কথা। কত জোক এল গেল, কত জোকই আসবে। 

রণবীরকে নিয়ে মজাও তেমনই থেকে যাবে। কিন্তু পয়লা এপ্রিল আর তো কাল থাকবে না। এই নিছক রসিকতা করার লাইসেন্সটুকুও তাই থাকবে না। তাই না হয় একটু মশকরা আজ মেনেই নিলেন। বরং ভাবুন, দীপিকা-রণবীর ভাগ্যিস এমন কোনও সিদ্ধান্ত নেননি। নিলে না জানি কত বিতর্ক হত, শুরু হত কচকচানি। পয়লা এপ্রিল স্রেফ মজা করার জন্যই এই পোস্ট। এই মজাটুকু স্রেফ ভাল থাকার আর SHARE করে নেওয়ার জন্যই!

পাঠকের মন্তব্য