কওমি মাদ্রাসার দাওরায়ে হাদিসের সবগুলো পরীক্ষা বাতিল

 কওমি মাদ্রাসার দাওরায়ে হাদিসের সবগুলো পরীক্ষা বাতিল

কওমি মাদ্রাসার দাওরায়ে হাদিসের সবগুলো পরীক্ষা বাতিল

আইনগতভাবে গতবছর থেকে সরকারি স্বীকৃতি লাভের পর এই প্রথম কওমি মাদ্রাসার দাওরায়ে হাদিসের সবগুলো পরীক্ষা বাতিল হলো। নিয়ন্ত্রক সংস্থা আল হাইয়াতুল উলইয়া লিল জামিয়াতিল কওমিয়া বাংলাদেশের অধীনে চলমান দাওরায়ে হাদিসের সব পরীক্ষা বাতিল করেছে।

শনিবার (১৩ এপ্রিল) সকাল ৭টায় ঢাকার মতিঝিলে আল হাইয়াতুল উলইয়া লিল জামিয়াতিল কওমিয়া বাংলাদেশের কার্যালয়ে জরুরি বৈঠকে বসে নেতৃবৃন্দ এ সিদ্ধান্ত নেন।

বৈঠকে দাওরায়ে হাদিসের প্রশ্নপত্র ফাঁস বিষয়ে জরুরি আলোচনা হয় এবং বৈঠকের শুরুতে নেতৃবৃন্দ
পেছনের সব পরীক্ষা বাতিল এবং সামনের সব পরীক্ষা স্থগিতের সিদ্ধান্ত নেন।

পরে পরীক্ষার নতুন তারিখ নির্ধারণ করা হয়। সিদ্ধান্ত মতে ২৩ এপ্রিল থেকে আবারও পরীক্ষা শুরু হয়ে ৩ মে শেষ হবে। বৈঠকে প্রশ্নপত্র ফাঁসরোধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার বিষয়ে আলোচনা হয়েছে।

বৈঠকে হাইয়াতুল উলইয়ার অধিভুক্ত ৬ বোর্ডের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

প্রসঙ্গত, গত ৮এপ্রিল থেকে দাওরায়ে হাদিসের পরিক্ষা শুরু হয়। প্রথম দিন থেকেই প্রশ্নপত্র ফাঁসের গুজব ওঠলেও কর্তৃপক্ষ বিষয়টি স্বীকার করতে চান নি। শুক্রবার ফেসবুকে ভাইরাল হয়ে পড়লে জরুরি এ বৈঠকের আয়োজন করে আল হাইয়াতুল উলয়া লিল জামিয়াতিল কওমিয়া বাংলাদেশ।

পাঠকের মন্তব্য