মাদরাসা ছাত্রীর গায়ে অগ্নি সংযোগে মামলা করলেন ভাই

মাদরাসা ছাত্রীর গায়ে অগ্নিসংযোগে মামলা

মাদরাসা ছাত্রীর গায়ে অগ্নিসংযোগে মামলা

সোনাগাজী ইসলামিয়া সিনিয়র ফাজিল মাদরাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফিকে অগ্নিদগ্ধ করার ঘটনায় অজ্ঞাত নামা চার জনের নামে এজাহার দায়ের করেছেন রাফির বড় ভাই মাহমুদুল হাসান নোমান। 

নোমান মুঠোফোনে কালের কণ্ঠকে জানান, মাদ্রাসার অধ্যক্ষ সিরাউদ্দৌলার বিরুদ্ধে শ্লীলতাহানি হানির মামলা দায়েরের পর যে চার জন বিভিন্ন সময় মামলা প্রত্যাহারের জন্য আমি ও আমার পরিবারের সদস্যদেকে হুমকি প্রদান করেছেন তাদের নামও মামলার এজাহারে উল্লেখ করা হয়েছে।

মামলার বিষয়ে জানতে চাইলে সোনাগাজী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জানান, রাফির পরিবারের সদস্যরা তার চিকিৎসার কাজে ঢাকাতে ব্যস্ত থাকায় এজাহারটি নিয়ে আসার জন্য আমরা একজন অফিসারকে ঢাকায় পাঠিয়েছি।

রাফির অবস্থা সংকটাপন্ন। তাকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে লাইফ সাপোর্টে নেওয়া হয়েছে। 

ইতোমধ্যে আগুন ধরিয়ে দেওয়ার ঘটনায় কারান্তরীণ অধ্যক্ষকে মাদ্রাসা থেকে সামায়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়েছে এবং রবিবার থেকে ১৬ এপ্রিল পর্যন্ত মাদ্রাসা বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। আজ সোমবার সোনাগাজী ফাজিল (ডিগ্রি) মাদ্রাসা কেন্দ্রে থেকে পরীক্ষা শেষে অগ্নিদগ্ধ নুসরাত জাহান রাফির ওপর হামলা কারীদের বিচার চেয়েছে পরীক্ষার্থীরা।

পাঠকের মন্তব্য