খালেদা জিয়ার প্যারোলে মুক্তির প্রস্তাব দেয়নি কেউ 

খালেদা জিয়ার প্যারোলে মুক্তি

খালেদা জিয়ার প্যারোলে মুক্তি

বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ও সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি অ্যাডভোকেট জয়নুল আবেদীন বলেছেন, দীর্ঘদিন কারাগারে থেকে অসুস্থ হয়ে পড়া বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তির জন্য প্যারোলের প্রস্তাব কেউ দেয়নি।বিএনপি চেয়ারপারসন নিজে কিংবা তার পরিবারের পক্ষ থেকে কেউ এ ধরণের প্রস্তাব দেয়নি।

বুধবার দুপুরে সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির শহীদ সফিউর রহমান মিলনায়তনে সুপ্রিম কোর্ট বারের বর্তমান কমিটির বিদায়ী সংবাদ সম্মেলনে তিনি একথা বলেন।

খালেদা জিয়ার প্যারোলে মুক্তির বিষয়টি গণমাধ্যম থেকে জেনেছেন দাবি করে জয়নুল আবেদীন বলেন, প্যারোলে মুক্তির বিষয়টি পত্র-পত্রিকা থেকে আমরা জেনেছি। তিনি (খালেদা জিয়া) নিজে কিংবা তার পরিবারের পক্ষ থেকে কেউ কোনো কথা বলেনি বা আবেদন করেনি। এমনকি সরকারের পক্ষ থেকেও এ বিষয়ে প্রস্তাব দেয়া হয়নি।

খালেদা জিয়ার মুক্তির বিষয়ে সরকারের সদিচ্ছা নেই অভিযোগ করে বিএনপির এই নেতা বলেন, দীর্ঘদিন কারাগারে থেকে অসুস্থ হয়ে পড়া বিএনপি চেয়ারপারসনের মুক্তিতে সরকারের সদিচ্ছা নেই। রাজনৈতিক মামলা দিয়ে তাকে দীর্ঘদিন ধরে কারাবন্দি করে রাখা হয়েছে। তাকে দিন দিন মৃত্যুর দিকে ঠেলে দেয়া হচ্ছে।

‘তিনবারের প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত মামলায় দীর্ঘদিন অন্ধকার কারাগারে আটকে রাখা হয়েছে।তিনি ভীষণ অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। তাকে মৃত্যুর মুখে ঠেলে দেয়া হচ্ছে’-যোগ করেন জয়নুল। অ্যাটনি জেনারেলের ভূমিকার সমালোচনা করে জয়নুল আবেদীন বলেন, অ্যাটর্নি জেনারেল রাষ্ট্রের জন্য কাজ না করে সরকারের অ্যাটর্নি জেনারেল হিসেবে কাজ করছেন।

সম্মেলনে আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক ব্যারিস্টার এ এম মাহবুব উদ্দিন খোকন বলেন, খালেদা জিয়ার অসুস্থতা নিয়ে দৃষ্টি ভিন্ন দিকে নিতে প্যারোলে মুক্তির ইস্যুটি একটা কৌশল হতে পারে। এ সময় সরকারের দ্বারা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালকে ট্রানজিট হিসেবে ব্যবহার করে খালেদা জিয়াকে কেরানীগঞ্জ কারাগারে নেয়ার ষড়যন্ত্র চলছে বলে মন্তব্য করেন তিনি।

প্রসঙ্গত, দুই মামলায় ১৭ বছর দণ্ডিত হয়ে কারাবন্দী বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। তিনি কারাগারে থেকে অসুস্থ হয়ে পড়ায় সোমবার তাকে বঙ্গবন্ধু মেডিকেলে ভর্তি করা হয়। এরইমধ্যে তার প্যারোলে মুক্তির বিষয়টি আলোচনায় চলে আসে।

পাঠকের মন্তব্য