জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে সাধারণ ডায়েরি করেছেন জয় 

উপস্থাপক শাহরিয়ার নাজিম জয়

উপস্থাপক শাহরিয়ার নাজিম জয়

জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে রূপনগর থানায় সাধারণ ডায়েরি করেছেন অভিনেতা ও উপস্থাপক শাহরিয়ার নাজিম জয়। ঢাকা মহানগর পুলিশের সাইবার অপরাধ বিভাগ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছে।

সাইবার অপরাধ বিভাগের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার নাজমুল ইসলাম বলেন, শাহরিয়ার নাজিম জয় জানিয়েছেন, ফেসবুকে তার আইডি হ্যাকড হয়েছে। তার আগে তাকে হত্যার হুমকি দেওয়া হয়। এর বাইরেও মোবাইলে বিভিন্ন অ্যাপ থেকে হুমকি দেওয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছেন তিনি। প্রাথমিকভাবে হুমকির প্রমাণ পাওয়া গেছে। পুলিশ হুমকিদাতাদের শনাক্ত করতে কাজ শুরু করেছে।

প্রসঙ্গত, বনানীর অগ্নিকাণ্ডে পানির পাইপ চেপে ধরে হিরো বনে যায় শিশু নাঈম ইসলামকে নিয়ে তার নেয়া একটি সাক্ষাৎকার সামাজিক মাধ্যমে ব্যাপক আলোচনা-সমালোচনার জন্ম দিয়েছে।

নাঈমের কাজে খুশি হয়ে যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী এক বাংলাদেশি তাকে পাঁচ হাজার ডলার পুরস্কার দেওয়ার ঘোষণা দেন। ঘটনাটি আলোচনায় আসার পর টিভি উপস্থাপক ও অভিনেতা শাহরিয়ার নাজিম জয় নাঈমের একান্ত সাক্ষাৎকার নেন।

নাঈম পুরস্কারের সেই টাকাগুলো নেবে কি না এবং নিলেও সেই টাকা কী করবে- এমন প্রশ্ন করেন উপস্থাপক জয়। জবাবে নাঈম জানায়, সেই টাকাগুলো সে এতিমখানার অনাথ শিশুদের জন্য দান করে দিতে চায়। ছেলের এ জবাবে সায় দেন তার মা-বাবাও।

এতিমখানায় কেন টাকা দিতে চায় এমন প্রশ্নের উত্তরে নাঈম বলে, এর আগে খালেদা জিয়া এতিমের টাকা লুট করে খেয়েছেন, তাই এই টাকা সে এতিমদের দিতে চায়।

তবে শিশু নাঈমকে জয়ের এ ধরনের প্রশ্ন করাটাকে উদ্দেশ্যপ্রণোদিত উল্লেখ করে এর সমালোচনা করেছেন ফেসবুক ব্যবহাকারীরা।

কে এই শাহরিয়ার নাজিম জয়

শাহরিয়ার নাজিম জয় (জন্ম: ৮ই জানুয়ারি, ১৯৭৮) হলেন একজন বাংলাদেশী অভিনেতা, পরিচালক ও প্রযোজক। তিনি প্রধানত টেলিভিশন নাটক ও ধারাবাহিক নাটকে অভিনয় করেন। ১৯৯৭ সালে গোধুলী লগ্নে নাটক দিয়ে তার টেলিভিশন পর্দায় অভিষেক হয়। তিনি বিলেত বিলাস ও কন্যা কুমারী টেলিভিশন নাটক দিয়ে জনপ্রিয়তা অর্জন করেন। তার পরিচালিত প্রথম টেলিভিশন নাটক গলির মোড়ে সিডির দোকান। ২০০৬ সালে জীবনের গল্প দিয়ে তার চলচ্চিত্রে অভিষেক হয়। পরবর্তীতে তিনি এই যে দুনিয়া, গ্রাম গঞ্জের পিরীত, পাষাণের প্রেম, ও মোস্ট ওয়েলকাম ২ চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন। ২০১৫ সালে প্রার্থনা দিয়ে তার চলচ্চিত্র পরিচালনায় অভিষেক হয়। 

এছাড়া তিনি এটিএন বাংলার সেলিব্রিটি টক-শো "সেন্স অফ হিউমার", এশিয়ান টিভির "কমনসেন্স" এবং একুশে টেলিভিশনের "উইথ নাজিম জয়" অনুষ্ঠান উপস্থাপনা করেন।

 

পাঠকের মন্তব্য